মাদরাসা খুলে দেয়ার দাবীতে রাজপথে নামছে উলামা পরিষদ

সিটি করেসপন্ডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৯:০৫ পিএম, ৫ জুলাই ২০২০ রবিবার

মাদরাসা খুলে দেয়ার দাবীতে রাজপথে নামছে উলামা পরিষদ

মাদরাসা খুলে দেয়ার দাবীতে রাজপথে নামার প্রস্তুতি নিচ্ছেন নারায়ণগঞ্জ জেলা উলামায়ে পরিষদ। তারই অংশ হিসেবে আগামী বুধবার সকালে নারায়ণগঞ্জ শহরের চাষাঢ়া এলাকা থেকে ডিআইটি পর্যন্ত বিশাল মানববন্ধন করার ঘোষণা দিয়েছে। ৪ জুলাই শনিবার বিকেলে ডিআইটি রেলওয়ে কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে অনুষ্ঠিত এক সভায় এই সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়।

এর সত্যতা নিশ্চিত করে উলামা পরিষদ নেতা মাওলানা ফেরদাউর রহমান জানান, দীর্ঘদিন ধরে মাদরাসা বন্ধ থাকার কারণে আলেমরা মানবেতর জীবন যাপন করছে। সেই সাথে জমিনে কোরআন তেলাওয়াত বন্ধ হয়ে গেছে। এমতাবস্থায় মাদরাসা খুলে দেয়া খুবই জরুরি। তাই আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করেই মাদরাসা খুলে দেয়ার দাবীতে বিশাল মানববন্ধন করার। মাদরাসা খুলে দেয়ার আগ পর্যন্ত এভাবে আমাদের কর্মসূচি চলতে থাকবে।

এর আগে নারায়ণগঞ্জ জেলা উলামা পরিষদ সভাপতি মাওলানা আব্দুল আউয়াল বলেছিলেন, আমি সরকারকে অন্যান্যা ডিপার্টমেন্টগুলো যেভাবে খুলে দেয়া হয়েছে মাদরাসাগুলো সেভাবে খুলার ব্যবস্থা করা হোক। আমাদের পিঠ দেয়ালে ঠেকে গেছে। মাদরাসাগুলো খুলে দেন অতি তাড়াতাড়ি মহামারী বিদায় নিতে বাধ্য হবে। আলেমদেরকে আটকে রেখে করোনা দূর করা সম্ভব না। আমরা পরিকল্পনা নিচ্ছি মানববন্ধন করবো। প্রয়োজনবোধে রাস্তায় মেমে খোলা আকাশের নিচে আল্লাহর কাছে ফরিয়াদ করবো। মাদরাসা খোলার আগ পর্যন্ত খোলা আকাশ থেকে যাবো না।

জানা যায়, বৈশ্বিক মহামারি করোনা ভাইরাসের কারণে শিক্ষার্থীদের সার্বিক নিরাপত্তার কথা বিবেচনা করে দেশের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের চলমান ছুটি আগামী ৬ আগস্ট পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা মোহাম্মদ আবুল খায়ের গত ১৫ জুন এ তথ্য জানিয়েছিলেন।

এর আগে করোনার কারণে গত ১৭ মার্চ থেকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধের মধ্যে প্রাথমিক ও মাধ্যমিক স্তরে টিভিতে ক্লাস সম্প্রচার করা হচ্ছে। এরপর গত ২৬ মার্চ থেকে ৩০ মে পর্যন্ত ৬৬ দিনের সাধারণ ছুটি শেষে ৩১ মে সীমিত পরিসরে অফিস ও গণপরিবহন খুলে দেওয়া হয়েছে।

তবে গত ১ জুন শিক্ষা মন্ত্রণালয় বিজ্ঞপ্তিতে জানায়, দেশের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অফিস শুধুমাত্র প্রশাসনিক রক্ষণাবেক্ষণের প্রয়োজনে সীমিত আকারে খোলা রাখা যাবে। তবে অসুস্থ শিক্ষক-কর্মকর্তা-কর্মচারী, সন্তান সম্ভবা নারী এবং ঝুঁকিপূর্ণ ব্যক্তি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে উপস্থিত হওয়া থেকে বিরত থাকবেন।

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধের কারণে চলতি বছরের এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা স্থগিত রয়েছে। এছাড়া এসএসসি পরীক্ষার ফল প্রকাশ হলেও একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি কার্যক্রমও শুরু করা যায়নি। সব মিলে শিক্ষা ব্যবস্থাতেও স্থবিরতা নেমে এসেছে।

চাঁদ দেখা সাপেক্ষ আগামী ১ আগস্ট পবিত্র ঈদ-উল-আজহা উদযাপিত হওয়ার কথা রয়েছে। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের একাডেমিক ক্যালেন্ডার অনুযায়ী, পবিত্র ঈদ-উল-আজহা ও গ্রীষ্মকালীন অবকাশের জন্য মাধ্যমিক স্তরের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ২০ জুলাই থেকে ৬ আগস্ট পর্যন্ত ছুটি। ফলে ঈদের ছুটি পর্যন্ত আপাতত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকছে।


বিভাগ : শিক্ষাঙ্গন


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও