পাটকলসমূহ রাষ্ট্রীয় মালিকানায় চালু করতে হবে

প্রেস বিজ্ঞপ্তি || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৯:০৬ পিএম, ১৩ জুলাই ২০২০ সোমবার

পাটকলসমূহ রাষ্ট্রীয় মালিকানায় চালু করতে হবে

রাষ্ট্রীয়ত্ত পাটকল বন্ধ নয় পিপিপি নয় আধুনিকায়ন করে রাষ্ট্রীয় মালিকানায় চালুর দাবিতে বাম গণতান্ত্রিক জোট ঢাকা জাতীয় প্রেস ক্লাব থেকে বাওয়ানী জুট মিল পর্যন্ত পদযাত্রায় ১৩ জুলাই সোমবার দুপুর ১২ টায় নারায়ণগঞ্জের শিমরাইল চৌরাস্তায় সমাবেশ করে।

বাম গণতান্ত্রিক জোট নারায়ণগঞ্জ জেলার সমন্বয়ক হাফিজুল ইসলামের সভাপতিত্বে চিটাগাং রোডের সমাবেশে বক্তব্য রাখেন বাম গণতান্ত্রিক জোটের কেন্দ্রীয় সমন্বয়ক বাসদ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য বজলুর রশিদ ফিরোজ, কমিউনিস্ট পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য আব্দুল্লাহ আল কাফি রতন, বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল-বাসদ নারায়ণগঞ্জ জেলার সমন্বয়ক নিখিল দাস, বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির নারায়ণগঞ্জ জেলার সাধারণ সম্পাদক আবু হাসান টিপু, বাসদ নারায়ণগঞ্জ জেলা ফোরামের সদস্য আবু নাঈম খান বিপ্লব, বিমল কান্তি দাস, সেলিম মাহমুদ, রাশিদা আক্তার।

নেতৃবৃন্দ বলেন, ১ জুলাই থেকে দেশের ২৫ টি রাষ্ট্রায়ত্ত পাটকল বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। লোকসানের বিভ্রান্তিকর যুক্তি হাজির করে সরকার গোল্ডেন হ্যান্ডশেকের মাধ্যমে শ্রমিক চাকুরিচ্যূত করে পিপিপি মাধ্যমে বেসরকারি মালিকানায় পাটকলগুলো ছেড়ে দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। সরকার পাটকল লোকসানের কারণ যথাযথভাবে অনুসন্ধান করে ব্যবস্থা না নিয়ে একতরফাভাবে সিদ্ধান্ত নিয়ে বাস্তবে ব্যাক্তিমালিকদের লুটপাটের সুযোগ করে দিচ্ছে। শ্রমিক কর্মচারী ঐক্য পরিষদ বলেছিল মাত্র ১২০০ কোটি টাকা খরচ করে আধুনিকায়ন করলে পাটকলগুলোতে তিনগুন লাভ নিয়ে আসা সম্ভব। কিন্তু সরকার সে পথে না যেয়ে ৫০০০ কোটি টাকা বরাদ্দ করেছে পাটকলগুলো ব্যাক্তি মালিকানায় তুলে দেয়ার জন্য। বিশেষজ্ঞরা বলছেন পাটকলগুলোর মাথাভারি প্রশাসন, আধুনিকায়ন না করা এবং সিজন শেষে বেশি মূল্যে কাঁচাপাট ক্রয় ইত্যাদি হল পাটকল লোকসানের কারণ। শ্রমিকরা কোনভাবেই তার জন্য দায়ি নয়।

নেতৃবৃন্দ বলেন বন্ধ রাষ্ট্রায়ত্ত পাটকল রাষ্ট্রীয় মালিকানায় চালু ও আধুনিকায়নের দাবি জানান এবং তদন্ত কমিশন কওে লোকসানের জন্য দায়ি মাথাভারি প্রশাসনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া দাবি করেন।


বিভাগ : অর্থনীতি


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও