৭ কার্তিক ১৪২৫, মঙ্গলবার ২৩ অক্টোবর ২০১৮ , ৮:০৩ পূর্বাহ্ণ

UMo

জালকুড়ি প্রাইমারী স্কুলের নতুন ভবনে ফাটল আতংক


সিটি করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ

প্রকাশিত : ০৮:৩৫ পিএম, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮ শুক্রবার


জালকুড়ি প্রাইমারী স্কুলের নতুন ভবনে ফাটল আতংক

নির্মাণের ২ মাসের মধ্যেই ফাটল দেখা দিয়েছে নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার ৯০নং জালকুড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৩তলা নতুন ভবনের দোতলার ফ্লোরে। ভবনটি তৈরি সম্পন্ন হয়েছে প্রায় ২ মাস আগে এবং ৯ সেপ্টেম্বর আনুষ্ঠানিকভাবে ভবনে পাঠদান শুরু করা হয়।

তবে ১০ দিন যেতে না যেতেই দোতলার ফ্লোরে ফাটল দেখতে পান শিক্ষকরা। তৎক্ষনাত তারা শিক্ষার্থীদের দোতলা ও তিন তলা থেকে নামিয়ে দেন। এবং কন্ট্রাকটারের সাথে যোগাযোগ করেন। পরবর্তীতে ইঞ্জিনিয়ার এসে পরিক্ষা করেন এবং ফ্লোর পুনরায় সংস্কার করেন।

সংস্কার কাজের ফলে দোতলা ও তিন তলার শিক্ষার্থীদের নিচ তলায় একসাথে ক্লাস করানো হয়। যার ফলে কিছুটা ভোগান্তির সম্মুখিন হচ্ছে শিক্ষার্থীরা। তবে ঠিকাদারের তদারকিতে গাফিলতির কারণে এই ঘটনা ঘটতে পারে বলে জানান স্কুল কর্তৃপক্ষ।

প্রধান শিক্ষক মিতালি রায় নিউজ নারায়ণগঞ্জকে বলেন, ‘আমরা দোতলার ফ্লোরে ফাটল দেখে শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তা নিয়ে সংকিত হয়ে পরেছিলাম। আমরা সাথে সাথেই শিক্ষার্থীদের নামিয়ে দিয়েছিলাম এবং ১ ঘন্টার মধ্যেই উপজেলা শিক্ষা অফিসারের সাথে যোগাযোগ করে তাকে জানাই। এবং তিনি ইঞ্জিনিয়ারের সাথে যোগাযোগ করেন। পরবর্তীতে ইঞ্জিনিয়ার এসে ফ্লোরের সংস্কার করেন। মূলত তদারকির অভাবেই এই ঘটনা ঘটে। ভালোভাবে তদারকি করা হলে এই ঘটনা ঘটতো না।’

সহকারী প্রধান শিক্ষক রওশন আরা বেগম নিউজ নারায়ণগঞ্জকে বলেন, ‘আমরা উপজেলা শিক্ষা অফিসারকে জানানোর তারা ইঞ্জিনিয়ার পাঠিয়েছেন। ইঞ্জিনিয়ার বলেছেন ভবন নির্মানে কোনো ত্রুটি নেই। ফলে বড় দুর্ঘটনার কোনো আশংকা নেই। তবে তারা বলেছেন যে সিমেন্ট বেশি হওয়ার ফলে এ ঘটনা ঘটেছে।’

স্কুলের দপ্তরি মাসুদ রানা নিউজ নারায়ণগঞ্জকে বলেন, ‘ঠিকাদার নিয়মিত তদারকি করেননি। এবং এই ফাটলের ঘটনা তাকে জানানো হলে তিনি ইঞ্জিনিয়ারের সাথে শুধু একবার এসেছেন। বাকি কাজগুলোর তদারকি আমরাই করছি।’

এ বিষয়ে জানতে ঠিকাদার কামরুজ্জামানের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করলে তিনি নিউজ নারায়ণগঞ্জকে বলেন, ‘সেটা তেমন ভয়ংকর কোনো ফাটল ছিল না। আসলে ফ্লোরে সিমেন্টের যে আস্তর দেয়া হয়েছিল তা বেশি মোটা হয়ে গেছিল। যার ফলে ভিতরে পানি প্রবেশ করতে পারেনি ভালো ভাবে। তাই সামান্য একটু চিড় ফাটা দেখা গিয়েছে। সেটা তেমন কিছু নয়।’

তারপর তিনি ফোন রেখে দেন। এবং পরবর্তীতে তার সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করলে তিনি প্রতিবেদকের ফোন রিসিভ করেননি।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক অভিভাবক নিউজ নারায়ণঞ্জকে বলেন, ‘কার্যক্রম শুরুর সাথে সাথেই এই ফাটল  ধরেছে। তাহলে তো ভবিষ্যতে আরো দুঘটনা ঘটতে পারে। আর এতোগুলো ছেলে মেয়ে এই স্কুলে পরে। তারা প্রতিনিয়ত দৌড়াদৌড়ি ও লাফালাফির উপরে থাকে। তখন তো আরো বড় কিছু হতে পারে।’

rabbhaban

নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
Shirt Piece

শিক্ষাঙ্গন -এর সর্বশেষ