ছুটির দিনেও আদালতপাড়ায় দিনভর ব্যস্ত সভাপতি জুয়েল

সিটি করেসপন্ডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ১২:১১ এএম, ১২ মে ২০১৯ রবিবার

ছুটির দিনেও আদালতপাড়ায় দিনভর ব্যস্ত সভাপতি জুয়েল

শনিবার ১১ মে দুপুর ২টা। নারায়ণগঞ্জ আদালতপাড়া তখন একেবারেই ফাঁকা। আইনজীবীদের টেবিলগুলোও ফাঁকা। হাতেগোনা কয়েকজন এসেছেন তাও বিশেষ মামলার কারণে। নেই কোন যানবাহনের হর্ন কিংবা লোকারণ্য। প্রচন্ড তাপদাহে যখন প্রাণ ওষ্ঠাগত তখন ঘর্মাক্ত অবস্থায় নজরে আসলো একজনকে। কেউ বা তাকে দেখেন টিভির পর্দায়। পাঞ্জাবী পরিহিত হাসান ফেরদৌস জুয়েল নাট্যঙ্গনের পরিচিত মুখ যেতন তেমনি নারায়ণগঞ্জ আদালতপাড়ায় আইনজীবীদের কা-ারী। টানা দুই বছর ধরে সভাপতি আর এর আগে ছিলেন সেক্রেটারীর চেয়ারে। তবে শনিবার তাকে দেখা গেল একটু ভিন্নভাবে।

কোন দলবল না। বরং একাই সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত প্রচন্ড গরমে তপ্ত হয়ে ছিলেন আদালতপাড়াতে। রোজার মধ্যে শনিবার ছুটির দিনে এসেছিলেন কেবলমাত্র আইনজীবী সমিতির নির্মাণাধীন ভবন পরিদর্শনে। সকাল থেকে ছিলেন ঠাঁই দাঁড়িয়ে। কখনো শ্রমিকদের সঙ্গে কথা বলেন। কখনো ঠিকাদারের সঙ্গে। বার বার এক কথা আর অনুরোধ। রোজার মধ্যেই শেষ করতে হবে পাইলিংয়ের কাজ।

চলছে আইনজীবী সমিতির বহুতল ভবনের কাজ। এটা ছিল আইনজীবীদের একটি প্রত্যাশা। সেটার প্রাপ্তি ঘটাতেই এখন ব্যস্ত জুয়েল।

কথা প্রসঙ্গেই বলে উঠলেন, ‘আইনজীবীরা প্রচুর কষ্ট করছেন। সে কারণেই আমার এ বাড়তি পরিশ্রম। শুধু তাগাদা দেওয়া আর অনুরোধ। যে কোন মূল্যে সেপ্টেম্বরের মধ্যে অন্তত দুটি ছাদ যেন দেওয়া যায়। ছাদ হলেও অন্তত সেখানে আইনজীবীরা বসতে পারবেন।’

‘আদালতপাড়ার সামনে বাশের বেড়া দিয়ে তৈরি আইনজীবীদের অস্থায়ী বসার স্থান দেখিয়ে’ জুয়েল বলেন এখানে বসে থাকাটা কত কষ্টের বুঝি। সে কারণেই আমি চাই দ্রুত সমিতির ভবন হউক। ঈদের ছুটির পর কাজের গতি বাড়বে। সে কারণেই এখন তদারকি ভালোভাবে করতেই ছুটির দিনে চলে আসি।

আদালত পাড়া সূত্র মতে, ২০১৮ সালের ৩০ জানুয়ারী আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে এমপি শামীম ওসমান তার পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী হাসান ফেরদৌস জুয়েলকে সভাপতি ও মোহসীন মিয়াকে সেক্রেটারী করেই প্যানেল গঠন করা হয়। অনেক কাঠখোড় শেষে ২০১৮-২০১৯ সালের সমিতির নির্বাচনে এ দুইজন সহ ৬ জনের জয় আসলেও সমিতিতে ১৭ পদের মধ্যে ১১টিতে জিতে যায় বিএনপি। ২০১৯-২০ নির্বাচনে আবারও বিপুল ভোটে পুরো প্যানেলের দাপুটে জয় পায় জুয়েল মোহসিন ও প্যানেল। নির্বাচন শুরুর আগ থেকেই জুয়েল মোহসিন প্যানেল সংখ্যাগরিষ্ঠ অংশ জয়লাভ করবেন এমনটা ধারণা ছিল আগে থেকেই। কিন্তু ১৭টি আসনের ভেতর ১৬টি আসনে জয় পেয়ে আওয়ামীপন্থী আইনজীবীরা অবাক হয়েছেন নিজেরাও।

জেলা আইনজীবী সমিতি ভবন নির্মাণ কাজ যখন চলছিল মন্থর গতিতে তখনই ২৬ এপ্রিল শুরু হয় জোরেসরে। এদিন থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে পাইলিংয়ের কাজ শুরু হয়েছিল। এর আগে গত কয়েক মাস ধরে চলা কাজ নিয়ে ছিল নানা কানাঘুষা।

আইনজীবীরা বলছেন, আইনজীবীদের কাজের সুবিধার্থে ডিজিটাল এই বার ভবন দ্রুততম সময়ে সম্পন্ন করা প্রয়োজন। অন্যথায় আইনজীবীদের সকল ভোগান্তির দায় ভার এই কমিটি এড়াতে পারে না। তাই আগামী নির্বাচনের পূর্বে বার ভবনে প্রবেশ করার জন্য আরও উদ্যমী হওয়া প্রয়োজন।


বিভাগ : আইন আদালত


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও