৭ অগ্রাহায়ণ ১৪২৫, বুধবার ২১ নভেম্বর ২০১৮ , ১২:৩০ অপরাহ্ণ

rabbhaban

‘কাক নিজে কিন্তু অন্য কাকের মাংস খায়না’


হাবিবুর রহমান বাদল || সাবেক সভাপতি নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাব ও নারায়ণগঞ্জ নিউজ পেপার্স ওনার্স এসোসিয়েশন।

প্রকাশিত : ০৭:১৬ পিএম, ৩ এপ্রিল ২০১৮ মঙ্গলবার


‘কাক নিজে কিন্তু অন্য কাকের মাংস খায়না’

সাংবাদিকতা একটি মহান পেশা হিসেবে বিবেচিত। সংবাদপত্রকে রাষ্ট্রের ৪র্থ স্তম্ভ হিসেবে আখ্যায়িত করা হয়। সেই সাংবাদিকতা পেশার সাথে আমরা যারা জড়িত, তাদের সমাজের প্রতি দায়বদ্ধতা রয়েছে।

আমি ব্যক্তিগত ভাবে মনে করি, একজন সাংবাদিক সমাজকে অনেক কিছু দিতে পারে। আবার একজন সাংবাদিকের কারণে সমাজে অনেক অঘটন ঘটতে পারে। নিজের দায়বদ্ধতা থেকে আমার এই লেখা।

আমি মনে করি একটি সমাজকে বাসযোগ্য করে রাখা সহ সমাজিক অবক্ষয় থেকে রক্ষায় সাংবাদিক সমাজের দায়িত্ব রয়েছে। আমরা যদি সেই দায়িত্ববোধ থেকে দূরে সরে যাই কিংবা এমন কোন কর্মকান্ডে লিপ্ত হই যা সমাজ কিংবা সাধারণ মানুষের জন্য অকল্যাণকর তা কোন অবস্থাতেই গ্রহণযোগ্য নয়।

সংবাদপত্রে প্রিন্ট মিডিয়ার পাশাপাশি বর্তমানে অনলাইন মিডিয়ার গুরুত্ব বেড়েছে। তাই বলে যারা বলে প্রিন্ট মিডিয়ার যুগ শেষ হয়ে গেছে তাদের সাথে আমি একমত নই। প্রিন্ট মিডিয়া ও অনলাইন মিডিয়ার সাথে জড়িত একে অন্যের পরিপূরক। তাই উভয় মিডিয়ায় কর্মরত সংবাদকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ ভাবে কাজ করার বিকল্প নেই। বর্তমানে সকল পেশায় যেমন ধ্বস নেমেছে তেমনই সাংবাদিকতায় ভাল মন্দ মিলিয়ে আমরা কাজ করছি। এক্ষেত্রে কেউ কারো বিরুদ্ধে ব্যক্তিগত ক্ষোভ প্রকাশের উদ্দেশ্যে রিপোর্ট করুক এমন কাজকে আমি অতিতে যেমন সমর্থন করিনি বর্তমানেও সমর্থন করি না।

ভাল-মন্দ মিলিয়েই একজন মানুষ। আমি নিজেকে ফেরেস্তা দাবি করছি না। আমারও যে ভুলক্রটি নেই তা বলছি না। মানুষ হিসাবে আমিও ভুল ক্রটির ঊর্ধ্বে না। তাই বলে আমাদের পেশাদার সংবাদ কর্মীদের মধ্যে ঐক্য নষ্ট হতে পারে এমন কোন কর্মকান্ডকে আমি সমর্থন করি না।

পেশাদার সাংবাদিকদের স্বার্থ রক্ষায় আমি পেশার শুরু থেকেই দায়িত্ব পালনের চেষ্টা করছি। একাধিক বার নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক থাকাবস্থায় আমি পেশাদার সাংবাদিকদের জন্য কিংবা নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের জন্য কতটুকু করতে পেরেছি তা আগামী প্রজন্মই বিচার করবে।

আমি প্রেসক্লাবে পেশাদার সাংবাদিকদের সদস্যপদ দেওয়ার জন্য একাধিকবার আমার সাধ্যমত চেষ্টা চালিয়েছি। প্রেসক্লাবের উন্নয়নে একই ভাবে আমি কাজ করেছি। কতটুকু সফল হয়েছি তা আমার পক্ষে বলা সম্ভব নয়। তবে আমি মনে করি পেশাদার সাংবাদিকদের মধ্যে ঐক্য হওয়া জরুরী। মত ও পথের ভিন্নতা থাকতে পারে কিন্তু পেশাগত কারণে আমরা একে অন্যের সম্পূরক বলে একজন ক্ষুদ্র সংবাদ কর্মী হিসাবে আমি বিশ্বাস করি। তাই নিজেদের মধ্যে যারা কাদা ছোড়াছুড়ির সুযোগ করে দেয় কিংবা যারা এইসব কর্মকান্ডে লিপ্ত হয় তাদের নিকট আমার বিনীত অনুরোধ দয়া করে ব্যক্তিগত কুৎসা কিংবা একজন আরেক জনের বিরুদ্ধে চরিত্র হরণের কাছ থেকে দূরে থাকুক।

আমি বিশ^াস করি এটা শুধু অন্যের জন্য নয় আমার জন্যও তা প্রযোজ্য। নারায়ণগঞ্জ নিউজ পেপার্স ওনার্স এসোসিয়েশন গঠনকালে আমি প্রথম যে, প্রস্তাবটি দিয়েছিলাম তা হলো কোন পেশাদার সাংবাদিকের বিরুদ্ধে আমরা কলম ধরবো না। আমরা অবশ্য সেই অবস্থা থেকে অনেকটাই দূরে সরে এসেছি বলে আমি মনে করি। অথচ কাক নিজে কিন্তু অন্য কাকের মাংস খায়না। সে ক্ষেত্রে আমি কিংবা আমরা কেন ব্যতিক্রম থাকবো। এই সমাজে কিছু অসাধু তথাকথিত সমাজপতি, রাজনীতিবিদ, বিভিন্ন পেশায় জড়িত নেতৃবৃন্দ আমাদের সাংবাদিকদের মধ্যে ফাটল ধরানোর জন্য একজনকে আরেক জনের পিছনে লেলিয়ে দিচ্ছে। পেশাদার সাংবাদিকতার বড়ই অভাব এখন। এই অবস্থায় স্বার্থন্বেষী মহলের চক্রান্তে আমাদের মধ্যে বিভেদ সৃষ্টির যে পায়তারা চলছে সে ফাঁদে আমিসহ আমারা অনেকেই যে পা দিয়েছি তা অস্বীকার করার উপায় নেই। অপেশাদারদের দাপটে পেশাদার সাংবাদিকরা কোনঠাসা।

সর্বত্র সাংবাদিকদের একাধিক সংগঠন গড়ে উঠছে। আর এই সুযোগে ইন্ধন যোগাচ্ছে কতিপয় স্বার্থান্বেষী ব্যক্তি। তাই প্রিন্ট ও অনলাইন মিডিয়ার কর্মরত পেশাদার সাংবাদিকদের আমি বিনীতভাবে অনুরোধ করছি দয়া করে নিজেদের মধ্যে কাদা ছোড়াছুড়ি না করে ঐক্য গড়ার একটি প্রক্রিয়া বের করুন। আমি নিজের সাফাই কিংবা নিজেকে ধোয়া তুলশীপাতা প্রমাণ করতে চাচ্ছি না। পেশাদার সাংবাদিকদের মধ্যে ঐক্য হলে তথাকথিত ভূইফোড় সাংবাদিকরা এমনইতেই সমাজ থেকে বিতারিত হবে। সুতরাং আসুন অনেক হয়েছে, আর নয়। আমরা আমাদের ন্যয্য অধিকার প্রতিষ্ঠায় একে অন্যের কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে সমাজকে কিছু দেয়ার চেষ্টা করি। নিজেদের বিভাজনের কারণে শুধু পেশাদার সাংবাদিকরাই নয়, বরং সমাজও ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে এ বিষয়টি সকলকে ভাবনার জন্য অনুরোধ জানাচ্ছি।

নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
Shirt Piece

মন্তব্য প্রতিবেদন -এর সর্বশেষ