‘কাঁদলেন, কাঁদালেন চিত্রনায়ক সাত্তার’

সিটি করেসপন্ডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৯:৫৮ পিএম, ১৭ জুলাই ২০১৯ বুধবার

‘কাঁদলেন, কাঁদালেন চিত্রনায়ক সাত্তার’

দুইটা পা দিয়ে আর চলাফেরা করতে পারেন না। সারাক্ষণ বিছানায় শুয়ে কাটাতে হয়। তাই ইচ্ছা থাকালেও কারো সঙ্গে দেখা করা কিংবা বাইরে ঘুরে বেড়ানো সম্ভব নয়। এসব কারণে দিন দিন মনের মধ্যেই অসুখ বাসা বেধেছে। আর সেই অসুখটাই যেন সারিয়ে দিয়েছেন নারায়ণগঞ্জ আর্টিস্ট ফাউন্ডেশন।

যারা অসুখ সারিয়ে দেওয়ার কথা হচ্ছিল তিনি চিত্র নায়ক সাত্তার। কারণ ১৬ জুলাই মঙ্গলবার বিকেলে নারায়ণগঞ্জ আর্টিস্ট ফাউন্ডেশন সদস্যরা যখন তাকে দেখতে তাঁরই বাসায় যায় তখন দুচোখ বেয়ে অশ্রু জড়ে পড়ছিল। প্রত্যেকের নাম ধরে ডেকে কাছে নিয়ে কান্না করছিলেন তিনি। যেমন নিজে কেঁদেছেন তেমনি সদস্যদের ও কাঁদিয়েছেন তিনি। পরে নারায়ণগঞ্জ আর্টিস্ট ফাউন্ডেশন সদস্যরা সবসময় খোঁজখবর নেয়া ও দেখা করার আশ্বাস দিলে শান্ত হন নায়ক সাত্তার।

এসময় উপস্থিত ছিলেন নাআফের প্রতিষ্ঠাতা আহবায়ক কণ্ঠশিল্পী জি এম রহমান রনি, সাংবাদিক ও চিত্র পরিচালক শাহজাহান শামীম, কণ্ঠশিল্পী সীমা সিদ্দিকী, অভিনেতা মাসুদ রানা মিন্টু, নৃত্যশিল্পী ও প্রশিক্ষক সামিরা সিদ্দিকী, আলোর তরী পত্রিকার সম্পাদক মিকাইল ইসলাম রাজ, সাংবাদিক সোনিয়া দেওয়ান প্রীতি, নীলা আহমেদ নিশি, মাহাবুবুর রহমান, কণ্ঠশিল্পী আজমল হোসেন বাবু, আলোর ধারার সাংবাদিক খাদিজা আক্তার ভাবনা প্রমূখ।

জি এম রহমান রনি জানান, চিত্র নায়ক সাত্তার অনেক গুনী শিল্পী। তিনি আমাদের অভিভাবক। কিন্তু তিনিই আজ অসুস্থ। বিছনায় জীবন যাপন করছেন। ওনাকে দেখলে মনে হলো অসুখটা যেন মনে ছিল। আর আমাদের দেখে সেই অসুখটাই যেন সেরে গেছে। আমরা সব সময় ওনার পাশে আছি ও থাকবো। আমার ওনার সুস্থ্যতার জন্য নারায়ণগঞ্জবাসী তথা সকলের কাছে দোয়া চাই।

তিনি আরো বলেন, শুধু চিত্র নায়ক সাত্তার নয় আমরা সকাল শিল্পীদের বিপদে আপদে পাশে থাকতে চাই। আমরা সেই লক্ষ্য নিয়ে কাজ করে যাচ্ছি।


বিভাগ : ফিচার


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও