৬ আষাঢ় ১৪২৫, বুধবার ২০ জুন ২০১৮ , ৫:৩২ অপরাহ্ণ

নারায়ণগঞ্জে এবার ‘আর্জেন্টিনা বাড়ি’


স্পেশাল করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ

প্রকাশিত : ০৮:৩৮ পিএম, ১১ জুন ২০১৮ সোমবার | আপডেট: ০২:৩৮ পিএম, ১১ জুন ২০১৮ সোমবার


নারায়ণগঞ্জে এবার ‘আর্জেন্টিনা বাড়ি’

দূরত্ব যতই হোক ভালোবাসা বলে কথা। প্রতি চার বছর পরপর এ ভালোবাসার মাত্রাটা বেড়ে যায়। খেলায় হেরে যাক কিংবা জিতে যাক পছন্দের রদবদল হয় না। আর তাই প্রজন্মের পর প্রজন্ম নতুন করে এর প্রেমে যুক্ত হচ্ছে। তবে বিগত কয়েক বছরের তুলনায় এবারের উন্মাদনা একটু বেশি দেখা যাচ্ছে নারায়ণগঞ্জের ফুটবল প্রেমীদের। তার অংশ হিসেবে ব্রাজিল সাপোর্টারের পর নতুন করে আর্জেন্টিনার সাপোর্টারও পতাকার রঙে বাড়ি রাঙিয়েছেন। ব্রাজিল সাপোর্টার বাড়ির নাম ‘ব্রাজিল বাড়ি’ দিলেও আর্জেন্টিনার সাপোর্টার তেমন কোন নাম না দেওয়ার পরও নতুন করে আর্জেন্টিনা বাড়ি হিসেবে পরিচিতি পেয়েছে মাত্র কয়েক দিনে।

১১ জুন সোমবার দুপুরে শহরের গলাচিপা আর্জেন্টিনা সাপোর্টারের বাড়ি যাওয়ার পথে দেখা গেলে রাস্তার উপরে এক বাড়ি থেকে অন্য বাড়িতে রশি দিয়ে বেঁধে ঝুলানো হয়েছে ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনা সাপোর্টারের ব্যানার ফেস্টুন ও দলের পতাকাও। কেউ ঝুলিয়েছেন বারান্দায় আবার কেউ ছাদে আবার কেউ দোকানের কোনায়। গলিতে ঢুকলে মনে হলে আসন্ন ঈদের চেয়ে বিশ্বকাপ ফুটবলের আনন্দে মেতেছেন ভক্তরা। এর ফাঁকে গত বিশ্বকাপে জার্মানির বিপক্ষে ব্রাজিলের সাত গোরে পরাজয় এখন ‘সেভেন আপ’ বলে ব্রাজিল সমর্থকদের ক্ষেপাতে দেখা যায়। পরক্ষণেই সাদা কালা টেলিভিশনের যুগে কাপ নেওয়ার পর সেটা নিয়েও বির্তক রয়েছে এমন ভাবেও ক্ষেপাতে দেখা যায় ব্রাজিল সমর্থকদের। ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনা সমর্থকদের ফাঁকে জার্মানি, স্পেন ও ফ্রান্সেরও পতাকা ঝুলতে দেখা গেছে। তবে এ নিয়ে তাদের কোন ভাবে ক্ষেপাতে বা কথা বলতে দেখা যায়নি।

এসব কিছু দেখতে ও শোনতে শুনতেই আর্জেন্টিনার পতাকার সাদা ও আকাশি রঙে সাজানো আউয়াল মেম্বারের বাড়ি যেটাকে এখন আর্জেন্টিনা বাড়ি হিসেবে গলাচিপা এলাকার বাসিন্দা ও রিকশার চালকেরা চিনে। বাড়িটির সীমানা প্রাচীর, পেয়ারা গাছ, গেট সহ সম্পূর্ণ বাড়িটি একই রঙে সাজানো হয়েছে। এছাড়াও বাড়ির বাইরে বড় করে ব্যানের ঝুলানো হয়েছে আর্জেন্টিনা সমর্থক গোষ্ঠী লেখা শুভেচ্ছা বার্তা। এছাড়াও বাড়ির ছাদেও আছে দুইটি পতাকা ও বাড়ির সামনে বাংলাদেশের পতাকা।

বাড়ির পাশের দোকানদার রুবেল মিয়া বলেন, মাত্র এক সপ্তাহ হয় বাড়িটা রঙ করছে। এ বাড়ির ও এখানকার কয়েকজন দোকানদার সবাই আর্জেন্টিনা সাপোর্টার। তাই সকলের মিলে সিদ্ধান্ত নিয়ে এ রঙ করেছে।

আর্জেন্টিনা বাড়ি হিসেবে পরিচিত বাড়ির মালিকের নাম মো. আউয়াল। তবে তিনি মেয়ে ও  জামাতা ও নাতীদের নিয়ে এক সঙ্গে বসবাস করেন। বাড়িটির মূলত রঙ করেছেন জামাতা মো. আফজাল মুন্সী। তিনি পেশায় একজন ভবন ও ফার্নিচারের রঙে ঠিকাদার।

আফজাল মুন্সী বলেন, গত বিশ্বকাপের সময় ঢাকা ছিলাম। তবে এখন নারায়ণগঞ্জে বসবাস করি। দলের সমর্থন করি সেই জন্য পতাকার রঙে বাড়ি করেছি। বিশেষ করে ব্রাজিল বাড়ির পর এ আগ্রহটা তৈরি হয়। ১০ থেকে ১২ দিন আগে এর রঙয়ের কাজ শেষ হয়েছে। এখন আর্জেন্টিনা ও বিভিন্ন লেখা বাকি আছে। সোমবার সব কাজ শেষ হয়ে যাবে। বাড়িটি রঙ করতে ব্যয় হয়েছে ১২ থেকে ১৫ হাজার টাকা। যেহেতু আমি নিজেই রঙের কাজ করি সেহেতু কম।

তিনি আরো বলেন, আমার দুই ছেলে মুন্না ও আশরাফুল সহ স্ত্রী ও শ্বশুর ৫জনই আর্জেন্টিনার সমর্থক। তাই খেলা শুরু হওয়ার পর থেকে বড় পর্দায় খেলা দেখার ব্যবস্থা করা হবে। এছাড়াও আরো আয়োজন করা হবে। আশা করছি এবার আর্জেন্টিনাই বিশ্বকাপ জিতবে।’

গলাচিপা এলাকার আর্জেন্টিনা সমর্থক গোষ্ঠির সদস্য নাহিদ বলেন, বিশ্বকাপ খেলা উপলক্ষে আর্জেন্টিনা সাপোটারের পক্ষ থেকে একটি আনন্দ র‌্যালী করা হবে। এর জন্য প্রস্তুতি চলছে। ইতোমধ্যে এলাকায় আর্জেন্টিনা বাড়ি হওয়ায় আমাদের মধ্যে আরো উৎসাহ উদ্দীপনা বেড়ে গেছে। আমাদের আশা এবার আর্জেন্টিনাই বিশ্বাকাপ নিবে।

প্রসঙ্গত ফতুল্লার লালপুর এলাকায় জয়নাল আবেদীন টুটুলের মালিকানাধীন একটি বাড়ি ব্রাজিলের পতাকার রঙে সাজানো হয়। এমনকি বাড়িটির প্রতিটি অংশে ব্রাজিলের কোন কোন চিহ্ন রয়েছে। এছাড়াও বাড়িটির নামকরণ করা হয় ব্রাজিল বাড়ি নামে। ৭ তলা বাড়িটির পুরোটাতেই অঙ্কিত হয়েছে ব্রাজিলের পতাকার রঙে।

নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
Shirt Piece

ফিচার -এর সর্বশেষ