কদম রসুল কলেজের ছাত্রী উত্ত্যক্তের ঘটনা বাড়ছে

স্টাফ করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৫:৪৮ পিএম, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮ সোমবার



কদম রসুল কলেজের ছাত্রী উত্ত্যক্তের ঘটনা বাড়ছে

বন্দরের কদম রসুল কলেজ সংলগ্ন চায়ের দোকানসহ বিভিন্ন স্থানে কলেজ শিক্ষার্থীদের উত্ত্যক্ত করার একাধিক অভিযোগ পাওয়া গেছে। এমনকি কলেজ ছাত্র না হয়েও ক্লাস চলাকালীন সমলে কলেজের ভিতরে প্রবেশ করে বহিরাগতদের অহরহ আড্ডা দেয়ার দৃশ্য দেখা যাচ্ছে। এতে মেয়ে শিক্ষার্থীদের নানাভাবে উত্ত্যক্ত করার অভিযোগও পাওয়া যাচ্ছে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে একাধিক ছাত্রী জানান, ১৫ থেকে ২০ জনের একটি গ্রুপ আমাদের নানাভাবে হয়রানি করে। এমনকি কলেজ গেইটে দাঁড়িয়ে অশ্লীল ভাষায় কথা বলে। এসব কথা আমরা কার কাছে বলব। স্যারদের বললে, তারা বাইরে আসলে বখাটেদের পায় না। এছাড়া শিক্ষকদের এসব কথা বলতেও খারাপ লাগে। পুলিশ প্রশাসন যদি এ ব্যাপারে নজরদারি করে তাহলে বিষয়টি স্পষ্ট হয়ে যাবে।

২৩ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও মহানগর স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাধারণ সম্পাদক সাইফুদ্দিন আহম্মেদ দুলাল প্রধান বলেন, বিষয়টি আমাকে অনেকে জানিয়েছে। থানা পুলিশকে বিষয়টি অবহিত করা হয়েছে। আইনী প্রক্রিয়ায় ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দেন তারা।

বন্দর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও কলেজ গভর্নিং বডির সদস্য এহসান উদ্দিন আহম্মেদ বলেন, ২৩ তারিখের অনুষ্ঠান নিয়ে অনেকটা ব্যস্ত ছিলাম। এ বিষয়টি আমার কাছেও অনেকে বলেছে। বহিরাগতরা কলেজে প্রবেশ করতে পারবে না। বখাটেরা কলেজ চলাকালীন কোন দোকানে বসে থাকলে দোকানীর বিরুদ্ধে সহ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এখানে কোন রাজনীতি নেই। শিক্ষালয়ে শিক্ষার্থীরা কলেজে থাকবে বহিরাগতরা প্রবেশ করলে ধরে পুলিশে দেয়া হবে।

বন্দর ফাঁড়ির ইনচার্জ ইন্সপেক্টর এমদাদুল হক মোবাইল ফোনে জানান, ইভিটিজিং করবে এমন বখাটেদের বিরুদ্ধে অবশ্যই ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। কে বা কারা তাদের নাম ও ঠিকানা থাকলে তদন্ত সাপেক্ষে বাড়ি থেকে আটক করে নিয়ে আসা হবে। সে যে কেউ হোক না কেন। এ বিষয়ে কোন প্রকার ছাড় নেই।


বিভাগ : শিক্ষাঙ্গন


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও