৭ আশ্বিন ১৪২৪, শুক্রবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৭ , ৭:৩৩ অপরাহ্ণ

যুব মহিলা লীগে লংকাকাণ্ড : ১মাসের মাথায় কমিটি বাতিল!


স্পেশাল করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ

প্রকাশিত : ০৭:৪৬ পিএম, ২ জুলাই ২০১৭ রবিবার | আপডেট: ০৮:৪২ পিএম, ৪ জুলাই ২০১৭ মঙ্গলবার


বায়ে সাদিয়া আফরিন ডানে সুইটি ইয়াসমিন

বায়ে সাদিয়া আফরিন ডানে সুইটি ইয়াসমিন

নারায়ণগঞ্জ আওয়ামী যুব মহিলা লীগের মধ্যে লঙ্কাকান্ড ঘটেছে। আর কান্ড ঘটিয়েছেন বাংলাদেশ আওয়ামী যুব মহিলা লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি নাজমা আক্তার ও সাধারণ সম্পাদিকা অধ্যাপিকা অপু উকিল। এক মাস আগে নারায়ণগঞ্জ জেলা ও মহানগর কমিটির অনুমোদন দেন তারা। কিন্তু সেই কমিটি বাতিল ঘোষণা না করেই আবারো একই স্থানে জেলা ও মহানগরে নতুন কমিটির অনুমোদন দিয়েছেন। এখানে এক পক্ষ দাবি করছেন আগের কমিটি বাতিল। অপরপক্ষ দাবি করছেন কেন্দ্র থেকে কোন নোটিশ দেয়া হয়নি। তাই আগের কমিটিই বহাল রয়েছে। এ নিয়ে জেলা ও মহানগর এলাকায় যুব মহিলা লীগ নেত্রীদের মধ্যে বিভেদ শুরু হয়ে গেল।

জানা গেছে, গত ১৭ মে নাজমা আক্তার ও ২৮ মে অধ্যাপিকা অপু উকিল স্বাক্ষরিত নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী যুব মহিলা লীগের কমিটির অনুমোদন দেন। ৫১ সদস্য বিশিষ্ট কমিটিতে ইয়াসমিন চৌধুরী লিন্ডাকে আহ্বায়ক এবং সৈয়দা ফেরদৌসি আলম নীলা, সাবিরা সুলতানা নীলা, নিলুফার ইয়াসমিন, ফারিয়া আক্তার হেলেনা ও হাসিনা বেগমকে যুগ্ম আহ্বায়ক করা হয়। সেই সঙ্গে ৩০ মে নুরুন্নাহার সন্ধাকে আহ্বায়ক করে এবং সালমা আক্তার শারমীন আক্তার ডলি, মায়ানূূর মায়া, চায়না আক্তার ও রুম্পা আক্তারকে যুগ্ম আহ্বায়ক করে ৪৯ সদস্য বিশিষ্ট কমিটির অনুমোদন দেন নাজমা আক্তার ও অপু উকিল। নির্দেশনা ছিল এ কমিটি প্রতিটি ইউনিট কমিটি গঠন করে পূর্নাঙ্গ কমিটি গঠন করবে। কিন্তু এ কমিটি বাতিল ঘোষণা বা কোন ধরনের পরবর্তীতে নির্দেশনা দেয়া হয়নি।

এদিকে গত ৩০ মে আরেকটি করে জেলা ও মহানগর আওয়ামী যুব মহিলা লীগের কমিটি ঘোষণা করে দেন নাজমা আক্তার ও অপু উকিল। জানাগেছে, এতে আহ্বায়ক করা হয়েছে জেলা পরিষদের সদস্য সাদিয়া আফরিন ও যুগ্ম আহ্বায়ক করা হয়েছে শারমিন আক্তার মেঘলা ও আসমা আক্তারকে। মহানগর কমিটিতে আহ্বায়ক করা হয়েছে অ্যাডভোকেট সুইটি ইয়াসমিন ও যুগ্ম আহ্বায়ক মুনিরা সুলতানাকে। এছাড়াও বেশকজন সদস্য রয়েছে।
 
অন্যদিকে এ বিষয়ে জেলা যুব মহিলা লীগের আহ্বায়ক ইয়াসমিন চৌধুরী লিন্ডার সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ‘আমি ফেসবুকে দেখেছি নারায়ণগঞ্জ যুুব মহিলা লীগের কমিটি করা হয়েছে। এ বিষয়ে আমি নাজমা আপার সাথে কথা বলেছি, নাজমা আপা জানালেন এমপি শামীম ওসমান এ কমিটি করার জন্য বলায় এ কমিটি দিয়েছেন। কিন্তু কেন্দ্র থেকে আমাদের কোন নোটিশ দেয়া হয়নি। আমাদের কমিটিতে সুুপারিশ করেছিলেন জেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি আবদুল হাই। শামীম ওসমানের মর্জিমত শামীম ওসমানের মনোনীতদের দিয়ে তারা আবার এ কমিটি দিল।’

এছাড়াও জানাগেছে, মহানগর যুব মহিলা লীগের কমিটি গঠনের বিষয়ে সুপারিশ ছিল মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি আনোয়ার হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট খোকন সাহার। কিন্তু এ কমিটিতেও ধুপে টিকেনি। শামীম ওসমানের পছন্দের লোকজনদের দিয়েই করেছেন বলেও মিডিয়াতে জানিয়েছেন নাজমা আক্তার ও অপু উকিল। তবে এ কমিটি নিয়ে শামীম ওসমানের সঙ্গে আরো দূরুত্ব সৃষ্টি হলো জেলা আওয়ামীলীগ মহানগর আওয়ামীলীগের নেতাদের সঙ্গে। যুব মহিলা লীগের নেত্রীরাও ক্ষুব্দ হলো তার প্রতি। অতীতে নারায়ণগঞ্জে সংগঠনটি বেশ সক্রিয় থাকায় কর্মীর সংখ্যাও বেশ।

নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
Shirt Piece

রাজনীতি -এর সর্বশেষ