নারায়ণগঞ্জে টিয়া ময়না কচ্ছপ বানরসহ ১৪৮ বন্যপ্রাণী উদ্ধার (ছবি সহ)

স্পেশাল করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৬:৫৫ পিএম, ২৮ জুন ২০১৯ শুক্রবার

নারায়ণগঞ্জে টিয়া ময়না কচ্ছপ বানরসহ ১৪৮ বন্যপ্রাণী উদ্ধার (ছবি সহ)

নারায়ণগঞ্জে বিভিন্ন প্রজাতির ১৪৮ বন্যপ্রাণী উদ্ধার করেছে বন অধিদপ্তরের বন্য প্রাণী অপরাধ দমন ইউনিট। ২৮ জুন শুক্রবার বেলা ১২টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত বন্য প্রাণী অপরাধ দমন ইউনিটের পরিদর্শক অসীম মল্লিক ও আব্দুল্লাহ আল সাদিকের নেতৃত্বে ৫ সদস্যের একটি দল ওই অভিযান চালায়।

শহরের চাষাঢ়া, বন্দরের নবীগঞ্জ ও ফতুল্লা ডিআইটি মাঠ এলাকাতে পরিচালিত ওই অভিযানে ১৪৮টি বন্য প্রাণী উদ্ধার করা হয় যার মধ্যে রয়েছে ২৫টি টিয়া, ৩টি ময়না, ৪টি শারলি হাঁস, ২০টি মুনিয়া, ২টি কালিম এবং ১৭টি ঘুঘু সহ ৮১টি দেশীয় পাখি এবং ২টি বানর, ৬৫টি কচ্ছপ (কড়ি কাইট্টা বা ওহফরধহ জড়ড়ভবফ ঞরৎঃষব)।

বন্য প্রাণী অপরাধ দমন ইউনিটের পরিদর্শক অসীম মল্লিক জানান, নারায়ণগঞ্জে কয়েকটি জায়গায় আইন লঙ্ঘন করে বন্য প্রাণী কেনাবেচা হচ্ছে এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান পরিচালনা করা হয়। এসময় ডিআইটি মাঠে পাখির হাটে ও বন্দর এলাকায় দোকান মালিক পাওয়া যায়নি। অভিযানের টের পেয়ে আগেই তাঁরা সটকে পড়েছে। চাষাঢ়ায় কচ্ছপ বিক্রেতা অঙ্গীকার করেছে, ভবিষ্যতে কখনো বন্যপ্রাণী আর বিক্রি করবেন না। ফলে এ জেলায় প্রথমবারের মতো অভিযান হওয়ায় কোনো রকম শাস্তি না দিয়ে শুধু পাখি ও প্রাণী গুলো জব্ধ করা হয়েছে। তবে বিক্রেতাদের সতর্ক করে দেওয়া হয়েছে, এরপর তাঁরা বন্য প্রাণী কেনাবেচা করলে বন্য প্রাণী আইনে তাদের এক বছরের জেল ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা অথবা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত করা হবে।

তিনি আরো জানান, জব্দ করা বন্যপ্রাণীগুলো উন্মুক্ত জলাশয় কিংবা বনে অবমুক্ত করে দেয়া হবে। বন্যপ্রাণী রক্ষায় এ ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে।


বিভাগ : ফিচার


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও