আইইটি স্কুলের ছাত্রের মৃত্যু : ৪জনের বহিস্কার দাবি

৪ ভাদ্র ১৪২৫, রবিবার ১৯ আগস্ট ২০১৮ , ৫:১৯ অপরাহ্ণ

আইইটি স্কুলের ছাত্রের মৃত্যু : ৪জনের বহিস্কার দাবি


সিটি করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ

প্রকাশিত : ০৮:২৮ পিএম, ২৮ এপ্রিল ২০১৮ শনিবার | আপডেট: ১০:০৪ পিএম, ২৮ এপ্রিল ২০১৮ শনিবার


আইইটি স্কুলের ছাত্রের মৃত্যু : ৪জনের বহিস্কার দাবি

নারায়ণগঞ্জ সরকারী আই.ই.টি স্কুলের মেধাবী শিক্ষার্থী আদনান সারোয়ারের মৃত্যুর ঘটনায় একই স্কুলের অভিযুক্ত ৪ শিক্ষার্থীকে বহিষ্কারের দাবি জানিয়েছেন মৃতের পিতা সারোয়ার মোজাহিদ মুকুল।

সম্প্রতি জেলা প্রশাসকের কাছে মৃতের পিতা সারোয়ার মোজাহিদ মুকুল অভিযোগ পত্র দাখিল করে এহেন কাজের জন্য ৪ জনকে স্কুল থেকে বহিস্কারের দাবি জানিয়েছেন।

বহিষ্কারের দাবিকৃত ৪ জন শিক্ষার্থী হল আইইটি স্কুলের ৮শ শ্রেণির শিক্ষার্থী শুভ আহম্মেদ, ৭ম শ্রেণির সিফাত, ৮ম শ্রেণির রায়হান ও ৮ম শ্রেণির ইসতিয়াক আহমেদ।

অভিযোগ পত্রে মৃতের পিতা মোজাহিদ বলেন, ‘গত ২৫ এপ্রিল সকাল ১০ টায় নারায়ণগঞ্জ সরকারী আইইটি স্কুলের ওই ৪জন শিক্ষার্থী সহ আরো কয়েকজন মিলে আমার ছেলেকে বাড়ী থেকে স্কুলের কথা বলে নিয়ে যায়। তারা আমার ছেলে সারোয়ারকে নবীগঞ্জ টি হোসেন গার্ডেনে নিয়ে ব্যাপক মারধর করেন। তারপর নবীগঞ্জ কাইকারটেক ব্রীজের নীচে নদীতে ফেলে বাড়িয়ে চলে যায়। আমরা খবর পেয়ে সেখানে গিয়ে ব্রহ্মপুত্র নদ থেকে আমার ছেলেকে মৃত অবস্থায় উদ্ধার করি। তাছাড়া এই ৪ জন শির্ক্ষার্থী স্কুলের প্রধান শিক্ষক ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসকের সামনে মারধরের কথা স্বীকার করেন যা লিখিতভাবে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা) ও সহকারী প্রধান শিক্ষকের নিকট লিখিত জবানবন্দি দেয়া হয়। তাই আমি আমার ছেলের মৃত্যুর জন্য উক্ত চার জন শিক্ষার্থীকে সুষ্ঠু শিক্ষার স্বার্থে এবং এই ধরনের অঘটন পুনারয় কোন স্কুলে না ঘাটে সেই জন্যে তাদেরকে চিরতরে বহিষ্কার  (রেড টিসি) দেয়ার জোর দাবি জানাচ্ছি।

এদিকে ওই আবেদন পত্রে একটি মুচলেখা সংযুক্ত ছিল। সেখানে অভিযুক্ত ৪ জন শিক্ষার্থী তাদের লিখিত জবানবন্দীতে বলেন, ‘আমরা চারজন নারায়ণগঞ্জ সরকারী আইইটি স্কুলের শিক্ষার্থী। আমরা আদনান সারোয়ারকে গত ২৫ এপ্রিল তার বাড়ী থেকে ডেকে নিয়ে নবীগঞ্জ টি হোসেন গার্ডেনে নিয়ে মারধর করি। তারপর নদীতে সবাই গোসল করতে নামি। এর মধ্যেই আদনান সারোয়ার নদীতে ডুবে যায়। তখন আমরা ভয়ে সেখান থেকে পালিয়ে আসি।’

নারায়ণগঞ্জ অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) রেজাউল বারী নিউজ নারায়ণগঞ্জকে বলেন, ‘আমি একটা অভিযোগ পেয়েছি। সেখানে যে ৪ জন শিক্ষার্থীকে বহিষ্কারে দাবি জানানো হয়েছে। ওই ৪ শিক্ষার্থী নিজ থেকেই স্কুল ছেড়ে যাওয়ার জন্য আবেদন করেছে। সেহেতু কোন কোন ব্যবস্থা নেয়া হবেনা। আর নিহতের বাবা এ ব্যাপারে থানায় কোন অভিযোগ করেনি। তাই পরবর্তীতে কোন পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছেনা।’

নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
Shirt Piece

শিক্ষাঙ্গন -এর সর্বশেষ