নারায়ণগঞ্জে বাড়ছে বেপরোয়া রিকশা

স্পেশাল করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৭:৪৯ পিএম, ৯ মে ২০১৯ বৃহস্পতিবার

নারায়ণগঞ্জে বাড়ছে বেপরোয়া রিকশা

নারায়ণগঞ্জের সিটি করপোরেশনের এলাকায় বেপরোয়া হয়ে উঠেছে রিক্সাচালকেরা। তবে সবাই নয় এর মধ্যে ব্যতিক্রমও রয়েছে। রিকশা ভাড়া, নেমপ্লেটহীন রিকশা, যাত্রীদের সাথে খারাপ ব্যবহার এমনকি ইঞ্জিনের রিক্সাও নাসিক এলাকায় চালিয়ে অহরহ দুর্ঘটনা ঘটাচ্ছেন চালকেরা।

সরেজমিনে দেখা যায়, একের পর এক নেমপ্লেটহীন রিক্সা প্রবেশ করে শহরে চলাচল করছে। তবে এসব রিক্সা আটকানোর মত কেউ নেই। নাসিকের অভিযান কিংবা ট্রাফিক পুলিশে চোখ ফাঁকি দিয়ে চলছে এসব রিক্সা।

প্রতিদিন রিক্সার গ্যারেজগুলো থেকে মালিকের কাছ থেকে ইঞ্জিনবিহীন রিক্সা ১২০ টাকা জমায় সারাদিন এবং ৩শ টাকা জমায় মোটরের রিক্সা সারাদিন চালাতে বের করে চালকেরা। এর মধ্যে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করে তারা। সকাল থেকে রাত পর্যন্ত যাত্রীদের পকেট থেকে অতিরিক্ত ভাড়া গুনতে বাধ্য করেন তারা। এর মধ্যে মোটরের ইঞ্জিন চালিত রিক্সাগুলো শহরে বেপরোয়া গতিতে চালানোর কারণে অহরহ ঘটছে দুর্ঘটনা।

এদিকে নাসিকের কোন নির্ধারিত ভাড়া তালিকা না থাকায় নাসিক এলাকায় এমন বেপরোয়া ভাড়া দাবি করতে পারছেন চালকরা। এ নিয়ে দ্রুত নাসিকের ভাড়া নির্ধারণ ও উক্ত ভাড়ার প্রয়োগের দাবি করেছেন সাধারণ যাত্রিরা।

ইঞ্জিনের রিক্সা চালক আব্দুর রহমান জানান, ৩০০ টাকায় প্রতিদিন মালিকের কাছ থেকে সারাদিন রিক্সা ভাড়া নিয়ে চালান তিনি। এতে করে ইঞ্জিন থাকায় দ্রুত যাত্রী নিয়ে গন্তব্যে পৌছাতে পারেন তিনি, আর ভাড়াও বেশি পান সাথে লাভও বেশি হয়। তবে মাঝে মাঝে গতিতে চালানোর কারণে দুর্ঘটনায় পড়েন বলে জানান তিনি।

চালক মতিউর জানান, ১২০ টাকা জমায় রিক্সা ভাড়া নিয়ে সারাদিন চালান তিনি। এতে ভালোই আয় হয় তবে গরম ও বাজারে সকল কিছুর দাম বাড়ার পাশাপাশি ঘরভাড়া বেড়ে যাওয়ায় তিনি একটু চেয়ে আর কেউ দিতে না চাইলে জোর করেই কিছুটা বাড়তি ভাড়া আদায় করেন। সামনে ঈদ তাই একটু বেশি করে ভাড়া আদায় করেন বলে জানান তিনি।

যাত্রী কবিতা জানান, আমি চাষাঢ়া থেকে ডনচেম্বার এসেছি আমার কাছ থেকে ২৫টাকা ভাড়া রেখেছে যেখানে ১৫ টাকাই বেশি। এখন বাধ্য হয়েই অনেকটা জিম্মি হয়ে তাদের এ বাড়তি ভাড়া দিতে হচ্ছে আমাদের।

দ্রুত এ ব্যাপারে পদক্ষেপ নিতে সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি আহবান জানান যাত্রীরা।


বিভাগ : ফিচার


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও