ভুল চিকিৎসার শাস্তি তিরস্কার!

সিটি করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৮:২৫ পিএম, ৯ মে ২০১৮ বুধবার



ভুল চিকিৎসার শাস্তি তিরস্কার!

আড়াই বছরের শিশুর প্রেসক্রিপশনে একদিনে ৪টি উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন এন্টিবায়োটিক ক্যাপসুল লেখা নারায়ণগঞ্জ ১০০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের জরুরী বিভাগের চিকিৎসক গোলাম মোস্তফা ইমনের বিরুদ্ধে কোন ধরনের শাস্তিমূলক ব্যবস্থাই নেয়নি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। বরং ভুল চিকিৎসার মতো গুরুতর অপরাধ করলেও তাকে শুধুমাত্র তিরস্কার করা হয়েছে।

জানা গেছে, গত ২১ এপ্রিল মোঃ রিপন ও বিথি আক্তার দম্পত্তির রাহি নামের আড়াই বছর বয়সী এক কণ্যা শিশুকে মাথা ফেটে যায়। তাকে নারায়ণগঞ্জ ১০০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের জরুরী বিভাগে নেয়া হলে ওই শিশুটির মাথায় ৩টি সেলাই করে দেয়া হয়। পরে জরুরী বিভাগের চিকিৎসক গোলাম মোস্তফা ইমন ওই আড়াই বছরের শিশুর প্রেসক্রিপশনে হাই পাওয়ারের ক্যাপসুল লিখে দেন। এর মধ্যে ফ্লুক্সিক্যাপ নামের ৫০০ মিলিগ্রাম পাওয়ারের ক্যাপসুল লিখেছিলেন দিনে ৪টি করে যা এক সপ্তাহে অর্থাৎ ২৮টি খেতে বলেছেন। এছাড়া টডেল ১০ মিলিগ্রাম পাওয়ারের ক্যাপসুল লিখেছিলেন প্রতিদিন ৩টি করে ৫ দিনে ১৫টি এবং ইসাপ ২০ মিলিগ্রাম পাওয়ারের ক্যাপসুল প্রতিদিন ২টি করে ৫ দিনে ১০টি খেতে বলেছিলেন।

এদিকে ওই চিকিৎসকের কান্ডে হতবাক বনে যান রোগীর অভিভাবক স্বজন এবং ওষুধ ব্যবসায়ীসহ বিভিন্ন মহল। সাধারণত ৮ বছর বয়সী শিশুদের এন্টিবায়েটিক দেয়া হলেও সেটা ওজনের উপর নির্ভর করে দেয়া হয়। এছাড়া সাধারণত শিশুদের ইনজেকশন ও সিরাপ দিয়ে থাকেন চিকিৎসকরা।

গণমাধ্যমের পাশাপাশি সামাজিক যোগাযোগের জনপ্রিয় মাধ্যম ফেসবুকেও ওই চিকিৎসকের ভুল চিকিৎসার বিষয়টি ছড়িয়ে পড়লে জেলা জুড়েই চলছে ব্যপক সমালোচনা। এছাড়া অভিযুক্ত ওই চিকিৎসক গোলাম মোস্তফা ইমনের বিরুদ্ধে এর আগে চিকিৎসা দেয়ার বিষয়ে অনিয়ম, রোগী ও তার স্বজনদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করা, প্রয়োজনের অতিরিক্ত ওষুধ লেখা, বিভিন্ন ওষুধ কোম্পানীর রিপ্রেজেনটিভদের কাছ থেকে অনৈতিক সুবিধা নিয়ে দামী ওষুধ লেখাসহ নানাবিধ অভিযোগ তোলেন ভুক্তভোগীরা।

এদিকে গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশের পর গত ২৪ এপ্রিল সকালে অভিযুক্ত চিকিৎসক গোলাম মোস্তফা ইমনকে শোকজ করেন হাসপাতালটির চিকিৎসা তত্ত্বাবধায়ক (সুপার) ও জেলা সিভিল সার্জন ডা. এহসানুল হক। তবে শোকজ করা হলেও তার বিরুদ্ধে নেয়া হয়নি শাস্তিমূলক কোন ব্যবস্থা। বরং আগের মতোই হাসপাতালটির জরুরী বিভাগেই বহাল রয়েছেন দুর্নীতিবাজ চিকিৎসক ইমন।

হাসপাতালটির চিকিৎসা তত্ত্বাবধায়ক (সুপার) ও জেলা সিভিল সার্জন ডা. এহসানুল হক জানান, চিকিৎসক গোলাম মোস্তফা ইমন শোকজের জবাব দিয়েছেন। তাকে চাকরিবিধি মোতাবেক তিরস্কার করা হয়েছে যাতে ভবিষ্যতে আর কখনই এ ধরনের ঘটনা না ঘটে।


বিভাগ : স্বাস্থ্য


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও