৪ অগ্রাহায়ণ ১৪২৪, রবিবার ১৯ নভেম্বর ২০১৭ , ৩:০৭ পূর্বাহ্ণ

পুলিশ কনস্টেবল হত্যা : চেয়ারম্যান স্বপন দলবল নিয়ে আত্মগোপনে


সিটি করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ

প্রকাশিত : ০৬:২৩ পিএম, ৫ সেপ্টেম্বর ২০১৭ মঙ্গলবার | আপডেট: ০৮:৩৩ পিএম, ৭ সেপ্টেম্বর ২০১৭ বৃহস্পতিবার


বায়ে নিহত কনস্টেবল রুবেল।  ডানে মামলার কয়েকজন আসামী

বায়ে নিহত কনস্টেবল রুবেল। ডানে মামলার কয়েকজন আসামী

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে পুলিশ কনস্টেবল রুবেল হত্যা মামলার প্রধান আসামী কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম স্বপন দলবল নিয়ে আত্মগোপন করেছে। কেউ বলছে পার্শ¦বর্তী দেশ ভারতে পালিয়ে গেছে আবার কেউ বলছে ভারত হয়ে মালয়েশিয়া চলে গেছে। তবে পুলিশ হত্যাকান্ডের ৪দিনেও এজাহারনামীয় ৩২ আসামীর মধ্যে একজনকেও গ্রেফতার করতে পারেনি। এতে হতাশায় ও আতংকে দিন কাটাচ্ছে নিহতের পরিবার।

জানা যায়, মামলায় চেয়ারম্যান স্বপন ছাড়াও যাদেরকে আসামী করা হয়েছে তারা হলো- ফরিদ, সোহেল, আনোয়ার হোসেন, লিটন, তারা মিয়া, লাল মিয়া, মহিউদ্দিন, ওবায়দুল ইসলাম বাদল, আব্বাস আলী, আব্দুর রাজ্জাক, কবির হোসেন, মজিবুর রহমান, সিরাজ মিয়া, ইয়াছিন, সুজন, রফিক মিয়া তার ভাই শহিদুল্লাহ, রফিক আলী, কাশেম, কালাম, ইউসুফ, শাহীন, ইমন আলী, আবু কালাম, জিয়াউর রহমান জিয়া, মনির হোসেন, আতশ আলী, হৃদয়, জাফর আলী, পাবেল, কামাল।

মামলায় অভিযোগ করা হয়েছে, বাদী কামাল হোসেনের ছোট ভাই রুবেল মাহমুদ সুমন ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ কাউন্টার টেরোরিজম বিভাগে কনস্টেবল/২২১৪১ পদে কর্মরত ছিল। ঈদের ছুটিতে ১ সেপ্টেম্বর সকালে বাড়িতে আসে। পূর্ব শত্রুতার জের ধরে স্থানীয় চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম স্বপন তার লোকজন নিয়ে কামাল হোসেনের বাড়ি ঘেরাও করে ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়ে আতংক সৃষ্টি করে। এসময় কামালের ছোট ভাই কনস্টেবল রুবেল মাহমুদ সুমন ঘর থেকে বের হলে তার উপর হামলা চালায়। এসময় রুবেলের শ্যালক শাওন ও স্ত্রী সাথী আক্তার এগিয়ে গেলে তাদেরকেও টেটা দিয়ে গাই দিয়ে মারাত্মক জখম করে। এরপর বাড়ির অন্যান্য সদস্যরা এগিয়ে যায় তখন তাদেরকেও টেটাবিদ্ধ করে। তারপর এলোপাতারি কুপিয়ে রুবেলের মৃত্যু নিশ্চিত করে স্বপন তার বাহিনীর লোকজন নিয়ে পালিয়ে যায়।

মামলার বাদী কামাল হোসেন জানান, তার বাবা রূপ মিয়া মেম্বার কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের বর্তমান সদস্য এবং ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহসভাপতি। আওয়ামীলীগের ত্যাগী নেতা হওয়ায় তাকে বার বার নির্যাতিত হতে হয়েছে। সন্ত্রাসীরা হামলা চালিয়ে একাধিকবার তাদের বাড়ি ঘর পুড়িয়ে দিয়েছে। তার বাবা রূপ মিয়ার হাত কেটে নিয়েছে সন্ত্রাসীরা। এরপরও তার বাবাকে হত্যার চেষ্টা করে আসছে।

কামাল তার ছোট ভাই হত্যাকারীদের দ্রুত গ্রেফতার বিচার দাবী করে বলেন, স্বপন দুর্নীতি করে অবৈধ সম্পদের পাহাড় গড়েছে। সম্প্রতি নারায়ণগঞ্জ ও শেরপুর জেলায় স্বপন প্রায় অর্ধশত কোটি টাকার সম্পদ ক্রয় করেছে। স্বপনের এ সম্পদের হিসেব চাইতে দুর্নীতি দমন কমিশনের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

আড়াইহাজার থানার ওসি এমএ হক জানান, আসামীদের গ্রেফতারে নানা ভাবে চেষ্টা চলছে।

নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
Shirt Piece

রাজনীতি -এর সর্বশেষ