করোনা ঝুঁকিতে ৯১২ পরিচ্ছন্ন কর্মী

সিটি করেসপন্ডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৪:০৪ পিএম, ২৬ মার্চ ২০২০ বৃহস্পতিবার

করোনা ঝুঁকিতে ৯১২ পরিচ্ছন্ন কর্মী

সরকারি হাসপাতাল থেকে শুরু করে বাজার, গৃহস্থলিসহ সব ধরনের বর্জ্য সংগ্রহে কাজ করে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের পরিচ্ছন্নকর্মীরা। যে কারণে করোনায় আক্রান্ত রোগী কিংবা হোম কোয়ারেন্টিনে থাকা কোনো ব্যক্তির ব্যবহৃত জিনিসের সংস্পর্শে এসে করোনায় আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি তাঁদের সব থেকে বেশি। তবে এমন পরিস্থিতিতেও পরিচ্ছন্ন কর্মীদের সুরক্ষায় কোনো ব্যবস্থা নেয়নি নাসিক। ফলে সারা বিশে যখন মরণঘাতি করোনাভাইরাসের আতঙ্ক বিরাজমান। এমন সময়েরও কোনো সুরক্ষা ব্যবস্থা ছাড়াই নগর পরিচ্ছন্নতার কাজ করে যাচ্ছে নাসিকের ৯১২ পরিচ্ছন্ন কর্মী।

সরেজমিনে শহরের চারারগোপ মোড়ে দেখা যায় কোনো সুরক্ষা ব্যবস্থা ছাড়া পরিচ্ছন্ন কর্মীদের কাজ করার দৃশ্য। বিভিন্ন জায়গা থেকে সংগ্রহ করে আনা ময়লা-আবর্জনা সেখানে অস্থায়ী ভাবে ডাম্প করে সেখান থেকে গাড়িতে তুলছিল একটি দল। যাদের কয়েকজনের মুখে মাস্ক থাকলেও অধিকাংশের মুখে সেই সুরক্ষা ব্যবস্থাটুকুও নেই। বিশ্বব্যাপী করোনার মহামারির খবর শোনার পরেও গ্লাভস, মাস্ক এবং বিশেষ পোষাক ছাড়াই পরিষ্কার করে যাচ্ছে তাঁরা।

পরিচ্ছন্ন কর্মীদের অভিযোগ পরিচ্ছন্ন করার জন্য তাঁদেরকে নির্দিষ্ট কোনো পোশাক, গ্লাভস কিংবা জুতা কিছুই দেওয়া হচ্ছে না। বাধ্য হয়ে তাঁদেরকে কোনো সুরক্ষা ছাড়াই কাজ করতে হচ্ছে।

নাম প্রকা্েয অনিচ্ছুক এক পরিচ্ছন্ন কর্মী নিউজ নারায়ণগঞ্জকে জানান, আমাদের জন্য কোনো পোশাক বা মাস্ক-গ্লাভস সিটি কর্পোরেশন থেকে দেয়নি। কিন্তু পোশাক না দিলে তো আর কাজ বন্ধ রাখা যাবে না। তাই বাধ্য হয়ে এভাবেই কাজ করছি। আমরা কয়েকজন মাস্ক ব্যবহার করি এগুলোও নিজেদের টাকায় কেনা।


বিভাগ : ফিচার


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও