বক্তাবলীতে ২৫ ইটভাটাকে সোয়া কোটি টাকা দণ্ড, একটি গুড়িয়ে

ফতুল্লা করেসপন্ডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৫:৫৯ পিএম, ১২ মার্চ ২০১৯ মঙ্গলবার

বক্তাবলীতে ২৫ ইটভাটাকে সোয়া কোটি টাকা দণ্ড, একটি গুড়িয়ে

নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার ফতুল্লায় ২৫ ইটভাটাকে ১ কোটি ২৫ লাখ টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। নিয়ম না মেনে ইটভাটা পরিচালনা করায় এ জরিমানার পাশাপাশি একটি ইটভাটার ইট ভেকু দিয়ে ভেঙ্গে গুড়িয়ে দেয়া হয়েছে। ২৫ টি ইটভাটাকে জরিমানা করে সতর্ক করে দেয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার (১২ মার্চ) সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত ফতুল্লার বক্তাবলীতে ভ্রাম্যমাণ আদালতের ওই অভিযান চলে।

অভিযান পরিচালনা করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পরিবেশ অধিদপ্তরের সদর দপ্তরের গাজী তানভীর আহমেদ, নারায়ণগঞ্জের উপ পরিচালক নয়ন মিয়া, র‌্যাব-১১ এর এএসপি মোস্তাফিজুর রহমান।

নয়ন মিয়া জানান, নিয়ম না মেনে ইটভাটা পরিচালনা করায় ২৫টি ইটভাটাকে ৫ লাখ টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে। এছাড়া আদর্শ ব্রিক নামের একটি ইটভাটার ইট পানি ও ভেকু দিয়ে ভেঙ্গে গুড়িয়ে দেয়া হয়েছে।

ইটভাটাগুলো হলো বাংলাদেশ স্টান্ডার্ড ব্রিক ম্যানুফেকচারার্স, চিশতিয়া সাবেরিয়া ব্রিক, আরবিএম এন্টারপ্রাইজ, সালাহউদ্দিন অ্যান্ড সন্স, বিসমিল্লাহ ব্রিকস, নাসিরউদ্দিন অ্যান্ড সন্স, নিউ আদর্শ ব্রিকস, সান ব্রিক, আজাদ এন্টারপ্রাইজ, এস ইউ এ ব্রিকস, নবীন ব্রিকস, জাফর ব্রিকস, মা ব্রিকস ফিন্ড, মা আবেদুন নেসা ব্রিকস, ন্যাশনাল ব্রিকস, মেসার্স সালাহউদ্দিন ব্রিকস, নিউ ব্রিক ২, নজরুল ব্রিক, আব্দুল্লাহ ব্রিক, তোহা ব্রিকস, আহম্মেদ ব্রিকস, এম এ ব্রিকস, বক্তাবলী ব্রিকস, জ্যোতি এন্টারপ্রাইজ, খাদিজা ব্রিক।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কাজী তামজীদ আহমেদ জানান, নারায়ণগঞ্জ জেলা সাড়ে ৩শ ইটভাটা রয়েছে। তার বেশির ভাগ ইটভাটাই অবৈধভাবে পরিচালিত হচ্ছে। পরিবেশ দূষণ সহ নানা ধরনের সমস্যা সৃষ্টি করছে এ ইটভাটাগুলো। পরিবেশ মন্ত্রণালয়ের নির্দেশক্রমে সারা দেশের মত ফতুল্লার বক্তাবলীতে অবৈধভাবে গড়ে উঠা ইটভাটাগুলোর উপর অভিযান পরিচালিত হয়।

তিনি আরও জানান, নিয়মতান্ত্রিক ছাড়া কোন ইটভাটা চালাতে পারবে না তা সকল মালিককে জানিয়ে দেয়া হয়েছে। ইটভাটার মালিক সমিতির সভাপতি সবার পক্ষ হতে সময় নিয়েছে সামনে থেকে নিয়মতান্ত্রিক ভাবে ইটভাটা পরিচালিত করবে। যার কারণে ২৫ টি ইটভাটাকে জরিমানা করে সতর্ক করে দেয়া হয়েছে।

নারায়ণগঞ্জ পরিবেশ অধিদপ্তরের ভারপ্রাপ্ত উপ-পরিচালক নয়ন মিয়া জানান, নারায়ণগঞ্জের সাড়ে তিনশ ইটভাটার মধ্যে মাত্র ৩০ থেকে ৩৫টি ইটভাটা নিয়ম মেনে চলছে। আর ১২৮ টি ইটভাটা আদালতে রিট করে পরিচালনা করছে। এছাড়া বাকী সব ইটভাটাই অবৈধভাবে চলছে।

তিনি বলেন, নারায়ণগঞ্জের বায়ু দুষণের মূলে রয়েছে এসব ইটভাটা। ইটভাটাগুলোতে ১২০ এফসি ফিক্সড চিমিনি ব্যবহার করার কারণে পরিবেশ দূষণ মাত্রাতিরিক্ত আকার ধারণ করেছে। যার কারনে বাতাসে কার্বন ডাই অক্সাইড, কাবর্নমনোঅক্সাইড, সালফার ডাইঅক্সাইড, এসপিএমসহ মিশে মানবদেহের মারাত্মক ক্ষতি করছে। ফলে ইটভাটাগুলোর আশপাশের সাধারণ মানুষ কিডনি ও শ্বাসকষ্ট সহ নানা ধরনের জটিল রোগে আক্রান্ত হচ্ছে। নারায়ণগঞ্জের সব ইটভাটাকেই নিয়মের আওতায় আনা হবে।


বিভাগ : অর্থনীতি


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও