৭ আশ্বিন ১৪২৪, শুক্রবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৭ , ১২:২৪ অপরাহ্ণ

মেঘনায় অবৈধ বালু উত্তোলনে বাধা দেওয়ায় কুপিয়ে জখম


সোনারগাঁও করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ

প্রকাশিত : ০৮:৪১ পিএম, ২২ আগস্ট ২০১৭ মঙ্গলবার


মেঘনায় অবৈধ বালু উত্তোলনে বাধা দেওয়ায় কুপিয়ে জখম

সোনারগাঁও উপজেলার বৈদ্যেরবাজার খামারগাঁও এলাকায় মেঘনা নদীতে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনে বাঁধা দেওয়ায় এক মাছ ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে জখম করেছে বালু উত্তোলনকারীরা। ২২ আগস্ট মঙ্গলবার দুপুরে মাছের ঝোপের পাশ থেকে অবৈধ বালু উত্তোলনে বাধা দেওয়ায় কুপিয়ে আহত করা হয়। আহত ওই ব্যবসায়ীকে উদ্ধার করে সোনারগাঁও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় বিকেলে সোনারগাঁও থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, উপজেলার বৈদ্যেরবাজার ইউনিয়নের খামারগাঁও গ্রামের বাসিন্দা আমির হোসেনের ছেলে মাছ ব্যবসায়ী মোঃ সজল মিয়া তার বাড়ির পাশের মেঘনা নদীতে মাছ ধরার জন্য প্রায় ২০ লাখ টাকা ব্যয়ে একটি ঝোঁপ নির্মান করে। শীত মৌসুমে ঝোঁপ থেকে মাছ ধরার কথা রয়েছে।

মাছ ব্যবসায়ী সজল মিয়ার অভিযোগ, খামারগাঁও গ্রামের মফিজুল ইসলাম ও গোলজার মিয়ার নেতৃত্বে মঙ্গলবার দুপুরে ১০-১২ জনের একটি দল মেঘনা নদীর খামারগাঁও এলাকা থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করে আসছিল।

এক পর্যায়ে বালু উত্তোলনকারীরা তার ঝোপের কাছ থেকে বালু উত্তোলন শুরু করে। ফলে ঝোপটির অধিকাংশ ভেঙে যায়। এসময় মাছ ব্যবসায়ী সজল মিয়া বালু উত্তোলনে বাধা দিতে গেলে তাকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে আহত করে। পরে এলাকাবাসী মুমূর্ষ অবস্থায় মাছ ব্যবসায়ী সজল মিয়াকে উদ্ধার করে সোনারগাঁ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে ভর্তি করে। এ ঘটনায় আহত সজল মিয়ার চাচা আক্তার হোসেন বাদী হয়ে বিকেলে সোনারগাঁ থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

সোনারগাঁও থানার ওসি মোরশেদ আলম পিপিএম জানান, মাছ ব্যবসায়ীকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে আহত করার ঘটনায় থানায় একটি অভিযোগ গ্রহণ করা হয়েছে। অভিযোগটি তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
Shirt Piece

শহরের বাইরে -এর সর্বশেষ