সড়ক সংস্কারেও নির্বাচনী হিসেব নিকেশ

বন্দর করেসপন্ডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৭:১১ পিএম, ৩১ আগস্ট ২০১৯ শনিবার

সড়ক সংস্কারেও নির্বাচনী হিসেব নিকেশ

বন্দর উপজেলার কলাবাগ থেকে চিনারদী রাস্তাটি ভুতুড়ে রাস্তায় পরিণত হয়েছে। একাধিকবার ওই এলাকার স্থানীয় জনপ্রতিনিধি সংস্কারের আশ্বাস দিলেও কার্যত কোন পদক্ষেপ নিচ্ছেনা বলে অভিযোগ এলাকাবাসীর। এখন ওই এলাকায় বসবাসরত মানুষের এ রাস্তাটি মরণফাঁদ হয়ে দাঁড়িয়েছে।

এলাকাবাসী ক্ষোভ প্রকাশ করে জানিয়েছেন, ভোটের হিসেব নিকেশেই এ রাস্তাটির সংস্কার হচ্ছেনা। গত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে রফিকুল নৌকা প্রতীকে ৬ হাজার ৬শ ১২ ভোট পান। আর জয়ী এহসান উদ্দিন আহম্মেদ লাঙ্গল প্রতীকে ৮ হাজার ৩শ ৩৯ ভোট পায়। আর এর মধ্যে কলাবাগ কেন্দ্রে অন্যান্য কেন্দ্র অপেক্ষা কম ভোট পান। ঠিক সেই আক্রোশগত কারনেই দীর্ঘদিন ধরে এ রাস্তাটির সংস্কার কাজ হচ্ছেনা বলে জানান তারা।

সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, বন্দর ইউনিয়নের কলাবাগ হতে চিনারদী রাস্তায় নানা দুর্ভোগের চিত্র। এ রাস্তাটি দিয়ে প্রায় চলাচল করে প্রায় সময়ই অনাকাংখিত দুর্ঘটনার কবলে পড়ছে পথচারীরা। বিভিন্ন স্থানে খানা-খন্দকে বড় বড় গর্ত সৃষ্টি হয়েছে। বৃষ্টি হলেই পুরো রাস্তাটি কাদায় পরিপূর্ণ হয়ে যায়। কোন যানবাহন ওই রাস্তা দিয়ে সহজে যেতে চায়না। গেলেও বেশি ভাড়া দিতে হয় যাত্রীদের।

বন্দর কলাবাগ এলাকার নাম প্রকাশ না করার শর্তে একজন শিক্ষক জানান, কলাবাগ হতে চৌধুরীবাড়ী রাস্তাটি ভুতুড়ে রাস্তা। দীর্ঘদিনের এ ভোগান্তির যেন অন্ত নেই। জনপ্রতিনিধিদের একাধিকবার বলেও কোন লাভ হয়নি। সম্ভব ভোটের হিসেব নিকেশেই এ রাস্তাটি সংস্কার করছেনা জনপ্রতিনিধিরা। নির্বাচনের সময় এলেই তারা লোক দেখানো সংস্কার কাজে ব্যস্ত হয়ে থাকে। এমন জনপ্রতিনিধি থাকার চেয়ে না থাকাই ভাল।

বন্দর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এহসান উদ্দিনের সাথে আলাপকালে তিনি জানান, টেন্ডার হয়ে গেছে অচিরেই বন্দর ইউনিয়নের এ রাস্তাটি সংস্কারের হবে। সাংসদ সেলিম ওসমানের দেয়া বরাদ্দ অনুযায়ী এ রাস্তাটির উন্নয়ন কাজের সংস্কারও উল্লেখ রয়েছে। শীঘ্রই এর সুফল আমরা পাব।


বিভাগ : ফিচার


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও