জঙ্গীবাদের সম্পৃক্তদের যেভাবে চেনা যাবে

সিটি করেসপন্ডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৭:৫৫ পিএম, ১৪ মার্চ ২০২০ শনিবার

জঙ্গীবাদের সম্পৃক্তদের যেভাবে চেনা যাবে

শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ওসি কামরুল ফারুক বলেছেন, জঙ্গীবাদ সম্পর্কে তোমাদের সচেতন থাকতে হবে। এই জঙ্গী চক্র আমাদের দেশকে ব্যার্থ রাষ্ট্রে পরিণত করার চেষ্টা করেছিল। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনী জঙ্গীবাদকে একটি সহনীয় পর্যায়ে নিয়ে এসেছে। এটা সম্ভব হয়েছে দেশের সচেতন মানুষের জন্য।

১৪ মার্চ শনিবার দুপুরে নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জস্থ সফুরা খাতুন পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে মাদক, সন্ত্রাস, ইভটিজিং, বাল্যবিবাহ ও জঙ্গীবাদের বিরুদ্ধে এক আলোচনা ও মতবিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, যদি কোন ব্যক্তি জঙ্গীবাদে যুক্ত হয় তার মধ্যে কিছু পরিবর্তন আসবে। ধর্মীয় কিছু কাজ নিজে বেশি করবে এবং পরিবারের অন্য সদস্যদের করার জন্য চাপ সৃষ্টি করবে। একাকীত্ব সময় অনলাইনে কাটাবে বেশি। সন্ধ্যার পর রাতে চলাফেরা করবে। এরা স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে বাসা ভাড়া নেয়। পরে ঐ ঘরে অল্প বয়সের অপরিচিত ব্যক্তিদের যাতায়াত বেড়ে যায়। প্রতিবেশীদের সাথে কম মিশে। রাতের বেলায় ঘরে আলো জ¦ালিয়ে কাজ করবে। এসব বৈশিষ্ট সম্পন্ন ব্যক্তিদের দেখলে বুঝতে হবে তারা জঙ্গীবাদে যুক্ত। সাথে সাথে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীকে জানাতে হবে।

মাদক নির্মূলে তিনি বলেন, বিশ^য়ানের সাথে সাথে মাদকের পরিবর্তন হচ্ছে। পূর্বে বিভিন্ন মদ ছিল প্রধান মাদক দ্রব্য। পরে ফেন্সিডিল এবং বর্তমানে ইয়াবা ট্যাবলেট মহামারী আকার ধারন করেছে। মিয়ানমার থেকে বিভিন্ন কারখানায় প্রস্তুতকৃত এই ইয়াবা আমাদের দেশে আসছে। এতে আমাদের যুব সমাজ নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। মাদকসেবীর কাছ থেকে সমাজ, পরিবার ও রাষ্ট্রের কোন উপকার হয়না। এই মাদকদ্রব্য একটি সর্বনাশা জিনিস। ভুলবশত কেউ একবার এ পথে ঢুকে গেলে ফিরে আসা অনেক কঠিন। তাই আমাদের যুবসমাজকে মাদক থেকে দূরে থাকতে হবে।

বাল্যবিবাহ রোধে ওসি বলেন, মেয়েদের ক্ষেত্রে ১৮ বছরের নিচে এবং ছেলেদের ক্ষেত্রে ২১ বছরের নিচে ছেলে-মেয়েরা শিশু। তাই প্রাপ্ত বয়সের আগে আমরা কেউ বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হব না। প্রয়োজনে প্রতিবাদ জানাবো। এতে শিক্ষক ও আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সহযোগিতা নেবে। কেননা, অল্প বয়সে বিয়ে হলে একটি নতুন পরিবেশে গিয়ে নিজেকে মানিয়ে নিতে কষ্ট হয়। ফলে অসুস্থ হয়ে মৃত্যু ঝুঁকি বেড়ে যেতে পারে। তাই তোমরা লেখা-পড়া করে প্রতিষ্ঠিত হও। এতে তোমাদের ভবিষ্যৎ জীবন অনেক সুন্দর ও গোছালো হবে।

এসময় মাদক, সন্ত্রাস, ইভটিজিং, বাল্যবিবাহ ও জঙ্গীবাদের বিরুদ্ধে সচেতনতায় দিকনির্দেশনামূলক আরো মূল্যবান বক্তব্য রাখেন নাসিক প্যানেল মেয়র মতিউর রহমান, সফুরা খাতুন পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের জাকিয়া আলী ভূইয়া কারিগরি স্কুল এন্ড কলেজ ও গোদনাইল প্রিপারেটরী স্কুলের সভাপতি জাকিয়া আলী ভূইয়া, দাতা সদস্য সানজিদা হক ভূইয়া, সাংবাদিক বিল্লাল হোসেন রবিন ও অভিভাবক ফারুক হোসেন।


বিভাগ : শিক্ষাঙ্গন


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও