৮ অগ্রাহায়ণ ১৪২৪, বুধবার ২২ নভেম্বর ২০১৭ , ৩:২৫ অপরাহ্ণ

সেমাই চিনি বিতরণের নামে প্রহসণ বন্ধ করুন


শিপন ভূইয়া || মন্তব্য প্রতিবেদন

প্রকাশিত : ০৬:৩১ পিএম, ১৯ জুন ২০১৭ সোমবার | আপডেট: ০৬:৩৯ পিএম, ১৯ জুন ২০১৭ সোমবার


সেমাই চিনি বিতরণের নামে প্রহসণ বন্ধ করুন

ঈদ মানে আনন্দ ঈদ মানে খুশি। সবার জন্য ঈদ খুশি বয়ে আনতে পারে না। কোন কোন পরিবারের জন্য ঈদ দুঃখের কারণ হয়ে দাঁড়ায়। যে সকল পরিবার নূন্যতম খাবারটুকু যোগাড় করতে হিমশিম খায় তাদের আবার ঈদের খুশি কি? বৃদ্ধ মা বাবার ওষুধ সহ পরিবারের ভরণপোষন করতে যেখানে নিয়মিত টানাপোড়ায় চলতে হয় সেখানে ঈদের আবার এক্সটা বাজেট  কি ?
 
সমাজে আরেক শ্রেণীর মানুষ আছে যাদের ঈদের অনেক বাজেট। হাজার হাজার টাকার কেনাকাটা করে ও মন ভরে না। অথচ তার প্রতিবেশীর ছোট বাচ্চাটা অনেক কান্না করেও একটি নতুন জামা পায় না। মা বাবা নির্বাক হয়ে বাচ্চার দিকে অসহায় হয়ে তাকিয়ে থাকে। পৃথিবীর সমস্ত দুঃখ কষ্ট তার মনে ভীড় করে। তখন বলা যায় না ঈদ মানে খুশি।
 
ঈদের আনন্দ তখন হবে যখন আমাদের আশপোশের সবাইকে নিয়ে এক সাথে ঈদ উদযাপন করতে পারবো। কেউ কেউ তারই ধারাবাহিকতায় সমাজের আর্থিক অসহায় মানুষদের ঈদের সময় সহযোগিতা করে থাকে। এটা একটা ভালো কাজ। তবে শুধু সেমাই চিনির মধ্যে সীমাবদ্ধ নয়। সেমাই চিনি দেওয়া ভালো কাজ, তবে সেটা শুধুই লোক দেখানো হলে সেটা আর ভালো কাজ নয়।
 
সেমাই চিনি বিতরণের নামে লম্বা লাইন এ দাড় করিয়ে ডাক ঢোল পিটিয়ে সহযোগীতা করাটা কতটুকু মানবিক ? আমরা যদি সহযোগিতার হাত বাড়াতে চাই তা হলে স্লিপ বিতরণ করে দীর্ঘ লাইনে দাড়ঁ করিয়ে কেন?  আমরা কি পারি না সহযোগিতাটা তাদের নিকট পৌছাতে? নাকি সহযোগিতার নামে আনুষ্ঠানিক অমানবিক নাটক রচনা করি যে নাটকে অসহায় মানুষগুলো মঞ্চস্ত হয়। আসুন আমরা যতটুকু সহযোগিতা করি তা যেন আনুষ্ঠানিক রুপ না হয়। ঘরে ঘরে নিজ দায়িত্বে সহযোগিতার হাত পৌছে দেই। এতেই হবে সবার ঈদ আনন্দ ।

নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
Shirt Piece

মন্তব্য প্রতিবেদন -এর সর্বশেষ