আনোয়ার হোসেনকে দেখে নিজের বাবাকে স্মরণ ভারতীয় সচিবের

সিটি করেসপন্ডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৯:৩৫ পিএম, ১১ এপ্রিল ২০১৯ বৃহস্পতিবার

আনোয়ার হোসেনকে দেখে নিজের বাবাকে স্মরণ ভারতীয় সচিবের

ভারতীয় ৩৮ম প্রতিরক্ষা সচিব সঞ্চয় মিত্র নারায়ণগঞ্জের মর্গ্যান গার্লস স্কুল অ্যান্ড কলেজে আসতে না পারায় দুঃখ প্রকাশ করেছেন। তবে তিনি ভবিষ্যতে এ প্রতিষ্ঠানে আসার ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন।

বৃহস্পতিবার ১১ এপ্রিল সকাল ১০টায় ঢাকার বাংলাদেশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ে বাংলাদেশে আগত এই সচিবের সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন মর্গ্যান গার্লস স্কুল অ্যান্ড কলেজের গভর্নিংবডির চেয়ারম্যান, নারায়ণগঞ্জ জেলা পরিষদের চেয়্যারমান ও মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি আনোয়ার হোসেন, জেলা প্রশাসক মো. রাব্বী মিয়া ও মর্গ্যান গার্লস স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ অশোক কুমার তরু।

ওই সময়ে সঞ্চয় মিত্র বলেন, মর্গ্যান স্কুলে যেতে না পারায় বাংলাদেশে আগমনে আপনাদের সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ করার আহবান জানায়। মাতা কমল রাণী রায় এ মর্গ্যান স্কুলে প্রধান শিক্ষিকা ছিলেন তুলে তিনি বলেন, তার স্মৃতিময় স্থানটি দেখার ইচ্ছা করছে। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে সাক্ষাৎ করার কারণে নারায়ণগঞ্জে মর্গ্যান স্কুলে যেতে পারলাম না।

তিনি উপস্থিতিদের উদ্দেশ্যে বলেন, যতদিন বেচেঁ থাকবো, যতদিন আমার নিঃশ্বাস থাকবে, ততদিন পর্যন্ত মর্গ্যান স্কুলের পাশে থাকবো। এই সময় জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেনের আলাপচারিতা ও তার চেহারা দেখে আমার বাবার কথা মনে পড়ে গেল।

তিনি বার বার উচ্চারণ করে বলেন, মর্গ্যান স্কুল ও আপনার জেলা পরিষদের যে কোন প্রয়োজনে পাশে আছি, থাকবো। মর্গ্যান স্কুলের যে কোন সহযোগিতায় আমি প্রস্তুত।

প্রায় আধ ঘণ্টা সময় সৌজন্য সাক্ষাতের পর ভারতীয় ৩৮তম প্রতিরক্ষা সচিবকে মর্গ্যান গার্লস স্কুল অ্যান্ড কলেজের পক্ষে শুভেচ্ছা ক্রেষ্ট, শিক্ষার্থীদের পক্ষে মানপত্র ও সচিবের স্ত্রীর জন্য নারায়ণগঞ্জের একটি জামদানী শাড়ি তুলে দেন মোঃ আনোয়ার হোসেন।

উল্লেখ্য, প্রতিরক্ষা সচিব শ্রী সঞ্চয় মিত্রের মাতা কমল রাণী রায় ১৯৪৫-১৯৪৭ সালে এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধান শিক্ষিকার দায়িত্বে ছিলেন। যেকারণে তিনি তার মায়ের স্মৃতি বিজড়িত এই প্রতিষ্ঠানে আসার ইচ্ছা প্রকাশ করেছিলেন।


বিভাগ : শিক্ষাঙ্গন


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও

আরো খবর