৭ আশ্বিন ১৪২৪, শুক্রবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৭ , ১২:২৩ অপরাহ্ণ

বিএনপিকে ছাত্রলীগের টিপ্পনি


|| নিউজ নারায়ণগঞ্জ

প্রকাশিত : ০৯:১০ পিএম, ৮ জানুয়ারি ২০১৭ রবিবার | আপডেট: ০৫:৫০ পিএম, ১৩ জানুয়ারি ২০১৭ শুক্রবার


বিএনপিকে ছাত্রলীগের টিপ্পনি

নারায়ণগঞ্জ বিএনপির কর্মীদের অবমূল্যায়ন করার কারণে নেতাদের নিয়ে হাসাহাসি করাসহ তাদেরকে টিপ্পনী দিয়েছে জেলা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীসহ দলের নেতাকর্মীরাও। বিএনপির পরাজিত নাসিক মেয়র সাখাওয়াত হোসেন খান এবং নগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এটিএম কামালের দলীয় একজন রক্তাক্তকর্মীকে হাসপাতালে নেয়ার সময় তাদের দুজনের হাসির ছবি ফেসবুকে পোস্ট করে জেলা ছাত্রলীগের একজন সহ সভাপতি ওই টিপ্পনি দিয়েছেন। যদিও বিএনপির নেতাকর্মীরাও তার এই টিপ্পনিতে সমর্থন জানিয়েছেন।

শনিবার ফেসবুকে দেয়া ওই স্ট্যাটাসে জেলা ছাত্রলীগের সহ সভাপতি মিজানুর রহমান সজিব লিখেন, ‘রক্তাক্ত কর্মী এই সব বিএনপি নেতাদের কাছে কর্মী নাকি বাচ্চা পুলাপাইনের পাছা দিয়ে বের হওয়া কৃমিৃ বড় জানতে ইচ্ছে করে???? নাঃগঞ্জ বিম্পীর মেয়র প্রার্থীর রাজ্য জয়ের হাসিটা জোশ অবশেষে তিনি কর্মীর রক্ত হাতে খালেদার কাছে প্রমাণ করলেন তিনি সংগ্রামী, ত্যাগী। হে জিয়া সাহেবের কর্মী ইশকুইজমিঃ আপ্নি কর্মী নাকি কৃমি???``
 
এদিকে তার এই ছবি পোস্ট করার পর ক্ষমতাসীন দলের অনেক নেতাকর্মীরা এ নিয়ে হাসাহাসি শুরু করেন। অনেকেই চায়ের আড্ডায় বলেন, বিএনপির নেতারা আজীবনই মানুষের রক্ত নিয়ে খেলেছে তাই এখন দলের নেতাকর্মীদের রক্তও তাদের কাছে মূল্যহীন। এসব নেতাদের কোন দলেই রাজনীতি করতে দেয়া উচিত নয় বলে আওয়ামীলীগের বিভিন্ন চায়ের আড্ডায় উঠে আসে।
 
এদিকে ঐ ছবিটি নিয়ে স্থানীয় ও জাতীয় কয়েকটি অনলাইন ও পত্রপত্রিকায় লেখালেখি হয়। মুলত সেসব লেখায় উঠে আসে সদ্য রাজনৈতিক ব্যক্তি হয়ে উঠা দলের কয়েকজন নেতার সম্পর্কে। ঐসব লেখায় দলের এসব নেতাদের ভবিষ্যৎ রাজনীতির ক্ষেত্রে আরো সতর্ক হতে পরামর্শ প্রদান করা হয়।
 
দলের কর্মীর রক্তের সামনে নেতাদের এমন হাসাহাসি বিএনপি নেতাদের রাজনীতির ক্ষেত্রে একটি অন্যরকম দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে বলে জেলার অনেক বিএনপির রাজনীতিবিদ মনে করছেন। আর তাই এমন দৃশ্য দেখে জেলা বিএনপির অনেক নেতাই এখন কর্মীবান্ধব হিসেবে নিজেকে জাহির করার জন্য নিজ কর্মীদের সাথে যোগাযোগ রক্ষা করছেন।

ওই ছবি ৫ জানুয়ারী সন্ধ্যার পর থেকেই পোস্ট করার পর সর্বত্র ছড়িয়ে পড়ে। বিএনপির বিভিন্ন স্তরের নেতাকর্মীরা ওই ছবি পোস্ট করে সর্বত্র ছড়িয়ে দেয়। শুরু হয় এ নিয়ে বাকযুদ্ধ তথা পাল্টাপাল্টি মন্তব্য। একের পর এক মন্তব্য পড়তে থাকে ওই ছবির নিচে।

ছবিতে দেখা গেছে নগর বিএনপির সেক্রেটারী এটিএম কামাল ও একই দলের বিদ্রোহী কমিটির সেক্রেটারী সাখাওয়াত হোসেন খান সিদ্ধিরগঞ্জ থানা যুবদলের সহ সভাপতি মঞ্জুরুল হক মুছাকে একটি রিকশায় করে হাসপাতালে নিয়ে যাচ্ছে। ওই মুছার মাথা ফেটে যখন রক্ত ঝরছিল তখন ক্যামেরার সামনে হাসি মুখে ছবি তুলতে দ্বিধাবোধ না করে বরং স্বস্তি আর ফটোসেশন করেন দুইজন নেতা। তাদের সঙ্গে দেখা দিলে এক সময়ের নির্যাতিত ছাত্রদল নেতা সদা হাস্যোজ্জল রুহুল আমিন সিকাদরকেও। এছাড়া অপর একটি ছবিতে দেখা গেছে বিএনপির নেতারা ব্যানার নিয়ে পুলিশের সঙ্গে কথিত ধস্তাধস্তি করতে গিয়ে হাসিতে ফেটে যাচ্ছেন। স্যূট কোর্ট পরিহিত বিএনপি নেতারা আন্দোলনে না থেকে নতুন করে সেটা করতে গিয়েই হাসি মুখে ধরা পড়ে ক্যামেরার ক্লিকে।

নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
Shirt Piece

রাজনীতি -এর সর্বশেষ