শহরে ব্যাংকে এফডিআরের দেড় কোটি টাকা আত্মসাৎ

সিটি করেসপন্ডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৮:১০ পিএম, ২৭ ডিসেম্বর ২০১৮ বৃহস্পতিবার

শহরে ব্যাংকে এফডিআরের দেড় কোটি টাকা আত্মসাৎ

প্রস্তাবিত বিশ্ববিদ্যালয় সোর্য়াথমোর ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশের ট্রাস্ট থেকে বেআইনীভাবে ৭০ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

২৪ ডিসেম্বর সোমবার ট্রাস্টের সদস্য সচিব আলিউর রহমানের বিরুদ্ধে এ অভিযোগ এনে নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন ট্রাস্টির চেয়ারম্যান মনোয়ার হোসেন। এ বিষয়ে কোনো আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার চেষ্টা করলে তাকে হত্যার হুমকী দেয়া হয়েছে বলেও উল্লেখ করা হয়েছে মামলার এজহারে।

মামলার এজহার সূত্রে জানা যায়, এজহারকারী মনোয়ার হোসেন সহ আরও ১০ জন শিক্ষানুরাগী ২০১৩ সালের ২৯ এপ্রিল বেসরকারিভাবে মানসম্পন্ন উচ্চশিক্ষার ব্যাবস্থা ও সাধারণ শিক্ষা কার্যক্রমের উন্নয়ণ ও প্রসারের লক্ষ্যে একটি ট্রাস্ট গঠন করেন। এরপর সে বছরের ৩০ মে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন কর্তৃক প্রণীত ছকে সোর্য়াথমোর ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশের অনুমোদনের জন্য সচিব ও শিক্ষা মন্ত্রণালয় বরাবর আবেদন করেন। সে মোতাবেক ফাস্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংক নারায়ণগঞ্জ শাখার ১ কোটি ৫০ লাখ টাকার এফডিআর সহ প্রস্তাবিত বিশ্ববিদ্যালয়ের অস্থায়ী ক্যাম্পাসের কাগজপত্র জমা দেয়া হয়। তৎকালীন সময়ে এজহারকারীর ব্যাবসার কাজে দেশের বাইরে যাওয়ার প্রয়োজন হয়ে পরে। তাই ট্রাস্টের অন্যান্য সদস্যদের অনুমতিক্রমে ট্রাস্টের সদস্য সচিবকে এফডিআর করার দ্বায়িত্ব দেয়া হয়।

সেখানে আরও উল্লেখ করা হয়, সে সময় আলিউর রহমান ৫ বছর মেয়াদী একটি এফডিআর করা হয়েছে সকলকে জানালেও পরবর্তীতে ২০১৮ সালে এফডিআরের মেয়াদ শেষ হবার পর জানা যায়, উক্ত এফডিআরের বিপরীতে ঋণ গৃহীত হয়েছে তাই ঋণের টাকা সমন্বয় করার পর বাকি টাকা প্রদাণ করবে ব্যাংক কতৃপক্ষ। কিন্তু ঋণটির বিষয়ে ট্রাস্টের কেউ জানতেন না। আলিউর রহমান ট্রাস্টের বাকি সদস্যদের স্বাক্ষর জালিয়াতি করে ৭০ লক্ষ টাকার ঋনটি গ্রহণ করেন। এ ঘটনায় উক্ত ব্যাংকের নারায়ণগঞ্জ শাখার ব্যবস্থাপক জড়িত রয়েছে বলেও এজহারে উল্লেখ্য করা হয়েছে।

নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানার ওসি কামরুল ইসলাম মামলা দায়েরর সত্যতা স্বীকার করে জানান বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।


বিভাগ : অর্থনীতি


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও