ইয়ার্ন মার্চেন্টে ভোট পরিদর্শনে সেলিম ওসমান ও এসপি হারুন

স্পেশাল করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০২:৫১ পিএম, ২২ জুন ২০১৯ শনিবার

ইয়ার্ন মার্চেন্টে ভোট পরিদর্শনে সেলিম ওসমান ও এসপি হারুন

বাংলাদেশের সুতা-ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন বাংলাদেশ ইয়ার্ন মার্চেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের পরিচালনা পর্ষদের (২০১৯-২০২১) নির্বাচন ২২ জুন শনিবার অনুষ্ঠিত হয়। সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত বিরতিহীন ভাবে শহরের টানবাজার এলাকার এস এম মালেহ রোডস্থ বাংলাদেশ ইয়ার্ন মার্চেন্টস্ অ্যাসোসিয়েশন (বিওয়াইএমএ) ভবনে ভোট গ্রহণ করা হবে। এবারের নির্বাচনে সাধারণ গ্রুপে ভোটার সংখ্যা ৭৭৪ জন এবং এসোসিয়েট গ্রুপে ভোটার সংখ্যা ১৬৩ জন।

সকালে ভোট কেন্দ্র পরিদর্শনে আসেন ব্যবসায়ী নেতা এমপি সেলিম ওসমান ও পুলিশ সুপার হারুন অর রশিদ।

ইতোমধ্যে ভোট গ্রহন এলাকায় সিসি টিভি ক্যামেরা স্থাপন করা হয়েছে। ভোটারদের নিরাপত্তা সহ ভোট কেন্দ্রে শান্তিপূর্ন পরিবেশ বজায় রাখার স্বার্থে বিভিন্ন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা সকাল থেকে ভোট গণনা শেষ হওয়া পর্যন্ত ভোট কেন্দ্র এলাকায় নিরাপত্তার দায়িত্ব পালন করেন।

পরিচালনা পর্ষদের সাধারণ গ্রুপে ১২ পদের বিপরীতে পৃথক দুটি প্যানেলে মোট ২৪ জন এবং এসোসিয়েট গ্রুপে ৬ পদের বিপরীতে দুই প্যানেলে ১২ জন সহ মোট ৩৬ জন প্রার্থী নির্বাচনে প্রতিদ্ব›দ্ধীতা করছেন।

নির্বাচন বোর্ডের নির্বাচন কমিশনার মঞ্জুরুল হক,সদস্য আলহাজ¦ মোঃ রাশেদ সারোয়ার, ফারুক বিন ইউসুফ পাপ্পু এবং নির্বাচন আপিল বোর্ডের চেয়ারম্যান ডাঃ শাহ্ নেওয়াজ চৌধুরী, জি.এম ফারুক ও অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ মোহসীন মিয়া।

এম সোলায়মানের নেতৃত্বাধীন প্যানেলের ১৮ জন প্রার্থীরা হলেন এম সোলায়মান, আব্দুল মান্নান মিঞা, আব্দুল্লাহ্ আল হোসেন বাপ্পি, মোঃ হুমায়ুন কবীর, মোঃ সাইদুর রহমান মোল্লা, দেবদাস সাহা, মোঃ আজহার হোসেন, মোঃ হাবিব ইব্রাহীম, মিন্টু চন্দ্র সাহা, মোঃ সাইদুর রহমান, মোঃ মহিউদ্দিন তুরান, মোঃ আব্দুল কাদির (সাধারণ গ্রুপ)। মোঃ মাহফুজুর রহমান খান মাহফুজ, মোঃ মকবুল হোসেন, মোঃ কামরুল হাসান, মোঃ খায়রুল কবীর, অসীম কুমার সাহা, মোঃ ফয়সাল আহাম্মদ দোলন (অ্যাসোসিয়েট গ্রুপ)।

লিটন সাহার নেতৃত্বাধীন প্যানেলের ১৮ জন হলেন লিটন সাহা, অশোক মহেশ^রী, আলহাজ¦ মোঃ মোজাম্মেল হক, মোঃ সেলিম রেজা, মোঃ মজিবুর রহমান, মোঃ আমিন উদ্দিন, মোঃ সিরাজুল হক হাওলাদার, মোঃ আকবর হোসেন, সঞ্জীত রায়, তাজুল ইসলাম, মোস্তফা এমরানুল হক মুন্না, জয় কুমার সাহা (সাধারণ গ্রুপ)। এবং মোহাম্মদ মুসা, মোঃ মুকুল হোসেন মল্লিক, মজিবর রহমান, মাওলানা নাজমুল হুদা বিন মাহিদ, মোঃ মেহেদী হাসান, আফসার আহমেদ (এসোসিয়েট গ্রুপ)।

ইতোমধ্যে নির্বাচনে বর্তমান সভাপতি এম সোলায়মানকে সমর্থন দিয়েছেন ব্যবসায়ী নেতা সেলিম ওসমান।

এদিকে নাম প্রকাশ না করার শর্তে ভোটাররা জানান, নানা সময়ে ইয়ার্ন মার্চেন্টে বিভিন্ন ধরনের নেতৃত্ব এসেছিল। কেউ বা ব্যাপক চাঁদাবাজী করেছিল। কারো কাছে মূলত জিম্মী ছিল ব্যবসায়ীরা। কার্যত ‘ঠুটো জগন্নাথ’ ছিলেন অনেক সুতা ব্যবসায়ী। একজন চাঁদাবাজ নেতার দৌরাত্ম্যে অনেক ব্যবসায়ী নিঃস্ব হয়ে পড়েছিলেন। বিগত দিনে চাঁদাবাজ নেতারা অনেক সুতা ব্যবসায়ীকে জিম্মি করে পথে বসিয়েছিলেন। এর মধ্যে একজন চাঁদাবাজ নেতার পিতার বিরুদ্ধে দুর্নীতি দমন কমিশনের মামলাও হয়েছিল। সুতা ব্যবসার আড়ালে চোরাকারবারী ও মিথ্যা ঘোষণায় পণ্য আমদানীর কাজে জড়িত রয়েছেন চাঁদাবাজ ওইসকল ব্যবসায়ী নামধারী নেতারা। এছাড়া ক্ষমতার দাপটে অনেক ভুয়া ভোটারও তৈরী করিয়েছিলেন। যে কারণে এবার সুতা ব্যবসায়ীরা বিতর্কহীন নেতাদের পক্ষে রায় দেয়ার জন্য মুখিয়ে রয়েছেন।


বিভাগ : অর্থনীতি


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও