বিএনপির কমিটি দেখে আমার লজ্জা হয়

জামালউদ্দিন কালু (বিএনপি নেতা) || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৯:১৫ পিএম, ২ মার্চ ২০১৯ শনিবার

বিএনপির কমিটি দেখে আমার লজ্জা হয়

বেশ কিছুদিন যাবৎ ফতুল্লা থানার সাবেক সভাপতি সাহেবকে নিয়ে আলোচনার ঝড় উঠেছে। প্রায় প্রতিদিনই দেখি পত্রিকায় শিরোনাম হচ্ছে। ইতিমধ্যেই জেলা কমিটি, ফতুল্লা থানাকে নুতন করে অনুমোদন দিয়েছেন। বেশ ভাল কাজটি করেছেন! এই জন্য অনেকেই আপনাদের ধন্যবাদ জানাবো।

কিন্তু দুঃখের বিষয় আমি ও আমার মত আরো অনেকেই আছেন আপনাদের ধন্যবাদ দিতে তো পারলামই না- বরং লজ্জায় মাথা নত হতে হচ্ছে। বিবেককে বুঝাতে পারছি না কেন এমন হয়। বাংলাদেশের সবচাইতে বড় রাজনৈতিক দল বিএনপি যার প্রতিষ্ঠিতা শহীদ জিয়াউর রহমান। বর্তমানে অন্যায়ভাবে কারাবরণে আছেন আমাদের প্রিয় নেত্রী। কমিটি ঘোষণার আগে একটু ভেবে দেখা উচিত ছিল কেন আমাদের প্রিয় নেতা গিয়াস সাহেবের কমিটিতে নাম নাই কেন? কি তার অপরাধ আমার এবং আমাদের অনেকেরই জানতে ইচ্ছে করছে।

আমার দীর্ঘ ৪০ বছরের রাজনীতি জীবনে ছোট পদ থেকে সর্বোচ্চ পদে থাকা অবস্থায় বহু কমিটি আমার হাতেই হয়েছে। অভিজ্ঞ রাজনীতি প্রতিভার এমন কোন নেতা বা কর্মীকে এমনভাবে অপমূল্যায়ন করতে পারি নাই। যার কারণে অনেক ক্ষেত্রেই দলের মধ্যে তেমন বিশৃঙ্খলা হতে দেখি নাই। মানুষেরই কিছু কিছু ক্ষেত্রে ভুল ত্রুটি হয়ে থাকে। তাই বলে দলের স্বার্থে এমন কিছু করা উচিত নয় যে কারণে দলের ভাবমূর্তি নষ্ট হয়।

এটা কারো ব্যক্তিগত দল নয়। এটা যেমন নেতাকর্মী দ্বারা গঠিত হয় তেমনই বৃহত্তর জনগোষ্ঠীর মতামতের উপরও বিবেচনায় আনতে হয়। বি,এন,পি একটি জনকল্যাণ মুখী দল। জনগণই এ দলের চালিকা শক্তি। আর সারা জীবনই দল ও রাজনীতি করতে হবে এমনটাও নয়। কারো কারো বয়সের কারণে আবার কারো কারো ব্যক্তি ভয়ের কারণে দল থেকে পদত্যাগ বা অবসরে যাবার বহু নজির আছে। তাই বলে উপযুক্ত নেতা কর্মীদের অপমূল্যায়ন করে ?

আর কিছু না হউক খুব ভাল একটি বাহবা পাওয়া যায় না। দল এখন শাসক গোষ্ঠীর রসাতলে বিভিন্ন ভাবে বেশ সংকটে আছে। তার মধ্যে আপনাদের (জেলা কমিটি) ইচ্ছামত কমিটি করবেন আর বাকিরা জোয়ারের পানিতে ভেসে যাবে ? এটা হতে পারে না- হতে দেওয়া যায় না। জনগণ ও দলের বহু নেতাই এটা মেনে নেবে না।

উপযুক্তকে উপযুক্ত স্থানে মর্যাদা দেয়া মানহানিকর নয় বরং যারা করবেন তাদেরও মর্যাদা বেড়ে যায়। আমি এখন শারীরিক ভাবে খুবই খারাপ অবস্থায় আছি, তারপরও যখন দেখি আমার প্রিয় দলের মধ্যে কাঁদা ছোড়াছুড়ি এর পর আর বসে থাকতে পারি না। শরীর খারাপ, হাত তো এখনো সচল। আমার প্রতিটি নেতাকর্মী ভাইদের কাছে অনুরোধ রইল সবকিছু ভুলে সবাইকে নিয়ে দল গঠন করুন। উপযুক্ত লোককে উপযুক্ত স্থান দিন।

এক শাহ আলম সাহেব গেছে শত শত শাহআলম সাহেব আসবে- এই তো রাজনীতির খেলা। আমি আবারও বলছি- আলহাজ্ব গিয়াসউদ্দিন সাহেবকে নিয়ে ভাল শক্তিশালী কমিটি করুন, এতে মঙ্গল ছাড়া অমঙ্গল হবে না। জনতার শক্তিই আমাদের প্রধান শক্তি। মহান আল্লাহ সব দেখেন এবং বুঝেন ওনার কাজ সত্যের পক্ষে, মিথ্যা ধ্বংস একদিন বি,এন,পির উপর সূর্যের আলো ছড়িয়ে পড়বে- আর সে দিন খুব দূরে নয়। জনগণের শক্তি সব সময়ই বিজয় হয়েছে। ইন্শাল্লাহ বিএনপির বিজয়ও হবে। দেশনেত্রী মুক্তি পাবে গণতন্ত্র জনতার মাঝে ছড়িয়ে পড়বে। আমার প্রায় ৪০ বছর রাজনীতি জীবনে বিভাজন পছন্দ করি নাই দলের মঙ্গলই ছিল আমার রাজনীতি। লোভ লালসা আমাকে কোনদিন স্পর্শ করতে পারে নাই।



নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও