যাত্রী দুর্ভোগের অপর নাম আনন্দ পরিবহন

সিটি করেসপন্ডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৮:২৮ পিএম, ২৮ মে ২০১৯ মঙ্গলবার

যাত্রী দুর্ভোগের অপর নাম আনন্দ পরিবহন

ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ রুটের (পুরাতন) পাগলা সড়কে একমাত্র চলাচলের পরিবহন আনন্দ বাস। সেই আনন্দ বাসগুলোর বাইরে দিয়ে রঙ মাখা থাকলেও ভিতরে অবস্থা ভয়াবহ ও করুণ। অতিরিক্ত টিকেটের দাম দিয়ে এই পাগলা সড়কের চাষাঢ়া, মাসদাইর কবরস্থান, পঞ্চবটি, ফতুল্লা, দাপা, আলীরগঞ্জ, পাগলা, মুন্সিখোলা সহ আরো স্থানগুলোতে চলাচল করে যাত্রীরা। প্রচন্ড গরমে মধ্যে বিনা ফ্যান ও পোকা ছড়ানো সিটগুলোতে যাত্রীরা সুস্থ হয়ে উঠলেও অসুস্থ হয়ে বাস থেকে নামে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

সরেজমিনে দেখা গেছে, আনন্দ পরিবহনের প্রতিটি বাসের ফ্যানের স্থানে ফ্যানগুলো নাই। সিটগুলো ছিড়ে ফেটে ও পোকা ছড়ানো। বাসের ভিতরে প্রাকৃতিক দেয়া বাতাস ছাড়া কোন বাসা ভিতরে আসে না। বরং অতিরিক্ত যাত্রী নেয়া কারণে প্রচন্ড গরমে শিশু, বৃদ্ধ, পুরুষ-মহিলা গরমে অতিষ্ঠ হয়ে পড়ে।

বাসের যাত্রী আছিয়া জানান, তার মেয়ের বাড়ী বন্দরে। প্রায় সময় পাগলা থেকে মেয়েকে দেখতে আনন্দ বাসে উঠতে হয়। বাসে উঠার আগে গরমের ব্যবস্থা নিয়ে উঠতে হয়। সেই ব্যবস্থা হলো হাত পাখা নিয়ে বাসে উঠি। বাসের টিকেট অতিরিক্ত টাকা নিলেও বাসে যাত্রীদের উপচে পড়া ভীড়ে কারণে শিশু কিশোর গরমে ক্লান্ত হয়ে পড়ে। অনেকে রোজা মধ্যে বমি করতে দেখা গেছে। আসলে আনন্দ পরিবহনের বাস একমাত্র বাস এই লাইনে চলাচলে কারণে তাদের বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা নেয় না প্রশাসন।

বাসের আরেক যাত্রী আরিফ কনক জানান, পরিবারের সদস্যদের নিয়ে ঈদ মার্কেটে আসছিলাম। এমনই মার্কেটগুলো গরমে শিকার পরিবারের সদস্যরা। তার মধ্যে ফতুল্লার টিকেট নিয়ে আনন্দ বাসে উঠলাম। উঠে দেখি বাসের কোন ফ্যানই নাই। কিভাবে চলে এই বাস, দেখার কি কেউ নাই। চাঁদা তুলে কাকে খুশি করায় এই পরিবহন নেতারা। মানুষকে দুর্ভোগে রেখে কখনো মানুষ কোটিপতি হতে পারবে না। আনন্দ পরিবহনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য স্থানীয় এমপি শামীম ওসমান, জেলা প্রশাসক ও এসপি প্রতি দৃষ্টি আকর্ষন করি।

বাসের চালক ও ড্রাইভারকে এই ফ্যানের বিষয়ে জিজ্ঞাসা করলে রীতিমত ক্ষেপে উত্তর দেন। এই কাজ আমাদের? যাদের কাজ তাদের জিজ্ঞাসা করেন। কার জিজ্ঞাসা করলে, আবারো ক্ষেপে উত্তর দেয়- বাসে উঠলে উঠবেন। না উঠতে চাইলে বেবি বা অটো দিয়ে বাসায় যান।


বিভাগ : ফিচার


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও