৪ অগ্রাহায়ণ ১৪২৪, রবিবার ১৯ নভেম্বর ২০১৭ , ৩:১৮ পূর্বাহ্ণ

নারায়ণগঞ্জে বেপরোয়া বালু সন্ত্রাসীরা


স্পেশাল করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ

প্রকাশিত : ০৬:৫৫ পিএম, ৯ সেপ্টেম্বর ২০১৭ শনিবার | আপডেট: ০৭:৫৬ পিএম, ৯ সেপ্টেম্বর ২০১৭ শনিবার


নারায়ণগঞ্জে বেপরোয়া বালু সন্ত্রাসীরা

নারায়ণগঞ্জের মেঘনা নদীতে বালু সন্ত্রাসীদের প্রতিনিয়ত থাবায় ক্ষত বিক্ষত হচ্ছে তিনটি উপজেলার লাখো বাসিন্দা। মেঘনা নদীর তীরবর্তী ফসলী জমি ও বসতবাড়ির কাছ থেকে অবৈধভাবে ড্রেজারের মাধ্যমে জমির মাটি কেটে নেয়ায় হুমকীর মুখে রয়েছে তিনটি উপজেলার অসংখ্য গ্রাম। আড়াইহাজারের কালাপাহাড়িয়া এলাকায় অবৈধ বালু উত্তোলনের আধিপত্য নিয়ে প্রতিনিয়ত ঘটে চলেছে সংঘর্ষের ঘটনা। গেল কয়েক বছরে বেশ কিছু প্রাণহানির ঘটনাও ঘটেছে।

সর্বশেষ গত ১ সেপ্টেম্বর আড়াইহাজারের কালাপাহাড়িয়া এলাকায় অবৈধবালু উত্তোলনের আধিপত্য নিয়ে বিরোধের জের ধরে দু’পক্ষের সংঘর্ষে ইউপি চেয়ারম্যান স্বপন বাহিনীর হাতে ডিএমপির কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের পুলিশ কনস্টেবল রুবেল মাহমুদ সুমন (৩০) নিহত হয়েছে। এর আগেও বালু সন্ত্রাসীদের হাতে পুলিশের এসআই নাছিরসহ বেশ কয়েকজন নিহত হয়েছে। প্রাকৃতিক নৈসর্গের অপরূপ লীলাভূমি সোনারগাঁ উপজেলার নুনেরটেক ও মায়াদ্বীপ রয়েছে হুমকীর মুখে। অবৈধ বালু উত্তোলন বন্ধ করে নিরাপত্তাহীন চরাঞ্চলকে নিরাপত্তাবলয়ে আনতে প্রধানমন্ত্রীর কঠোর নির্দেশ থাকলে সে নির্দেশনাকে বৃদ্ধাঙ্গুলী দেখিয়ে ইজারা ছাড়াই অবৈধভাবে জমির মাটি কেটে প্রতিদিন হাতিয়ে নিচ্ছে লাখ লাখ টাকা। বালু সন্ত্রাসীদের বাধা দিলেই চালানো হচ্ছে গুলি। ধারালো অস্ত্র ও লাঠিসোটা নিয়ে হামলা চালানো হচ্ছে নিরীহ গ্রামবাসীর উপরে।

জানা গেছে, সর্বশেষ গত ১ সেপ্টেম্বর নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার উপজেলার কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়নে মেঘনা নদীতে অবৈধ বালু উত্তোলনের আধিপত্য নিয়ে বিরোধের জের ধরে দু’পক্ষের সংঘর্ষে ডিএমপির কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের পুলিশ কনস্টেবল রুবেল মাহমুদ সুমন (৩০) নিহত হয়। ওই ঘটনায় নিহতের বড় ভাই মোঃ কামাল হোসেন বাদী হয়ে কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও আওয়ামীলীগ নেতা সাইফুল ইসলাম স্বপনকে প্রধান আসামীসহ ৩২ জনের নাম উল্লেখ ও অজ্ঞাত ২০/২৫ জনকে আসামী করে হত্যা ও বিস্ফোরক আইনে মামলাটি দায়ের করেন। নিহত কনস্টেবল সুমন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি রূপ মিয়া মেম্বারের পুত্র।

এর আগে গত ১ মে আড়াইহাজারের মেঘনা নদীতে অবৈধ বালু উত্তোলনে বাধা দেয়ায় গ্রামবাসীর ওপর গুলিবর্ষণ ও ককটেল হামলা চালিয়েছে বালু সন্ত্রাসীরা। এতে গুলিবিদ্ধ হয়েছেন ৫ জন। আহত হয়েছে অন্তত ১৫ জন।

৩০ এপ্রিল কালাপাহাড়িয়ায় বালু সন্ত্রাসীদের দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে গোলাগুলির ঘটনা ঘটে। এছাড়া গেল বছরের ২৭ জুন কালাপাহাড়িয়ায় মেঘনা নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের সংঘর্ষে চারজন গুলিবিদ্ধসহ অন্তত ২৫ জন আহত হয়।

২০১৫ সালের ১৩ আগষ্ট নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারের খাগকান্দা ইউনিয়নের কান্দাপাড়া গ্রামে একটি ড্রেজারে আগুন দিয়ে ভাঙচুর করেছে গ্রামবাসী। ওই সময়ে ড্রেজারের লোকজনদের সঙ্গে গ্রামবাসীর ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ায় আজগর আলী, জামাল, মাইনউদ্দিন, শাহপরান, রাসেল সহ অন্তত ১০ জন আহত হয়।

এর আগে ওই বছরের ১৪ এপ্রিল আড়াইহাজার উপজেলায় মেঘনায় অবৈধ বালু উত্তোলনের আধিপত্যকে কেন্দ্র করে স্থানীয় আওয়ামীলীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষে আমান উল্লাহ আমান (১৭) নামে এক যুবক নিহত হয়। কালাপাহাড়িয়ায় অবৈধ বালু উত্তোলনের আধিপত্য নিয়ে ইউপি চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম স্বপনের সঙ্গে কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ফায়জুল হক ডালিমের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরেই দ্বন্দ্ব বিরাজ করছে। তাদের দ্বন্দ্বের জের ধরে প্রায়ই হতাহতের ঘটনা ঘটছে। ২০১১ সালের ১৭ জুন কালাপাহাড়িয়ার কদমীর চর এলাকায় আসামী ধরতে গিয়ে বালু সন্ত্রাসীদের হাতে পুলিশের এসআই নাসির সিরাজী নিহত হয়।

এলাকাবাসীরা জানিয়েছে, জেলা প্রশাসকের পক্ষ থেকে বালু উত্তোলনে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হলেও, স্থানীয় প্রশাসনের নাকের ডগায় স্থানীয় আওয়ামীলীগের কয়েকটি সংঘবদ্ধ চক্র অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করছে।

নদীপাড়ের ফসলি জমি, পরিবেশ ও নদীর গতিপথ নষ্ট করাসহ বিভিন্ন অভিযোগ পর্যালোচনা করে ডেঙ্গগুরকান্দি, কমলাপুর ও শম্ভুপুরা বালুমহালের ইজারা বন্ধ করে দেয়া হয়।

নারায়ণগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) এর কার্যালয়ে ফারাহ ট্রেডার্স ও আবান ট্রেডার্স নামে দুইটি প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে ইজারার জন্য আবেদন করা হয়।

আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি হওয়ার আশঙ্কায় বালুমহালের ইজারা বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেয় সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। কিন্তু থেমে নেই বালু উত্তোলন। নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে বালু উত্তোলনের ফলে কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়নের কদমীচর, পূর্বকান্দি, বদলপুর, মধ্যারচর, বিবিরকান্দি ও খাগকান্দা ইউনিয়নের খাগকান্দা, খাগকান্দা দক্ষিণ নয়াপাড়া, ডেঙ্গগুরকান্দি, তাঁতুয়াকান্দা, ইসলামপুর, দয়াকান্দা এলাকার বাড়িঘর হুমকির মুখে পড়েছে। পাশপাশি পরিবেশের ভারসম্যেও বিরূপ প্রভাব পড়ছে। স্থানীয় প্রশাসনকে বারবার অবহিত করেও কোনো কাজ হচ্ছে না।

আড়াইহাজারের পাশাপাশি অবৈধ বালু উত্তোলনের কারণে সোনারগাঁ উপজেলা ও হোমনা উপজেলারও অনেক গ্রাম হুমকীর কবলে পড়েছে। গেল বছরের ১ আগষ্ট হোমনা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) কাছে আড়াইহাজার উপজেলার কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম স্বপনের নেতৃত্বে সশস্ত্র পাহাড়ায় বালু উত্তোলন করা হচ্ছে এমন লিখিত অভিযোগ দেন হোমনা উপজেলার বাসিন্দারা। ওই সময় তারা লটিয়া বাজারে বিক্ষোভও করেন।

এছাড়া চলতি বছরের ১৩ জুন সোনারগাঁ উপজেলার মেঘনা নদীতে অবৈধ ভাবে বালু উত্তোলনকে কেন্দ্র করে গ্রামবাসী ও বালু সন্ত্রাসীদের মধ্যে সংঘর্ষে টেঁটাবিদ্ধসহ অন্তত ১৫ জন আহত হয়েছে। মেঘনা নদীর তীরের ফসলী জমির মাটি কেটে নেয়া ও বালু সন্ত্রাসীদের অব্যাহত হামলার প্রতিবাদে একাধিকবার ঝাড়– মিছিল ও মানববন্ধন করে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলার ১০টি গ্রামের এলাকাবাসী। তাদের অভিযোগ দীর্ঘদিন ধরে মেঘনা নদীর তীরবর্তী শম্ভুপুরা, দড়িগাঁও ফতেপুর, ফরদী, এলাহীনগর, গোবিন্দপুর, নয়াগাঁও, গজারিয়ারপাড় সহ ১০ গ্রামের কৃষকদের কয়েক শত বিঘা ইরি, বোরো ধানের ফসলী জমি এবং কয়েকটি স্থানের তিন ফসলী জমি (যেসব স্থানে রবি শস্য হয়) মাটি কেটে নিয়ে যাচ্ছে। প্রতিদিনই ২০-২৫টি ড্রেজার মেঘনা নদীতে অবস্থান করে থাকে।

স্থানীয় আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাদের নেতৃত্বেই চলছে বালু সন্ত্রাসীদের কার্যক্রম। প্রায়ই ঘটছে সংঘর্ষ ও হামলার ঘটনা। অবৈধ বালু উত্তোলন ও ড্রেজার দিয়ে নদী তীর সংলগ্ন গ্রামের মাটি কেটে নেয়ায় নদীগর্ভে বিলীন হচ্ছে অসংখ্য গ্রাম। এ বিষয়ে প্রশাসনকে একাধিকবার অভিযোগ জানানোর পরেও কোন কাজ হচ্ছেনা।

নারায়ণগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) মতিয়ার রহমান জানান, বালু সন্ত্রাসীদের গ্রেফতারে আমাদের অভিযান অব্যাহত রয়েছে। সন্ত্রাসীরা যতই ক্ষমতাধর হোক না কেন তাদেরকে ছাড় দেয়া হবেনা।

এ বিষয়ে জানতে নারায়ণগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) জসিমউদ্দিন হায়দারের মুঠোফোনে কল করা হলেও তিনি কল রিসিভ করেননি।

নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
Shirt Piece

ফিচার -এর সর্বশেষ