নারায়ণগঞ্জে ৫০০ শয্যায় উন্নীতের কাজ শুরু, কাটছে গাছ ভাঙছে ভবন

৩ ভাদ্র ১৪২৫, রবিবার ১৯ আগস্ট ২০১৮ , ৮:০০ পূর্বাহ্ণ

নারায়ণগঞ্জে ৫০০ শয্যায় উন্নীতের কাজ শুরু, কাটছে গাছ ভাঙছে ভবন


স্পেশাল করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ

প্রকাশিত : ০৯:৩৩ পিএম, ১৩ জুন ২০১৮ বুধবার | আপডেট: ০৯:৩৪ পিএম, ১৩ জুন ২০১৮ বুধবার


নারায়ণগঞ্জে ৫০০ শয্যায় উন্নীতের কাজ শুরু, কাটছে গাছ ভাঙছে ভবন

নারায়ণগঞ্জ শহরের খানপুর এলাকার ৩০০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালকে ৫০০ শয্যায় উন্নীত করার জন্য কাজ শুরু হয়েছে। ইতোমধ্যে হাসপাতালের নতুন ভবনের জন্য জায়গা ও অর্থ বরাদ্দের কাজ শেষ।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, খানপুর ৩০০ শয্যা হাসপাতালের ১৪টি বড় গাছ ও ৬টি মাঝারি ধরনের গাছ কাটা হয়েছে। এসব গাছের কাটা অংশগুলো হাসপাতালের পিছন দিকে সারিবদ্ধ ভাবে সাজিয়ে রাখা হয়েছে। একই সঙ্গে হাসপাতালের পিছন দিকের একটি এক তলা ভবনও ভেঙে ফেলা হয়েছে।

খানপুর হাসপাতালে তৃতীয় শ্রেণীর কর্মকর্তা রহিম বলেন, দুই দিন ধরে দেখছি গাছগুলো কাটছে। পেছনে একটি ভবন ছিল সেটাও ভেঙে ফেলা হয়েছে। শুনেছি এখানে নাকি ১৫ তলা ভবন করা হবে। ৩০০ শয্যা হাসপাতাল থেকে ৫০০ শয্যা হাসপাতাল করা হবে। এতে করে মানুষের অনেক উপকার হবে। অনেক মানুষ এক সঙ্গে সেবা নিতে পারবেন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ১৯৮৬ সালে জাপানের অর্থায়ন ও প্রযুক্তিতে নির্মিত হয়েছিল নারায়ণগঞ্জ দুই’শ শয্যার বিশেষায়িত হাসপাতাল। এর পর সেটি বর্তমান সরকারের প্রথমদিকে ২০১৩ সালে তিনশ শয্যায় উন্নীত হয়। তিনশ শয্যায় উন্নীত হলেও দুই’শ শয্যার জনবল দিয়েই এতো দিন চলানো হয়েছে চিকিৎসা সেবা। এছাড়াও হাসপাতালে বর্তমানে বেড সংখ্যা রয়েছে ২৭১টি। তবে ২০১৭ সালের ২১ মার্চ একনেকের বৈঠকে খানপুর হাসপাতালকে ৫০০ শয্যায় উন্নীত করতে ৯০ কোটি টাকার অর্থ বরাদ্দ অনুমোদন করেন।

হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, খানপুর ৩০০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালের সি ব্লকে নতুন আধুনিক ১৫ তলা ভবন নির্মাণ করা হবে। সরকারী অর্থায়নে খানপুর ৩০০ শয্যা হাসপাতালকে ৫০০ শয্যা হাসপাতালে রূপান্তরিত করতে নতুন ওই ভবনটি নির্মাণ করা হবে। প্রথম ধাপে ১৫ তলা ফাউন্ডেশনে ভবনটি ৭তলা পর্যন্ত নির্মিত হবে। যার জন্য ব্যয় ধরা হয়েছে ১৩০ কোটি টাকা। ইতোমধ্যে ৭ তলা ভবন নির্মাণের জন্য ৭০ কোটি টাকা বরাদ্দ দিয়েছে সরকার। নতুন ভবনের সঙ্গে সেভায় যুক্ত হবে রেডিওলজি, আইসিইউ, কার্ডিওলজি ও বার্ন ইউনিট।

নির্মিত হতে যাওয়া নতুন ৭ তলা ভবনের নিচতলায় থাকবে গাড়ি পার্কিং, জরুরি বিভাগ, রেডিওলজি এবং সার্ভিস ব্লক, দ্বিতীয় তলায় কনসালন্টেন্ট প্যাথলজি, তৃতীয় তলায় প্রশাসনিক কার্যালয় ও প্যাথলজি, চতুর্থ তলায় অপারেশন থিয়েটার ও আইসিইউ, পঞ্চম তলায় কার্ডিওলজি ইউনিট, যষ্ঠ ও সপ্তম তলায় রোগীদের ওয়ার্ড, কেবিন, চিকিৎসকদের কক্ষ।  এছাড়াও থাকবে মুর্হুষ রোগী ও সাধারণ রোগীদের ব্যবহারের জন্য পৃথক লিফট। দ্বিতীয় ধাপে ভবনটি বাকি অংশ নির্মিত হলে সেখানে আরো অন্যান্য বিভাগ চালু করা হবে।

নারায়ণগঞ্জ ৩০০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. আবদুল মোতালেব মিয়া বলেন, গত সপ্তাহ থেকে ৫০০ শয্যায় উন্নীত করার কাজ শুরু হয়েছে। বর্তমানে ইঞ্জিনিয়ারকে দেখাতে লে আউটের (নীল নকশা) জন্য পরিস্কার পরিচ্ছন্ন করা হচ্ছে।’

নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
Shirt Piece

স্বাস্থ্য -এর সর্বশেষ