১০ আশ্বিন ১৪২৫, বুধবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮ , ১:৫৪ পূর্বাহ্ণ

এক ধাক্কায় সবার স্বপ্ন শেষ!


সিটি করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ

প্রকাশিত : ০৭:১৫ পিএম, ১৯ আগস্ট ২০১৮ রবিবার


এক ধাক্কায় সবার স্বপ্ন শেষ!

‘ভাই আমার সব শেষ। এ গরুর মালিকদের কি জবাব দিব। আমারে বিশ্বাস করে গরুগুলো দিয়েছিল। ভালো বিক্রি হলে তাদের ভালো দাম দিবো এ কথা বলে নিয়ে আসছি। এখন আমার সব শেষ করে দিলো। একটা ধাক্কায় সবার স্বপ্ন শেষ হয়ে গেছে।’

১৯ আগসট রোববার দুপুরে ফতুল্লার লঞ্চ ঘাট এলাকায় গরু ব্যবসায়ী সিরাজুল ইসলাম গণমাধ্যমের কর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন। কথা বলতে বলতে দুই চোখ দিয়ে জল পরতে থাকে তারা। এক বার দুই বার হাত দিয়ে চোখ মুছলেও পরে তিনি কান্না শুরু করেন।

এর আগে টাঙ্গাইল থেকে ৩১টি গরু নিয়ে বেপারীরা ফতুল্লার ডিআইটি মাঠে অস্থায়ী পশুর হাটের জন্য আসছিল। শনিবার সন্ধ্যা ৭টায় ট্রলারটি ফতুল্লা লঞ্চঘাটের সামনে আসলে এমভি ধুলিয়া-১ নামে লঞ্চের ধাকায় ডুবে যায়। এসময় ৫টি গরু পাড়ে উঠতে পারলেও বাকি ২৬টি নিখোঁজ ছিল।

রোববার দুপুর পর্যন্ত ফতুল্লা লঞ্চ ঘাট সংলগ্ন বুড়িগঙ্গা নদীতে একেক করে ২১টি মৃত গরু ট্রলারটি সহ ভেসে উঠে। তবে এখনও নিখোঁজ রয়েছে আরো ৫টি গরু।

ফতুল্লা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মঞ্জুর কাদের জানান, ডুবে যাওয়া ট্রলারটি ঘটনাস্থল থেকে কয়েক শ’ গজ দূরে রোববার দুপুরে গরু সহ ভেসে উঠলে স্থানীয়রা পুলিশকে জানায়। পরে পুলিশ তা উদ্ধার করে তীরে নিয়ে আসে। ভেসে উঠা ট্রলারে ২১টি মৃত গরু বাঁধা অবস্থায় পাওয়া যায়।

আবেগে আপ্লুত গরু ব্যবসায়ী সিরাজুল ইসলাম বলেন, আমার নিজের কোন গরু না। আমাদের এলাকার কৃষক ও খামারীদের কাছ থেকে গরুগুলো নিয়ে আসছি। তাদের হাতে ৫ থেকে ৬ হাজার করে টাকা দিয়ে ভালো দামে বিক্রি করতে পারলে ভালো টাকা দিবো। তবে এমনটা প্রতিবছরই করি। ভালো বিক্রি হয় বলে যেমন ডিআইটি মাঠের হাটে আসি তেমনি তাদেরও টাকা দিয়ে দেই। যার জন্য গত ৭ বছর ধরে তারা আমাকে গরু দিয়ে দেয়। কিন্তু কি দুর্ভোগ এবার এমন বড় ক্ষতি হয়ে গেছে।’

তিনি বলেন, এবার শুরুটাই ভালো হয়নি। ৩১টি গরু নিয়ে রওনা দেওয়ার সময়ই একটি গরু মারা যায়। সেটাকে নদীতে ফেলে দিয়ে ৩০টা গরু নিয়ে আসছি। আর ঘাটে পৌছানোর আগেই এতো বড় ধাক্কাটা দিলো। আমি তাদের কাছে মুখ দেখামু কেমনে। তাদের কি জবাব দিমু।

তিনি জানান, প্রতিটি গরু দেশী ও আকারে বড় ছিল। সর্ব নিম্ন ৮০ হাজার থেকে সর্ব্বোচ্চ ১ লাখ ২০ থেকে ৩০ হাজার টাকায় বিক্রি হতো। এতে প্রায় ৩০ লাখ টাকার গরু ছিল।’

নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
Shirt Piece

ফিচার -এর সর্বশেষ