৮ কার্তিক ১৪২৪, সোমবার ২৩ অক্টোবর ২০১৭ , ৫:৪৯ অপরাহ্ণ

মুখস্ত বিদ্যাকে প্রাধান্য না দিয়ে ভালো ফলাফল নারায়ণগঞ্জ আইডিয়ালের


|| নিউজ নারায়ণগঞ্জ

প্রকাশিত : ০৮:৩০ পিএম, ১১ জানুয়ারি ২০১৭ বুধবার


মুখস্ত বিদ্যাকে প্রাধান্য না দিয়ে ভালো ফলাফল নারায়ণগঞ্জ আইডিয়ালের

এবার জেএসসি ও জেডিসিতে নারায়ণগঞ্জের শীর্ষ ভালো ফলাফল করার তালিকায় থাকা স্কুলগুলোর মধ্যে অন্যতম হচ্ছে শহরের আমলাপাড়ায় অবস্থিত নারায়ণগঞ্জ আইডিয়াল স্কুল। এ বিদ্যালয়ের ফলাফলে খুশি বিদ্যালয়ের শিক্ষক, শিক্ষার্থী এবং অভিবাবকরাও। স্কুলের ফলাফলে নারায়ণগঞ্জের অনেক শীর্ষ বিদ্যালয়গুলোও ঈর্ষান্বিত কারণ সকলেই সঠিকভাবে শিক্ষা প্রদান করলেও ফলাফল অনেকেরই প্রত্যাশা অনুযায়ী আসেনি। এতে করে প্রতিষ্ঠানের পাশাপাশি স্কুলের শিক্ষকদেরও সুনাম অর্জনে কিছুটা পিছপা হতে হচ্ছে।

বুধবার ১১ জানুয়ারি দুপুর ঠিক ২টার দিকে স্কুলে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় একদল শিক্ষার্থী মাঠে খেলাধুলা করছেন, আরেকদল শিক্ষার্থী বিভিন্ন শ্রেণীকক্ষে ক্লাস করছেন আর শিক্ষকরা ব্যস্ত শ্রেণীকক্ষে। সেখানে দেখা যায় প্রায় প্রতিটি শিক্ষকই শিক্ষার্থীদের সাথে হাসিমুখে কথা বলছেন। বিদ্যালয়টিতে ছেলে মেয়ে একত্রে ক্লাস করলেও তেমন কোন গুরুত্বর অভিযোগ এখনো বিদ্যালয়টিতে পাওয়া যায়নি। অভিভাবকরাও তাদের সন্তানদের এই বিদ্যালয়ে লেখাপড়া করাতে গিয়ে থাকেন নিশ্চিন্ত।
 
ভালো ফলাফলের ব্যাপারে জানতে চাইলে বিদ্যালয়টির প্রধান শিক্ষক আনোয়ার হোসেন নিউজ নারায়ণগঞ্জকে জানান, ‘‘আমাদের ফলাফল ভালো করার পিছনের মুল কারণই হচ্ছে আমরা আমাদের সন্তানদের কাছে আন্তরিকতার কোন অভাব রাখিনা। আমরা সন্তানদের মুখস্ত বিদ্যার উপর গুরুত্ব না দিয়ে তাদেরকে গতানুগতিক শিক্ষা ও চলমান পাঠদান দিতেই বেশি গুরুত্ব দিয়ে থাকি। এতে করে আমাদের শিক্ষার্থীদের সৃষ্টিশীল মন মানসিকতার বিকাশ ঘটে। শিক্ষার পাশাপাশি আমাদের সন্তানদেরকে আমরা খেলাধুলা, শরীরচর্চা, সৃষ্টিশীল কাজের প্রতি ব্যাপক আগ্রহ সৃষ্টিতে ভূমিকা রাখি।`’’
 
তিনি বলেন, শিক্ষার্থীদের অতিরিক্ত চাপ না দিয়ে তাদেরকে তাদের ধারণক্ষমতা অনুযায়ী আমরা পাঠদান করে থাকি। বুঝে বুঝে পাঠদান করার কারণে আমাদের শিক্ষার্থীরা অনেক কিছুই নিজ থেকে লিখতে ও তৈরী করতে সক্ষম। প্রতিটি পড়াই যদি গোড়া থেকে বুঝানো যায় তবে মুখস্ত বিদ্যার প্রয়োজন পড়েনা।
 
বিদ্যালয়টির বাইরে অনেক অভিভাবকদের দেখা যায় নিশ্চিন্ত মনে একে অন্যের সাথে কুশল বিনিময় করতে। কথা হয় মহিলা অভিভাবক কল্পনার সাথে। তিনি জানান, আমি আমার মেয়েকে বিদ্যালয়ে দিয়ে অনেকটা নিশ্চিন্ত হয়েছি। এখানে শিক্ষা ব্যবস্থা খুবই ভালো। আমার মেয়ে পাঠ্যপুস্তকের শিক্ষার পাশাপাশি বাস্তব শিক্ষায়ও শিক্ষিত হচ্ছে। সে অনেক কিছুই বুঝতে শিখেছে এখানে এসে।
 
আরেক অভিভাবক সোমা জানান, বিদ্যালয়ের পাঠদান ব্যবস্থা সত্যিই অনেক ভালো। আমার সন্তানের পড়ালেখা নিয়ে আমি কিছুটা চিন্তামুক্ত থাকতে পারি আইডিয়াল স্কুলের কারণে। সন্তানের বাবাও চিন্তামুক্ত থাকেন। স্কুলের শিক্ষা ব্যবস্থা এরকম সুশৃঙ্খল নহবার কারণেই আমাদের সন্তানরা ভালো ফলাফল করতে পারে। এ ছাড়া আমাদেরও অক্লান্ত চেষ্টা থাকে আমাদের সন্তাদের ফলাফলের ব্যাপারে। শিক্ষক ও আমাদের সম্মনিত চেষ্টায় আমাদের সন্তানরা ভালো ফলাফল করছে যা সামনের দিনগুলিতেও তারা ধরে রাখার চেষ্টা করবে।
 
এদিকে নারায়ণগঞ্জ আইডিয়াল স্কুলকে আইডল মেনে এখন অনেক বিদ্যালয়ই তাদের পাঠদান ব্যবস্থায় পরিবর্তন এনে শিক্ষাকে মুখস্ত নীতির বাইরে এনে গঠনমুলক করতে চেষ্টা করবেব বলে অনেক অভিভাবকদের ধারণা। কারণ এতে করে ভালো ফলাফল করার পাশাপাশি প্রতিটি প্রতিষ্ঠানের সাথে প্রতিষ্ঠানে কর্মরত বিভিন্ন শিক্ষক ও সেখানে অধ্যয়নরত শিক্ষার্থীদের সুনাম বৃদ্ধি পাবে।

প্রসঙ্গত নারায়ণগঞ্জ আইডিয়াল স্কুল থেকে ২০১ জন পরীক্ষার্থী অংশগ্রহন করেছে যার মধ্যে ১২৮জন জিপিএ-৫ পেয়েছে।

নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
Shirt Piece

শিক্ষাঙ্গন -এর সর্বশেষ