রাষ্ট্রপক্ষ থেকে প্রত্যাহার মিন্টু, সমিতিতে বিচার নিয়ে কালক্ষেপণ

৪ ভাদ্র ১৪২৫, রবিবার ১৯ আগস্ট ২০১৮ , ১:১৬ অপরাহ্ণ

রাষ্ট্রপক্ষ থেকে প্রত্যাহার মিন্টু, সমিতিতে বিচার নিয়ে কালক্ষেপণ


স্টাফ করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ

প্রকাশিত : ০৮:৫২ পিএম, ৩ জুন ২০১৮ রবিবার | আপডেট: ০২:৫২ পিএম, ৩ জুন ২০১৮ রবিবার


রাষ্ট্রপক্ষ থেকে প্রত্যাহার মিন্টু, সমিতিতে বিচার নিয়ে কালক্ষেপণ

নারায়ণগঞ্জ আদালতের সহকারী পাবলিক প্রসিকিউটর মনিরুজ্জামান মিন্টুকে সাময়িকভাবে দায়িত্ব থেকে তাকে প্রত্যাহার করে নেয়া হলেও আইনজীবী সমিতিতে অভিযোগ দেওয়ার পরেও ব্যবস্থা নিতে কালক্ষেপণ করা হচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

লিখিত অভিযোগ থেকে জানা গেছে, একজন নারী আইনজীবীর সঙ্গে ঔদ্ধত্যপূর্ণ আচরণ করায় সাময়িকভাবে অ্যাডভোকেট মিন্টুকে প্রত্যাহার করা হয়।

আরও জানা গেছে, ওই প্রত্যাহারের পর নারায়ণগঞ্জ জেলা আইনজীবী সমিতিতেও মনিরুজ্জামান মিন্টুর বিরুদ্ধে অসদারচরণের অভিযোগ তুলে একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন ওই নারী আইনজীবী। গত ১৫ মে এ লিখিত অভিযোগটি দেয়া হলেও এখনো বিচার পায়নি নারী আইনজীবী।

তবে এ বিষয়ে জানতে চাইলে আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট মুহাম্মদ মোহসীন মিয়া জানান, অভিযোগ পাওয়ার পর সেটা আরবিটেশন কমিটির কাছে পাঠানো হয়েছে। বিষয়টি তাদের দায়িত্বে এখন।

লিখিত  অভিযোগ থেকে জানা গেছে, গত ১৯ এপ্রিল নারায়ণগঞ্জ জেলা জজ আদালতে দায়িত্বপ্রাপ্ত শিশু পিপি হিসেবে একটি শিশু মামলা রাষ্ট্রপক্ষে পরিচালনা করেন ওই নারী আইনজীবী। সোনারগাঁও থানার ওই মামলাটির ৩ মে শুনানির দিন ধার্য্য করেন আদালত। এমন অবস্থায় জৈনিক জাকির হোসেন নামে আইনজীবী দরখাস্ত দিয়ে শুনানিটি এগিয়ে ৩০ এপ্রিল নিয়ে যান। উক্ত আইনজীবীর ওকালতনামায় কোন স্বাক্ষর না করায় আসামী পক্ষের আইনজীবী রুবেল ভূইয়া সিএস আসামী পক্ষের নিয়োজিত আইনজীবী উনার ১৮ এপ্রিল জামিন শুনানি দরখাস্তে শুনানি করে জামিন নিয়ে যান।

পরবর্তীতে মনিরুজ্জামান মিন্টু উক্ত জামিননামা দাখিল করেন। যার কোন ওকালতনামায় স্বাক্ষর ছিল না এবং উক্ত আইনজীবী রুবেল ভূইয়ার ওকালকনামায় ওভার রাইটিং করে ১নং কলামে সিনিয়র অ্যাডভোকেট খোকন সাহার নাম ও ১নং কলামে কেটে ২নং এ রুবেল ভূইয়াকে ৩নং আইনজীবী হিসেবে পরে মনিরুজ্জামান মিন্টুর নাম স্বাক্ষর করেন।

এ বিষয়টি জানতে পেরে আইনজীবী রুবেল ভূইয়া ওই নারী আইনজীবীকে জানালে পরে নারী আইনজীবীকেও ডাকেন। পরদিন কোর্টের পেশকার মিন্টুকে ডেকে দরখাস্তে স্বাক্ষর করতে বলেন। কিন্তু মিন্টু স্বাক্ষর করতে অস্বীকার করলে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী হিসেবে জানতে চান কেন স্বাক্ষর করবেন না? তখন মিন্টু ঔদ্ধ্যপূর্ণ আচরণ করেন এবং গালমন্দ করার অভিযোগ তুলেন নারী আইনজীবী।

এ ঘটনায় গত ১৬ মে নারায়ণগঞ্জ আদালতের এপিপি মনিরুজ্জামান মিন্টুকে সাময়িকভাবে তার দায়িত্ব থেকে তাকে প্রত্যাহার করে নেন নারায়ণগঞ্জ আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর অ্যাডভোকেট এসএম ওয়াজেদ আলী খোকন। আগের দিন ১৫ মে নারায়ণগঞ্জ জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট হাসান ফেরদৌস জুয়েল ও সেক্রেটারি অ্যাডভোকেট মুহাম্মদ মোহসীন মিয়ার বরাবর লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন ওই নারী আইনজীবী।

নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
Shirt Piece

আইন আদালত -এর সর্বশেষ