৩ অগ্রাহায়ণ ১৪২৪, শনিবার ১৮ নভেম্বর ২০১৭ , ৩:১১ পূর্বাহ্ণ

শিক্ষার্থীদের নদীর তীঁরে ঘুরাফেরা বন্ধে অভিযানে নামবে প্রশাসন


স্পেশাল করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ

প্রকাশিত : ০৮:৩৪ পিএম, ১৪ জুলাই ২০১৭ শুক্রবার


শিক্ষার্থীদের নদীর তীঁরে ঘুরাফেরা বন্ধে অভিযানে নামবে প্রশাসন

নারায়ণগঞ্জে ছাত্রীদের অনুরোধে শীতলক্ষ্যা নদীতে গোসল করতে গিয়ে এক কলেজ ছাত্রের মৃত্যুর পরে নড়েচড়ে বসতে শুরু করেছে প্রশাসন। এই ধরনের করুন পরিণত যাতে আর না হয় সেজন্য অচিরেই অভিযানে নামবে প্রশাসন। স্কুল কলেজ ফাঁকি দিয়ে শিক্ষার্থীরা যাতে আর নদীর তীরে ও যত্রতত্র ঘুরে বেড়াতে না পারে সেজন্য পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে।

জানা গেছে, নারায়ণগঞ্জের উপর দিয়ে বয়ে যাওয়া শীতলক্ষ্যা নদীর তীরে প্রতিদিনই বিভিন্ন স্কুল কলেজের শিক্ষার্থীদের স্কুল ফাঁকি দিয়ে ঘোরাফেরা করতে দেখা যায়। নারায়ণগঞ্জ শহরের সেন্ট্রাল খেয়াঘাট, ৫নং খেয়াঘাট, বরফকল খেয়াঘাট ও নবীগঞ্জ খেয়াঘাট থেকে নৌকা ভাড়া নিয়েও নদীতে ঘুরে অনেক কপোত কপোতী।

এদিকে ১৩ জুলাই বৃহস্পতিবার দুপুরে ৫নং খেয়াঘাট সংলগ্ন কুমুদিনী ওয়েলফেয়ার ট্রাস্টের সামনে শীতলক্ষ্যার তীরে ঘটে মর্মান্তিক একটি দুর্ঘটনা। যাতে কলেজ ফাঁকি দেয়া হযরত আলীর করুন মৃত্যু হয়েছে। বান্ধবীদের অনুরোধ রাখতে গিয়ে শীতলক্ষ্যা নদীতে গোসল করতে নেমেছিল নারায়ণগঞ্জ কলেজের হযরত আলীসহ ৪ সহপাঠী। বাকী ৩ জন সাতরে তীরে উঠতে পারলেও তলিয়ে যায় হযরত আলী। সে নারায়ণগঞ্জ বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের এইচএসসি ২য় বর্ষের ছাত্র। সে ফতুল্লার ইসদাইর বটতলা এলাকার চায়ের দোকানদার শুক্কুর আলীর পুত্র। পরে নদীর ওই পারে কুমুদিনী ঘাট এলাকা থেকে হজরতের লাশ উদ্ধার করে ডুবরীরা।

চা বিক্রেতা শুক্কুর আলীর তিন ছেলের মধ্যে হযরত ছিল সবার ছোট। বড় ছেলে মারা গেছে। মেজ ছেলে গার্মেন্টে চাকুরী করে। ছোট ছেলে হযরত শিক্ষিত হয়ে বড় চাকরী করে সংসারের হাল ধরবে এমন স্বপ্ন দেখতেন শুক্কুর আলী।  কিন্তু তার সব স্বপ্ন শীতলক্ষায় ডুবে গেছে।

এদিকে হযরতের মৃত্যুর পরে নড়েচড়ে বসেছে প্রশাসন। এ প্রসঙ্গে বিআইডব্লিউটিএ নারায়ণগঞ্জ নদী বন্দরের যুগ্ম পরিচালক একেএম আরিফউদ্দিন বলেন, কক্সবাজার, কুয়াকাটা সৈকতসহ সমুদ্র নদী পুকুরে অসচেতনতা অসাবধানতায় আবেগে উচ্ছাসে প্রায়ই এমন নির্মম মৃত্যুর শিকার হচ্ছে পরিবারের আদরের ভবিষৎ স্বপ্নের মেধাবী সন্তানরা। বিষয়টি নিয়ে পারিবারিক পর্যায়সহ সংশ্লিষ্টদের সচেতন কার্যকরী ব্যবস্থা নেয়া জরুরী। শীতলক্ষ্যা নদীতেও ঘটছে এমন দুর্ঘটনা। স্কুল কলেজ ফাঁকি দিয়ে শিক্ষার্থীরা ফ্রেন্ড নিয়ে শীতলক্ষ্যার পারে আড্ডা দিচ্ছে, সাঁতার না জেনেও নদীতে নামছে, ফ্রেন্ডসহ ছৈ-সম্বলিত ছোট্ট নৌকায় বন্দর এলাকায় বড় বড় জাহাজ চলাচল এলাকায় নদীতে ঝুঁকি নিয়ে অসচেতনভাবে ঘুরাঘুরি করছে। বিষয়টি নিয়ে বৃহস্পতিবার জেলা প্রশাসক মহোদয়ের সাথে কথা বলেছি। তিনি বিষয়টি নিয়ে উদ্বেক প্রকাশ করে মাঝে মধ্যে নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট দিয়ে ভ্রাম্যমান আদলত পরিচালনা করার কথা জানিয়েছেন। তবে সবার আগে চাই পারিবারিক ও ব্যাক্তিগত উপলব্ধি ও সচেতনতা।

নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
Shirt Piece

মহানগর -এর সর্বশেষ