৭ আশ্বিন ১৪২৪, শুক্রবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৭ , ৭:৩৪ অপরাহ্ণ

নারায়ণগঞ্জে জলমগ্ন সড়কে রিকশা নৌকা একত্রে


সিটি করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ

প্রকাশিত : ০৮:২৩ পিএম, ৫ জুলাই ২০১৭ বুধবার


নারায়ণগঞ্জে জলমগ্ন সড়কে রিকশা নৌকা একত্রে

নারায়ণগঞ্জ শহরের ইসদাইর এলাকাটি সিটি করপোরেশন এলাকার ১২নং ওয়ার্ডে সেই সঙ্গে এটা ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ-ডেমরা তথা ডিএনডি বাধের ভেতরের। গত কয়েকদিনের বৃষ্টিতে এখানে এখন কোথাও কোমর কোথাও হাঁটু সমান পানি। সে কারণেই এলাকার শাহাবুদ্দিন নামের এক ব্যক্তি ৪টি নৌকা নামিয়েছেন। ছোট আকৃতির নৌকা দিয়েই চলছে এলাকার লোকজনকের পারাপার। সেই সঙ্গে নৌকার পাশাপাশি কদাচিৎ দেখা যায় রিকশাও। আর গাড়ি তো সেখানে চলাচল দূরের কথা।

শুধু ইসদাইর না ৩২ দশমিক ৮ কিলোমিটার ডিএনডি বাধের ভেতর ৫৬ বর্গ কিলোমিটারের বেশীরভাগ এলাকা এখন পানিতে তলিয়ে গেছে। এসব এলাকার বেশীরভাগ এলাকাতেই হাটু থেকে কোমর পানি। গত কয়েকদিন ধরে টানা বর্ষণে এ জলাবদ্ধতার সৃষ্টি। প্রতিদিন বৃষ্টি হলেই বাড়ছে জলাবদ্ধতা।

পানিতে তলিয়ে গেছে অনেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। বাদ পড়েনি মসজিদ মাদ্রাসাও। এক কথায় ডিএনডিতে এখন বিরাজ করছে এক অচলাবস্থা। সেখানে রয়েছে তীব্র বিশুদ্ধ পানির সংকট।

ফতুল্লার তল্লা এলাকার মো. আব্দুল গফুর জানান, ঈদের আগেই বৃষ্টিতে আমাদের এলাকাতে জলাবদ্ধতা ছিল। ঈদের সময়ে পানি কিছুটা কমলেও গত কয়েকদিনের বৃষ্টিতে আবারও জলাবদ্ধতা বেড়েছে। আমাদের রান্নাঘরের গ্যাসের চুলা পানিতে তলিয়ে গেছে। রয়েছে বিশুদ্ধ পানির সংকট।

ফতুল্লার গাবতলা এলাকার শাহরাজ হোসেন জানান, ঘরের ভেতরে মাচা বেধে থাকতে হচ্ছে। ঘরে সাপ ঘুর ঘুর করে। ছেলে মেয়েরা খুব ভয়ে থাকে। বাথরুম তলিয়ে যাওয়ায় খুব কষ্ট করতে হচ্ছে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বৃষ্টিতে ৩২ দশমিক ৮ কিলোমিটার ডিএনডি বাধের ভেতর ৫৬ বর্গ কিলোমিটার বিভিন্ন এলাকা বিশেষ করে ফতুুল্লার রামারবাগ, সস্তাপুর, গাবতলা, কায়েমপুর, চাঁদমারী, ইসলাম বাগ, শহীদ নগর, মাসদাইর, ইসদাইর, গাবতলী, এনায়েত নগর, তল্লা, সবুজবাগ, কুতুবপুর, পাগলা, দেলপাড়া, আলীগঞ্জ, দাপা, পিলকুনি, ভূইগড়, রঘুনাথপুর, কুতুবআইল, নয়াআটি, লামাপাড়া, সিদ্ধিরগঞ্জের পাঠানটুলি, হাজীগঞ্জ, গোপটা, গোদনাইল, ধনকুন্ডা, জালকুড়ির নি¤œ এলাকাতে দেখা দিয়েছে জলাবদ্ধতা।

সরজমিনে ডিএনডি অভ্যন্তরের সদর উপজেলার ফতুল্লার ইসদাইর, গাবতলী, কাপুড়াপট্টি, টাগারপাড়, লালপুর ও সস্তাপুর এলাকা ঘুরে দেখা যায়, নিচু এলাকার একতলা কাঁচা, পাকা, ও বেড়ার বাড়িগুলোর মেঝে পানিতে তলিয়ে গেছে। খাটের নিচে ইট দিয়ে খাট উচু করার কাজ করছে। রাতভর চালিয়েছে সেচ।

স্থানীয়রা অভিযোগ করে বলেন, ডিএনডির পানি নিষ্কাশনে যে খাল রয়েছে তা বেদখল হয়ে আছে। বিভিন্ন স্থানে খালের উপর মাচা দিয়ে ও বালু ভরাট করে আধা পাকা দোকান ঘর নির্মাণ করা হয়েছে। অনেকে বেআইনীভাবে খালের উপর কৃত্রিম কালভার্ট তৈরী করে খালের প্রশস্ত বাধা সৃষ্টি করেছে। ফতুল্লার বিভিন্ন অঞ্চলে শিল্প প্রতিষ্ঠান খালের জায়গা দখল করে রেখেছে। এ কারণে খাল এখন সরু নালীতে পরিনত হয়েছে। জলাবদ্ধতার পানি সরু খাল দিয়ে দ্রুত গতিতে নিষ্কাশিত হতে পারছে না।


ডিএনডির জলাবদ্ধতা স্থায়ীভাবে নিরসন ও পানি নিষ্কাশনে একনেকের সভায় প্রায় ৫৫৮ কোটি টাকা ব্যয়ে একটি প্রকল্প পাস হলেও বাস্তবে এর প্রতিফলন মেলেনি। ডিএনডির পানি নিষ্কাশন প্রকল্পের পরিচালক আব্দুল আউয়াল মিয়া বলেন, দ্রুত গতিতে প্রকল্পের কাজ এগিয়ে চলছে। কাজের ডিজাইন প্রায় শেষ, চলতি বর্ষা মৌসুম শেষ হলেই আগামী নভেম্বর মাসে মাঠপর্যায়ে কাজ শুরু হবে। সেনাবাহিনী কাজটি বাস্তবায়ন করবে।

নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
Shirt Piece

ফিচার -এর সর্বশেষ