৪ কার্তিক ১৪২৫, শুক্রবার ১৯ অক্টোবর ২০১৮ , ৬:১৬ অপরাহ্ণ

UMo

নারায়ণগঞ্জে বেড়েছে ধর্ষণ সহ অনৈতিক ঘটনা


স্টাফ করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ

প্রকাশিত : ০৮:৪৪ পিএম, ১১ মে ২০১৮ শুক্রবার


নারায়ণগঞ্জে বেড়েছে ধর্ষণ সহ অনৈতিক ঘটনা

নারায়ণগঞ্জে ধর্ষণ, বলাৎকারের মত ন্যাক্কারজনক অনৈতিক কর্মকান্ডের ঘটনা বেড়ে গেছে। ধর্ষণের ঘটনার পাশাপাশি শিশু ধর্ষণ ও প্রতিবন্ধী ধর্ষণের মত নারকীয় ঘটনা পৈশাচিকতাকে হার মানিয়েছে। তবে মাদ্রাসার শিক্ষক কর্তৃক ১ম শ্রেণির শিক্ষার্থীকে বলাৎকারের ঘটনা ধর্ষণের মত ঘটনাকে ছাপিয়ে গেছে। সম্প্রতি নারায়ণগঞ্জ জেলায় ধর্ষণ ও বলাৎকারের মত ঘটনা অনেকটা বেড়ে গেছে।

বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার উপজেলার সাতগ্রাম ইউনিয়নের বাগবাড়ি মেরারটেক এলাকায় এক যুবতীকে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা হয়েছে। একাধিকবার ধর্ষণ করায় যুবতি ৩ মাসের অন্ত:সত্ত্বা হয়ে পড়ে। এলাকায় কোনো বিচার না পেয়ে ১১ মে ধর্ষিতা নিজেই বাদি হয়ে ধর্ষক শরিফ মিয়াকে আসামি করে মামলাটি দায়ের করেন। শরিফ মিয়া একই এলাকার দানা মিয়ার ছেলে। ধর্ষিতার মা আমেনা বেগম জানান, আট মাস ধরে তার মেয়ের সঙ্গে একই এলাকার পাওয়ালুম শ্রমিক শরিফ মিয়ার প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে একাধিকবার ধর্ষণ করে। এতে সে তিন মাসের অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে। ঘটনাটি এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে সামাজিকভাবে স্থানীয় মাতাব্বররা বিয়ের জন্য চাপ দিলে শরিফ মিয়া অপারগতা প্রকাশ করে। উপায়ন্তুর না পেয়ে আইনের আশ্রয় নেয়া হয়েছে। আড়াইহাজার থানার ওসি এম এ হক মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ধর্ষক শরিফ মিয়াকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

রূপগঞ্জে এক যুবক বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে নবম শ্রেণির স্কুল শিক্ষার্থীকে একাধিকবার র্ধষণ করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। উপজেলার দাড়িকান্দি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ১১ মে ওই ঘটনায় থানায় অভিযোগ দেওয়া হয়েছে।

শিক্ষার্থীর মা জানান, উপজেলার গঙ্গানগর এলাকার মালেকের ছেলে সবুজের সঙ্গে তার মেয়ের বেশ কিছুদিন ধরে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। লম্পট সবুজ বিয়ে করার প্রলোভন দেখিয়ে তার মেয়েকে একাধিকবার ধর্ষন করেন। তার মেয়ে লম্পট সবুজকে বিয়ে করার কথা বলে। সবুজ ওই তার মেয়েকে বিয়ে করবে না বলে সাফ জানিয়ে দেয়। লম্পট সবুজ তার মেয়েকে ধর্ষনের সময় মোবাইলে ভিডিও ফুটেজ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে হুমকি দিয়ে ধর্ষণ করে। পরে বৃহস্পতিবার সন্ধায় বাড়ি খালী পেয়ে লম্পট সবুজ তার মেয়েকে পুনরায় ধর্ষনের চেষ্টা চালায়। ওই শিক্ষার্থীর চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে লম্পট সবুজ পালিয়ে যায়।

এ ব্যাপারে রূপগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুজ্জামান মনির বলেন, এ ধরনের অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত মোতবেক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ঘর মুছানোর নাম করে বাড়িতে ডেকে নিয়ে বন্দরে একটি মাদ্রাসার ৫ম শ্রেণী ছাত্রী ও শারীরিক প্রতিবন্ধী কিশোরীকে (১২) ধর্ষনের ঘটনায় মামলা দায়ের হয়েছে। ধর্ষণের ঘটনার ৫ দিন অতিবাহিত হওয়ার পর ১০ মে দুপুরে ধর্ষিতার মা বাদী হয়ে বন্দর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে এ মামলা দায়ের করেন।

মামলা সূত্র জানা গেছে, গত ৪ মে বৃহস্পতিবার বেলা ১০টায় বন্দর থানার বঙ্গশাসন এলাকার বাদীর ভাসুর আমিরুল ইসলামের ছেলে আলম মিয়া (২৮) ঘর মুছার কথা বলে একই এলাকার শারীরিক স্কুল ছাত্রীকে নিজ ঘরে ডেকে নিয়ে ধর্ষণ করে।

আড়াইহাজারে স্থানীয় একটি স্পিনিং মিলের এক শ্রমিককে ৫ মে আটকে রেখে ধর্ষণ করা হয়েছে। এ ঘটনায় ধর্ষিতার মা বাদী হয়ে ৮ মে আল-আমিন নামে এক যুবককে আসামি করে একটি মামলা করেছেন। তবে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করতে পারেনি। স্থানীয় পর্যায়ে বিষয়টি মিমাংশা করায় ব্যর্থ হয়ে মামলাটি করা হয়েছে। ধর্ষক নরসিংদীর মাধবদী থানার চৌঘরিয়া গ্রামের আফাজ উদ্দিনের ছেলে বলে জানা গেছে।

সোনারগাঁয়ের সাদিপুর ইউনিয়নে জামায়াত নেতা মাওলানা আবুল কালাম মোল্লার বিরুদ্ধে ১ম শ্রেণির এক মাদ্রাসা ছাত্রকে বলাৎকারের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় ওই ছাত্রের পিতা বাদি হয়ে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। এদিকে স্থানীয় প্রভাবশালীরা ঘটনাটি মিমাংশার মাধ্যমে ধামাচাপা দেয়ার জন্য উঠে পড়ে লেগেছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

থানায় দায়েরকৃত অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, উপজেলার সাদিপুর গ্রামের আব্দুর রহমান মোল্লার ছেলে মাওলানা আবুল কালাম মোল্লা সাদিপুর গ্রামে তাফহিমুল উম্মাহ আইডিয়াল মাদ্রাসা নামে একটি মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান শিক্ষক। তিনি এই মাদ্রাসার প্রথম শ্রেণির এক ছাত্রকে (১০) বিগত তিন মাস যাবত ভয়ভীতি দেখিয়ে জোরপূর্বক বলৎকার করায় উক্ত ছাত্রের কোমড় ও পায়ু পথে তীব্র ব্যথার সৃষ্টি হয়। এ ঘটনায় ওই ছাত্রের অভিভাবকরা বিষয়টি সাধারণ অসুখ মনে করে তাকে ডাক্তার দ্বারা চিকিৎসা করায়। এদিকে গত ১ মে দুপুর দেড়টার দিকে ছাত্রটি বাড়িতে এসে কোমড় ও পায়ু পথের তীব্র ব্যথায় চিৎকার শুরু করলে তার পিতা-মাতা ও প্রতিবেশিরা তাকে এ বিষয়ে কঠোরভাবে জিজ্ঞাসা করে। এসময় সে বলৎকারের ঘটনা খুলে বলে।

সিদ্ধিরগঞ্জে পুলিশের এএসআই পরিচয়ে দুই সন্তানের জননী এক গৃহবধুকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ৬ মে রাতে লম্পট রনিকে গ্রেফতার করে পুলিশ। ৭ মে বিকেলে এএসআই পরিচয়দানকারী রফিকুল ইসলাম ও রনির বিরুদ্ধে বাদি হয়ে মামলা দায়ের করেছে ধর্ষণের শিকার ওই গৃহবধূ। গ্রেফতারকৃত রনি (২৫) সিদ্ধিরগঞ্জের আদমজী নতুন বাজার এলাকার বিল¬ালের ছেলে।

বন্দরে ১২ বছরে এক প্রতিবন্ধী কিশোরী ধর্ষণের ঘটনার ২ দিন পর থানায় মামলা দায়ের হয়েছে। ৬ মে রাতে ধর্ষিতা মা বাদী হয়ে বন্দর থানায় এ মামলা দায়ের করেন। ধর্ষণের ঘটনার পর থেকে লম্পট ধর্ষক ভটভটি চালক আবুল হোসেনসহ (৪০) তার পরিবার পলাতক রয়েছে। পুলিশ ধর্ষিতাকে উদ্ধার করে মেডিকেল পরীক্ষার জন্য নারায়ণগঞ্জ ১০০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে প্রেরণ করেছে। এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, ৩ মে বৃহস্পতিবার সকালে বন্দর উপজেলার কলাগাছিয়া ইউনিয়নস্থ নরপরদী এলাকায় ১২ বছরে প্রতিবন্ধী কিশোরী মেয়েকে বিস্কুট দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে কৌশলে মিয়ারবাগস্থ আব্দুল খালেক মিয়ার লম্পট ছেলে আবুল হোসেন তার বসত ঘরে নিয়ে যায়। পরে লম্পট ভটভটি চালক আবুল হোসেন প্রতিবন্ধী কিশোরীকে একা পেয়ে ধর্ষণ করে। পরে ধর্ষিতা বিষয়টি তার পরিবারকে জানায়।

সদর উপজেলার ফতুল্লার বক্তাবলীর রামনগরে আম কুড়িয়ে দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে ৬ বছরের এক স্কুল ছাত্রী শিশুকে ধর্ষনের চেষ্টার ঘটনায় এখনো পুলিশ মামলা নেয়নি। এমনকি লম্পট আজিজ ওরফে কানা আজিজকে এখনো গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ। তবে শিশুর মা বাদী হয়ে ফতুল্লা মডেল থানায় অভিযোগ দায়ের করার চারদিন অতিবাহিত হলেও পুলিশ মামলা নিতে গরিমশি করছে বলে অভিযোগ এলাকাবাসীর।

নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
Shirt Piece

ফিচার -এর সর্বশেষ