৩০ অগ্রাহায়ণ ১৪২৪, শুক্রবার ১৫ ডিসেম্বর ২০১৭ , ১২:৩৯ পূর্বাহ্ণ

‘শামীম ওসমান আপনি সোনার চামচ নিয়ে জন্মেছেন কিন্তু আমরা না’


সিটি করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ

প্রকাশিত : ০৯:৪২ পিএম, ১৭ অক্টোবর ২০১৭ মঙ্গলবার


‘শামীম ওসমান আপনি সোনার চামচ নিয়ে জন্মেছেন কিন্তু আমরা না’

এমপি শামীম ওসমানের সামনেই সরকারি তোলারাম কলেজের শিক্ষকদের তুলোধনো করলেন শিক্ষার্থীরা। তুলে ধরলেন কলেজের প্রচুর সমস্যা অসুবিধা বিড়ম্বনা। শামীম ওসমান নিজেই শিক্ষার্থীদের মঞ্চে ডেকে এনে সমস্যার কথা জানতে চাইলে শিক্ষার্থীরা নানা সমস্যার কথা জানান। সেই সঙ্গে শিক্ষকদের নানা দুর্নীতির চিত্রও তুলে ধরে শিক্ষার্থীরা।

মঙ্গলবার (১৭ অক্টোবর) নারায়ণগঞ্জ সরকারি তোলারাম কলেজের নবীন বরন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ-৪ (ফতুল্লা-সিদ্ধিরগঞ্জ) আসনের এমপি একেএম শামীম ওসমান ও বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন নারায়ণগঞ্জ মহিলা সংস্থার চেয়ারম্যান সালমা ওসমান লিপি।

শামীম ওসমান শিক্ষার্থীদের মঞ্চে ডেকে আনেন। শিক্ষার্থীদের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য জানতে চান। সেই সঙ্গে কলেজের কি কি ধরনের সমস্যা রয়েছে তাও জানতে চান। জাতীয় সঙ্গীতের সময় ইন্টারমেডিয়েটের প্রথম বর্ষের ছাত্র কাজী শের শাহ মনোযোগ দিয়ে জাতীয় সঙ্গীত গাওয়ার কারনে শামীম ওসমান তাকে মঞ্চে আনেন। নবীন শিক্ষার্থী কনিকা আক্তার, মাহাফুজুর রহমান তানভীর সহ বেশকজন শিক্ষার্থীকে মঞ্চ ডেনে আনেন শামীম ওসমান। ওই সময় শিক্ষার্থী তানভীর শামীম ওসমানের সামনেই শিক্ষকদের নানা দুর্নীতি অন্যায় ও হাজারো অসুবিধার কথা তুলে ধরেন। তানভীরের বক্তব্যের সময় সকল শিক্ষার্থীরা হাত তালি দিয়ে সমর্থন করেন।

অনুষ্ঠানের এক পর্যায়ে শামীম ওসমান শিক্ষার্থীদের মঞ্চে ডাকেন। শিক্ষার্থীরা কলেজের নানা সমস্যা তুলে ধরেন। শিক্ষার্থীদের মধ্যে জোরালো বক্তব্য রাখেন ইন্টারমেডিয়েটের ছাত্র মাহাফুজুর রহমান তানভীর।

তানভীর বক্তব্যে শামীম ওসমানকে বলেন, ‘আপনি আগের অনুষ্ঠানে বলেছিলেন সোনার চামচ মুখে দিয়ে জন্মেছেন। কিন্তু নারায়ণগঞ্জ সরকারি তোলারাম কলেজে ক’ জন সোনার চামচ মুখে দিয়ে জন্মেছেন। বন্ধুরা হাত তুলেন কে কে সোনার চামচ মুখে নিয়ে জন্মেছেন?’ তখন শিক্ষার্থীদের একজনও হাত তুলেনি।

তখন তানভীর বলেন, দেখেন একজনও আপনার মত সোনার চামচ মুখে নিয়ে জন্মেনি। আমরা সরকারি কলেজে যারা ভর্তি হই সবাই মধ্যবিত্ত নিম্ম মধ্যবিত্ত পরিবারের সন্তান। আমরা গরীব ঘরের সন্তান। আমরা এখানে লেখাপড়া  করতে আসি। কিন্তু সপ্তাহে একদিনও ৬টি ক্লাস হয়না। বন্ধুরা আপনারা বলেন এখানে কি প্রতিদিন ক্লাস হয়? তখন শিক্ষার্থীরা বলেন‘ না’। বন্ধুরা এখানে প্রতিদিন কি ক্লাস হয়? না সূচক বলে শিক্ষার্থীরা।

তানভীর আরো বলেন, ‘আমাদের ল্যাবরেটরিতে একটা কঙ্কাল ছাড়া কিছুই নাই। একটা লাইব্রেরী আছে দশজনও বসা যায়না। একটা ক্যাম্পাস নাই যেখানে বসে আমরা লেখাপড়া নিয়ে কথা বলব। তোলারাম কলেজে খাওয়ার মত পানির ব্যবস্থা নেই।’

‘সরকারি তোলারাম কলেজে যতগুলো বিসিএস ক্যাডার শিক্ষক রয়েছেন কোন বেসরকারি কলেজে এত বিসিএস ক্যাডার নাই। তাহলে কেন বেসরকারি কলেজের ফলাফল আমাদের চেয়ে ভাল হয়? একই বিষয়ে ভিন্ন ভিন্ন শিক্ষকরা বিভিন্ন দিন ক্লাস নেন। কলেজে কখনও পড়া দিয়ে পড়া  নেয়া হয়না। একজনও শিক্ষকদের পড়া দিতে হয়নি। বন্ধুরা আপনারা কি কখনও পড়া পেড়েছেন? তখন সকলে বলে ‘না’।’ বলেন তানভীর।

সে আরো বলেন, ‘ভিন্ন ভিন্ন দিন ভিন্ন ভিন্ন শিক্ষক ক্লাস নেয়ার কারনে কেউ পড়েনা। কারন পড়া দিতে হয়না। আমরা  প্রতিদিন ৬টি করে ক্লাস চাই। এবং একই বিষয়ে একজন করে শিক্ষক চাই।’

ওই সময় শামীম ওসমান তানভীরের কাছে জানতে চায় তুমি লেখাপড়া করে কি হতে চাও? তখন তানভীর বলে, আমি প্রধানমন্ত্রী হতে চাই। কিন্তু আমার বাবা মা রাজনীতি আন্দোলন সংগ্রাম এসব করতে নিষেধ করেছেন। আপনি তোলারাম কলেজ থেকে পড়ে এমপি হয়েছেন। আমি আপনার চেয়ে বড় হতে চাই।

তখন শামীম ওসমান বলেন, আসো তোমার সঙ্গে একটা সেলফি তুলি। তোমার ভিতরে প্রধানমন্ত্রী হওয়ার লক্ষন আছে। পরে হয়তো তোমার সঙ্গে ছবি তোলার সুযোগ পাবোনা।

পরে শামীম ওসমান দুঃখ প্রকাশ করে বলেন, আমি নিজে লজ্জিত এসব শুনে। সরকারী তোলারাম কলেজের যা উন্নয়ন প্রয়োজন তার ১০ভাগও হয়নি। এসব সমস্যার দ্রুত সমাধান চাই। এখানে ফ্যাসিলিটিস বিভাগের প্রকৌশলী উপস্থিত রয়েছেন। আপনি শুনেছেন শিক্ষার্থীদের সমস্যাগুলো। এসব সমস্যা দ্রুত সমাধানের উদ্যোগ নেন। নতুবা শিক্ষার্থীরা ফ্যাসিলিটিস বিভাগ ঘেরাও করলে আমার কিছু করার থাকবে না। আর টাকা আমি আনবো। টাকা কিভাবে আনতে হয় আমি জানি। আর পানির সমস্যা রিয়াদকে (হাবিবুর রহমান রিয়াদ) বলব আমার কাছ থেকে টাকা নিয়ে বিশুদ্ধকরণ ফিল্টার যতগুলো লাগে এনে দিতে।

নবীন বরণ অনষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন সরকারি তোলারাম কলেজের অধ্যক্ষ মধুমিতা চক্রবর্তী। নারায়ণগঞ্জ মহানগর ছাত্রলীগের আহ্বায়ক ও সরকারি তোলারাম কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি হাবিবুর রহমান রিয়াদের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে উপস্থিত নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জাকিরুল আলম হেলাল, সহ-সভাপতি কমান্ডার গোপীনাথ দাস, মহানগর স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি জুয়েল হোসেন, নারায়ণগঞ্জ জেলা মহিলা লীগের সভাপতি শিরিন বেগম, মহানগর মহিলা লীগের সভাপতি ইসরাত জাহান খান স্মৃতি, শিক্ষক পরিষদের সম্পাদক জীবন কৃষ্ণ মোদক, জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান সুজন প্রমুখ।

নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
Shirt Piece

শিক্ষাঙ্গন -এর সর্বশেষ