এসএসসির ফরম পূরণে বোর্ড নির্ধারিত ফি নেওয়ার আহবান শামীম ওসমানের

স্টাফ করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৭:১৩ পিএম, ১০ নভেম্বর ২০১৮ শনিবার



এসএসসির ফরম পূরণে বোর্ড নির্ধারিত ফি নেওয়ার আহবান শামীম ওসমানের

নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য বলেছেন, আসন্ন এসএসসি পরীক্ষার ফরম ফিলাপের জন্য কোন কোন স্কুল শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে বোর্ড নির্ধারিত ফি’র চেয়েও বেশী টাকা নিচ্ছে। বিষয়টি খুবই দু:খজনক। শুধু তাই নয় স্কুলগুলো অহেতুক অনেক খাত দেখিয়ে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে এই টাকা নিচ্ছে যা অভিভাবকদের জন্য এক ধরনের মানসিক চাপের শামিল। বিষয়টি বাস্তবতার সাথে অনুধাবন করে স্কুল কর্তৃপক্ষকে বোর্ডের নির্ধারিত ফি নেওয়ার আহ্বান জানান।

১০ নভেম্বর শনিবার সন্ধ্যায় নারায়ণগঞ্জ রাইফেল ক্লাবে বেশ কিছু স্কুলের শিক্ষার্থী ও অভিভাবক শামীম ওসমানের কাছে অভিযোগ নিয়ে গেলে এই আহ্বান জানান তিনি।

শামীম ওসমান বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা দেশরত্ম শেখ হাসিনা দেশেল শিক্ষাখাতকে এগিয়ে নিতে অনেক কাজ করেছেন। শিক্ষার্থীদের বিনামূল্যে বই বিতরন, উপবৃত্তি প্রদান, বিদ্যালয়ের অবকাঠামোগত উন্নয়ন, শিক্ষকদের বেতনভাতা বৃদ্ধি এসব উদাহরণ টেনে তিনি বলেন, যেখানে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের জন্য এত কিছু করছে সরকার সেখানে ফরম ফিলাপের টাকা নিয়ে সেই অর্জনকে ম্লান করছে কিছু বিদ্যালয়।

এসময় উপস্থিত ছিলেন জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি এহসানুল হাসান নিপু, সাফায়েত আলম সানি, মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি হাবিবুর রহমান রিয়াদ, মহানগর আওয়ামীলীগের সহসভাপতি চন্দন শীল, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শাহ নিজাম, সাংগঠনিক সম্পাদক জাকিরুল আলম হেলাল প্রমুখ।

নারায়ণগঞ্জের বিভিন্ন স্কুলে ফরমপূরণে অতিরিক্ত ফি আদায়
নারায়ণগঞ্জে শিক্ষা বোর্ডের নির্দেশ উপেক্ষা করে ২০১৯ সালের এসএসসি পরীক্ষার্থীদের কাছ থেকে ফরম পুরণের জন্য আদায় করা হচ্ছে অতিরিক্ত ফি। অভিযোগ রয়েছে সরকার নির্ধারিত ফি এর চেয়ে এসব স্কুলে কয়েক গুণ টাকা আদায় করা হচ্ছে। ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের অধীনে ২০১৯ সালের এসএসসি পরীক্ষায় বিজ্ঞান বিভাগের জন্য ১৬৫০টাকা এবং মানবিক ও ব্যবসায় বিজ্ঞানের জন্য ১৫৫০টাকা নির্ধারণ করা হলেও জেলার শুধুমাত্র কয়েকটি স্কুল ছাড়া অধিকাংশ স্কুলগুলোতে এ অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে।

বিভিন্ন স্কুলের শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের অভিযোগ, মর্গ্যাণ গার্লস স্কুলে দুইটি মডেল টেষ্টের ফি সহ ৪৮০০টাকা, গণবিদ্যা নিকেতনে ৫৬০০টাকা, আমলাপাড়া গার্লস স্কুলে ৪৮০০টাকা, আমলাপাড়া আইডিয়াল স্কুল ৮৫০০টাকা, জয়গোবিন্দ হাই স্কুলে ৪২০০টাকা, হাজাীগঞ্জ মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতিবিদ্যানিকেতনে ৫৫০০টাকা বন্দর বিএম ইউনিয়ন হাই স্কুলে ৪০০০টাকা নিচ্ছে। সরকারী উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ে এবং আইইটি সরকারী বালক বিদ্যালয়ে  ২৩০০টাকা আদায় করা হচ্ছে।

শনিবার বিকেলে সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধানদের নিয়ে এসএসসি পরীক্ষায় অতিরিক্ত ফি আদায়েয়ের বিষয়ে একটি সভা অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে প্রতিষ্ঠান প্রধানদের অতিরিক্ত ফি আদায় বন্ধ করার নির্দেশ দেয়া হয়।

মর্গ্যাণ উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক অশোক তরু জানান, পরিচালনা পরিষদের অনুমোদন অনুযায়ী শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে ফরম ফিলাপের চার্জ, বেতন,মডেল টেষ্টের ফি বাবদ ৪৮০০টাকা নেয়া হচ্ছে।

নারায়ণগঞ্জ হাই স্কুলের প্রধান শিক্ষক কমল কান্তি সাহা জানান, তিনি বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে ১৭০০ টাকা এবং মানবিক ও ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগের শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে ১৬০০টাকা নিচ্ছেন।

বিভিন্ন স্কুলের অভিভাবকরা জানান, তাদের সন্তানদের এসএসসি পরীক্ষার ফরম পূরণের টাকা যোগাড় করতে হিমশিম খাচ্ছেন। মর্গ্যাণ স্কুলের অভিভাবক হোসনে আরা জানান, তিনি একজন গার্মেন্টস শ্রমিক। তার মেয়ের ফরম পুরণের জন্য সুদে টাকা এনে স্কুলে প্রদান করেছেন।

এ অনিয়মের ব্যাপারে জেলা প্রশাসক রাব্বি মিয়া জানান, তিনি বিভিন্ন মাধ্যমে স্কুল গুলোতে অতিরিক্ত ফি আদায়ের বিষয়ে অভিযোগ পেয়েছেন। এ ব্যাপারে তদন্তের জন্য উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাদের তদন্তের জন্য নির্দেশ দিয়ে একটি কমিটি করে দেয়া হয়েছে।

তিনি জানান, আমার কাছে যে কোনো অভিভাবক সরাসরি অভিযোগ করলে তাৎক্ষনিকভাবে ব্যবস্থা গ্রহন করবো।


বিভাগ : শিক্ষাঙ্গন


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও