১৫ চৈত্র ১৪২৩, বুধবার ২৯ মার্চ ২০১৭ , ১:১৩ অপরাহ্ণ
bangla fonts
facebook twitter google plus rss
Laisfita

প্রেসক্লাব সভাপতির বিরুদ্ধে জমি দখলের অভিযোগ জানালেন শামীম ওসমান


১০ জানুয়ারি ২০১৭ মঙ্গলবার, ০৮:১৮  পিএম

নিউজ নারায়ণগঞ্জ


প্রেসক্লাব সভাপতির বিরুদ্ধে জমি দখলের অভিযোগ জানালেন শামীম ওসমান

নাম উল্লেখ না করা নারায়ণগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সভাপতি একজন প্রবাসী ব্যবসায়ীর জমি দখল করেছেন অভিযোগের কথা জানিয়েছেন নারায়ণগঞ্জ-৪ (ফতুল্লা-সিদ্ধিরগঞ্জ) আসনের আওয়ামীলীগের প্রভাবশালী সংসদ সদস্য একেএম শামীম ওসমান।

তিনি বলেছেন, নারায়ণগঞ্জে স্থানীয় পত্রিকায় সম্মানের সাথে কাজ করেন রিপোটিং ও ফটো সাংবাদিকতায় তারা নারায়ণগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সদস্য নয়। নারায়ণগঞ্জ প্রেস ক্লাবের নেতৃত্ব দেয়া হয়েছে একজন রাজাকারের ছেলের হাতে। রাজাকারের সন্তানের হাতে যদি প্রেস ক্লাব থাকে তাহলে সেখানে বুঝতে হবে ধান্দাবাজি ছাড়া কিছু হয়না। আর প্রতিষ্ঠিত সাংবাদিকদের সদস্য করা হয়না কারণ তাহলে তাদের ধান্দাবাজি বন্ধ হয়ে যাবে। শুনেছি এ প্রেস ক্লাবের সভাপতি নাকি লন্ডন প্রবাসী জাহাঙ্গীরের সম্পত্তি দখল করেছে সাংবাদিকতার ক্ষমতায়। আমি কথাটা বলেছি কারন আই হেভ দ্যা ডুকুমেন্ট।

১০ জানুয়ারী মঙ্গলবার বিকেলে নারায়ণগঞ্জ রাইফেল ক্লাব মিলনায়তনে দৈনিক কালের কন্ঠ পত্রিকার ৭তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীতে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেছেন সংসদ সদস্য একেএম শামীম ওসমান।

নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের এমপি শামীম ওসমান গণমাধ্যমকর্মীদের সহযোগিতায় দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলেছেন, আমি নামবো কঠোরভাবেই নামবো। সত্য কথা বলব। নারায়ণগঞ্জের পরিবর্তন আনার চেষ্টা করবো।

নতুন প্রজন্মের সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে নারায়ণগঞ্জ-৪ (ফতুল্লা-সিদ্ধিরগঞ্জ) আসনের আওয়ামীলীগের প্রভাবশালী সংসদ সদস্য একেএম শামীম ওসমান বলেছেন, ডু সামথিং ফর দ্যা নারায়ণগঞ্জ; ডু সামথিং ফর দ্যা কান্ট্রি।

তিনি নতুন প্রজন্মের সাংবাদিকদের আরো বলেন, মুখরোচক নিউজ ও নেগিটিভ নিউজ করা মানেই সাংবাদিকতা নয়। রাজনীতিবিদরা ভাল কাজ করলে পত্রিকার শেষ পৃষ্ঠার এক কোণে ছাপানো হয়। কিন্তু ভুল করলে সেটা হয় পত্রিকার প্রথম পৃষ্ঠায় প্রথম সংবাদ। পৃথিবীর বিভিন্ন দেশ ঘুরেছি যেখানে খুব কমই দেখেছি এমন কোন খবর প্রকাশিত হয় যে সংবাদে মানুষ অন্যায় অপরাদে উৎসাহী হয়। কিন্তু আমাদরে এখানে ভিন্ন। বাজে সংবাদগুলোকে বড় করে প্রকাশ করে অপরাধে মানুষকে উৎসাহিত করা হচ্ছে।

তিনি বলেন, দৈনিক কালের কন্ঠ পত্রিকা স্বাধীনতা ও চেতনায় উদ্বুদ্ধ করতে দৃষ্টি আকর্ষণ করেছে। দেশে বিভিন্ন ধরনের পত্রিকা রয়েছে। কিছু সময় মনে হয় জনগনের চেয়ে পত্রিকা বেশি। ওকালতি করতে হলে পড়ালেখা জানতে হয়, ইঞ্জিনিয়ার হতে হলে পড়তে হয়, ডাক্তার হতে হলে পড়তে হয়, মজার ব্যাপার হলো সাংবাদিকতা করছেন যারা তাদের মধ্যে জার্নালিজম বিষয়টি কজন সাংবাদিকদের পড়া আছে? অধিকাংশরাই জার্নালিজমে পড়ছেন না। সাংবাদিকের কাজ হলো জনগনের কাছে সংবাদ তুলে ধরা; নিউজ তুলে ধরা কিন্তু আজকে নিউজ তৈরি করা হচ্ছে। নিউজ বানানো হয়। পলিটিশিয়ানরা যেমন রাজনীতিকে পলিটিকস বানিয়েছি তেমনি সাংবাদিকরাও নিউজ বানায় তৈরি করেন। মুখোশধারী রাজনীতিবিদরাই রাজনীতিকে পলিটিকস বানিয়েছেন। আজকে অপ্রিয় হলেও সত্য যে সাংবাদিকতাকে মানুষ ভাল চোখে দেখে না। এর উত্তর সাংবাদিকদের কাছে। নিউজ বানানো তৈরি করা সাংবাদিকতা হতে পারে না। হ্যাঁ লিখেন আমার বিরুদ্ধেও লিখেন। তবে সত্য লিখেন। শয়তান ফেরেসতা ছাড়া সবারই ভুল হয়। আমাদেরও ভুল হয়। ভুল শুধরে আমাদের এগিয়ে যেতে হবে। সেই সুযোগটাও দিতে হবে। আমি কথাগুলো বললাম সাংবাদিকদের ভাই হিসেবে কোন এমপি হিসেবে কথাগুলো বলিনি। তরুন প্রজন্মকে বলেছি তাদের বড় ভাই হিসেবে। ছোট ভাইদের প্রতি দায়িত্ব হিসেবে।

শামীম ওসমান বলেন, আমি সত্য কথা বলতে ভয় পাইনা। যাদের ব্যক্তি জীবনে দুর্বলতা রয়েছে তারা সত্য কথা বলতে ভয় পায়। আমার ব্যক্তি জীবনে দুর্বলতা নেই। আমি সত্য কথা বলতে ভয় পাইনা। আমি আল্লাহ ছাড়া কাউকে ভয় পাইনা। রাজনীতি করে যদি সত্য কথা বলতে সাহস না থাকে তাহলে এ রাজনীতি করে লাভ নেই। ডেইলি স্টার পত্রিকার সম্পাদক মাহফুজ আনাম টিভি টকশোতে বলেছিল বিশেষ বাহিনীর চাপে মিথ্যা সংবাদ লিখে শেখ হাসিনাকে জেল খাটিয়েছেন। এটার নাম কি সাংবাদিকতা? যদি সত্য কথা বলতে লিখতে পারেন তাহলে কলমের শক্তি অনেক। রাজনীতিবিদদেরও মানুষ সম্মান করে না যদিও তারা ভোট দেয়। আজকে একজন শিক্ষক যদি কোন একটি ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে নির্বাচন করেন তাহলে তিনি ভোট পাবেন মাত্র ৫০টি। কিন্তু একজন চোর যদি নির্বাচন করে জয়ী হয়ে চুরি করে তখন আবার তাকে জনগন বলবে চোর। আপনি ভাল মানুষকে গ্রহণ করবেন না আবার চোরকে গ্রহণ করবেন চোর চুরি করলে তাকে বলবেন চোর। এর জন্য জনগণও দায়ী অনেকাংশে। একটি মিটিং করার পর দেখি লাইন ধরে দাঁড়ায় ১০জন সাংবাদিক। কেন দাঁড়িয়েছে; তাদের কিছু দিতে হবে। যদি ধান্দাবাজি করার জন্য সাংবাদিকতায় আসেন তাহলে আমি বলব আমি নারায়ণগঞ্জ থেকে যা উচ্ছেদ করেছিলাম তা এ সাংবাদিকতার চেয়ে উত্তম। কারণ তাদেরও একটা নীতি রয়েছে। যা ধান্দাবাজ সাংবাদিকদের নেই। এখন মাদক যেমন রাজনীতিবিদদের অনেকেই কেরী করে আবার সাংবাদিকদের অনেকেই মাদক কেরী করে। ইতিমধ্যে বেশকজন ধরাও পরেছে। পুলিশও যদি এ মাদকের জড়িত থাকে তাহলে তথ্য দিন। ছাড় দিব না। মাদক বিক্রেতা সমাজের দুশমন। আর মাদক নিমূর্ূূলে সবাইকে লড়াই করতে হবে। কারন এ নারায়ণগঞ্জ আমাদের।

দৈনিক কালের কন্ঠ পত্রিকার নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি দিলীপ কুমার মন্ডলের সঞ্চালনায় উপস্থিত ছিলেন কালের কণ্ঠ পাঠক ফোরাম শুভ সংঘ নারায়ণগঞ্জের সভাপতি চন্দন শীল, সাধারণ সম্পাদক মাসুদুর রহমান খসরু, পরিবহন মালিক সমিতির সভাপতি মুক্তার হোসেন, নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি আরিফ আলম দিপু, সাবেক সাধারণ সম্পাদক আবু সাউদ মাসুদ, জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি শংকর সাহা, সাধারণ সম্পাদক সুজন সাহা, সদর মডেল থানার ওসি আসাদুজ্জামান, পরিদর্শক (তদন্ত) আব্দুর রাজ্জাক, ফতুল্লা মডেল থানার ওসি কামাল উদ্দিন, পরিদর্শক ট্রাফিক শরফুদ্দিন, মহানগর আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শাহ নিজাম, মহানগর যুবলীগের সভাপতি শাহাদাৎ হোসেন সাজনু, সদর উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক রঞ্জিত ম-ল, ফতুল্লা শুভ সংঘের সভাপতি ইমতিয়াজ ওমর সুমন, সহ সভাপতি হাবিবুর রহমান হাবিব, দিলীপ কুমার দাস, সাধারণ সম্পাদক সাইফুদ্দিন পিন্টু, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অমিত মণ্ডল, বাসুদেব চক্রবর্তী, কমলেশ সাহা, সুশীল দাস, উত্তম সাহা, সওদাগর খান প্রমুখ। পরে ৭তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষ্যে নারায়ণগঞ্জ শহরে র‌্যালী বের করা হয়।


নিউজ নারায়াণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন:

Shirt Piece
সংগঠন সংবাদ -এর সর্বশেষ