জেলে থেকেও তেল চুরির মামলায় আসামি!

সিটি করেসপন্ডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৯:২৭ পিএম, ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০ বৃহস্পতিবার

জেলে থেকেও তেল চুরির মামলায় আসামি!

নারায়ণগঞ্জের রুপগঞ্জে তেলচুরির এক মামলায় জড়িত না থাকার পরও একাধিক ব্যক্তিকে আসামি করার অভিযোগ উঠেছে রুপগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার (ওসি) বিরুদ্ধে। মামলার আসামি করা এক ব্যক্তি ৩ মাস ধরে নারায়ণগঞ্জ জেলা কারাগারে জেল খাটছেন বলে জানা গেছে তবে তাকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে এ মামলায়।

বৃহস্পতিবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) নারায়ণগঞ্জ আদালতে এ মামলায় গ্রেফতার করা শাহাদাত হোসেন (২৮) নামে এক আসামিকে ৭ দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে প্রেরণ করা হয়। শাহাদাত রুপগঞ্জের নলপাথর এলাকার নিয়াজুল সিকদারের ছেলে।

মামলার ৮ জন নামীয় ও ৩৫ জন অজ্ঞাত ব্যক্তিকে আসামি করা হয়েছে। এজাহারভুক্ত ৮ আসামি হলেন, গ্রেফতারকৃত শাহাদাত হোসেন (২৮), আব্দুল ইমাম শান্ত (৩০), মিলন (৩৮), হামিদুল্লাহ (৩৪), মাহফুজ (৩৫), শরীফ (৩৮), হোসেন (৩২), টাইগার মোমেন ওরফে টাইগার মমিন (৩৫)। এদের মধ্যে টাইগার মমিন ৩ মাস ধরে কারাগারে অন্তরীন রয়েছেন।

মামলায় পুলিশ উল্লেখ করেন, ১২ ফেব্রুয়ারি দাউদকান্দি ব্রীজের পূর্বপাশে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে ৮টি ড্রামে ৩৩০ লিটার ডিজেলসহ মিনি কভার্ডভ্যান (ঢাকা মেট্রো ম ০২ ২৬০০) আটক করা হয়। এসময় একজনকে ধরতে পারলেও বাকিরা দৌড়ে পালিয়ে যায়। এদের মধ্যে কারাগারে থাকা মমিনের নামও আসে।

মমিন সোনারগাঁ উপজেলার কাঁচপুরের বাসিন্দা। মামলার সকলের বিরুদ্ধে সিন্ডিকেট করে চোরাই তেল বিক্রির অভিযোগ তোলা হয়। আর সরাসরি ওসি নির্দেশেই এই মামলা হয়েছে বলে জানা গেছে।

রুপগঞ্জ থানার উপ পরিদর্শক (এসআই) সোহেল সিদ্দিকি জানান, এখানে ১ ও ২ নং আসামির নাম ঠিকানা সনাক্ত করা হয়েছে বাকিদের কে কোথায় আছে জেনে তদন্ত করে নাম রাখা কিংবা বাদ দেয়া হবে। তাদের নাম ঠিকানা এখনো অনিশ্চিত, আর জেলে থাকার ব্যাপারেও খোঁজ নেয়া হবে।

নারায়ণগঞ্জ জেলা সুপার সুভাষ কুমার জানান, কারাগারে কয়েকজন মমিনই রয়েছে কাল সকালে তালিকা দেখে জানানো যাবে।


বিভাগ : আইন আদালত


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও