কোরবানির পশু পরিবহনে পথে পথে চাঁদা

সিটি করেসপন্ডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৯:৫৪ পিএম, ৫ আগস্ট ২০১৯ সোমবার

কোরবানির পশু পরিবহনে পথে পথে চাঁদা

নারায়ণগঞ্জে সড়ক পথে চাঁদা দিয়ে ঢুকতে হচ্ছে কোরবানির পশুবাহী ট্রাক। ঘাটে ঘাটে চলছে এই চাঁদাবাজি। দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে পথে পথে কয়েকটি স্থানে সংঘবদ্ধ চক্র এই চাঁদা আদায় করলেও শুধুমাত্র নারায়ণগঞ্জে প্রবেশ মুখে ২টি স্থানে চাঁদা দিতে হচ্ছে।

ব্যবসায়ীরা জানান, ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ পুরাতন সড়ক দিয়ে আসার পথে পোস্তগোলা ও শ্যামপুরে পশুবাহী ট্রাক থেকে চাঁদাবাজি চলছে। পোস্তগোলায় শ্রমিক কল্যান সমিতির নাম ও শ্যামপুরে শ্রমিক লীগ ও পুলিশের নাম ভাঙ্গিয়ে নেয়া হচ্ছে চাঁদা। এর ফলে চড়া বাজারে আরও বেশী প্রভাব পড়বে পশু ক্রেতাদের উপর।

ফতুল্লা ডিআইটি হাটে ব্যাপারীদের সাথে কথা বলে জানা যায় এসকল তথ্য। সকাল থেকে গভীর রাত অবধি পালা করে চাঁদাবাজরা রাস্তায় গাড়ি আটকে থাকে। গভীর রাতে শ্যামপুরে চাঁদাবাজরা না থাকলেও পোস্তগোলার দিকে সারারাতই চাঁদাবাজরা সক্রিয় থাকে। গাড়ি প্রতি ৫০০ টাকা করে দাবী করলেও ১০০ -১৫০ দিয়ে আসতে হয় ব্যাবসায়ীদের। চাঁদা দিতে না চাইলে পথ আটকে রাখা, গাড়ির চাবি নিয়ে যাওয়া কিংবা গালিগালাজ করে মারধরের ভয় দেখায় এসব চাঁদাবাজরা। সারা পথে প্রায় ৬/৭টি স্থানে প্রায় ৮ হাজার টাকার চাঁদা দিতে হয়েছে ব্যাবসায়ীদের।

তবে ভিন্ন চিত্র ট্রলারে পশু পরিবহণে। ট্রলারে আনা নেয়ায় পরতে হয়নি চাঁদাবাজদের পাল্লায় এমনটি জানালেন ব্যাপারী নজরুল। সিরাজগঞ্জ থেকে সোজা ফতুল্লায় ভিড়েছেন ট্রলার নিয়ে। সড়কে যানজট ও চাঁদাবাজদের দৌরাত্ব থাকায় নদীপথ বেছে নিয়েছেন তিনি। সবে ২৩ টি গরু আনলেও ঈদের আগে আরও ২ ট্রলারে মোট ৭৫টি গরু হাটে নিয়ে আসার কথা জানান।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক গরু ব্যবসায়ী বলেন, সড়ক পথে ঢুকতেই ঘাটে ঘাটে চাঁদার কারণে গরু প্রতি পরিবহণ খরচ বাড়ছে। গরুর খাবার ও আনুসাঙ্গিক মিলিয়ে গরুপ্রতি প্রায় ২ হাজার টাকা খরচ বাড়ে। একদিকে গরুর দাম বৃদ্ধিতে ক্রেতাদের চাহিদা নিয়ে শঙ্কা অন্যদিকে খরচের পাল্লা ভারী। শেষ মুহুর্তে লাভের পাল্লা কমে গিয়ে লোকসানের দিকে এগোয় কিনা সেই ভয় কাজ করছে।


বিভাগ : অর্থনীতি


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও