বন্দরে চলছে রমরমা কোচিং বাণিজ্য

বন্দর করেসপন্ডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৬:০৬ পিএম, ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ মঙ্গলবার

বন্দরে চলছে রমরমা কোচিং বাণিজ্য

বন্দরে চলছে রমরমা কোচিং বাণিজ্য। সরকারের বিধি নিষেধ, উচ্চ আদালতের নির্দেশনা সত্ত্বেও বন্ধ হচ্ছে না কোচিং বাণিজ্য। অর্থলোভী কতিপয় শিক্ষক নিজ বাড়ীতে এবং ভাড়া করা বাসায় কোচিং সেন্টার খুলে চালাচ্ছে এ বাণিজ্য।

বন্দরের চর ইসলামপুর এলাকার সামসুজ্জোহা এমবি উচ্চ বিদ্যালয়, বন্দর গার্লস স্কুল অ্যান্ড কলেজ, বিএম ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়, ঢাকেশ^রী উচ্চ বিদ্যালয় সহ বিভিন্ন স্কুলের গণিত ও ইংরেজী শিক্ষকেরা চালাচ্ছে রমরমা কোচিং বাণিজ্য।

সরকারের শিক্ষা নীতিমালা অমান্য করে ও নীতি মালার আলোকে শাস্তির বিধানকে বৃদ্ধাঙ্গুলী দেখিয়ে কোচিং বাণিজ্য দেদারছে চালাচ্ছেন তারা। তাদের কাছে না পড়লে নম্বর কম দেয়া সহ ফেল করিয়ে দেয়ার হুমকি দেন তারা। এ অবস্থায় বাধ্য হয়ে কোচিং করছে শিক্ষার্থীরা। প্রতি শিক্ষার্থীর কাছ থেকে ৫শ’ টাকা থেকে হাজার টাকা হাতিয়ে নেয়া হচ্ছে বলে অভিভাবকরা অভিযোগ করেছেন। এতে নৈতিক শিক্ষা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে শিক্ষার্থীরা। ফলে শিক্ষার মান নিয়ে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে।

সামসুজ্জোহা উচ্চ বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক এরশাদ জানান, আমি কোচিং বন্ধের নির্দেশ দিয়েছি।

বন্দর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পিন্টু বেপারী বলেন, উচ্চ আদালত স্কুলে যারা শিক্ষকতা করেন তাদের কোচিং বাণিজ্য বন্ধ করার নির্দেশ দিয়েছেন। সরকার কোচিং বাণিজ্য নিষিদ্ধ করেছে। তদন্ত করে কোচিং বাণিজ্য বন্ধ করার পদক্ষেপ নেবেন বলে তিনি জানান।

বন্দর উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আকম নূরুল আমিন জানান, কোচিং না করানোর জন্য প্রতিটি স্কুলে নোটিশ করা হয়েছে। তারপরও যদি বন্ধ না হয় তবে ব্যবস্থা নেব।


বিভাগ : শিক্ষাঙ্গন


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও

আরো খবর