৩ আশ্বিন ১৪২৫, বুধবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ , ৬:১৩ পূর্বাহ্ণ

৩০০ শয্যা হাসপাতাল : ইট দিয়ে রাখা শয্যা অপসারণ


স্পেশাল করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ

প্রকাশিত : ০৮:১২ পিএম, ৩০ জুন ২০১৮ শনিবার


৩০০ শয্যা হাসপাতাল : ইট দিয়ে রাখা শয্যা অপসারণ

৩০ জুন শনিবার সকালে শহরের খানপুর এলাকার ৩০০ শয্যা হাসপাতালের ২২ নং মেডিসিন মহিলা ওয়ার্ডে গিয়ে দেখা গেছে এখনও দুটি বিছানার নিচে ইট দেওয়া আছে। তাছাড়া বাকি বিছানাগুলো সরিয়ে ফেলা হয়েছে। তবে ছাড়পোকা এখনও রয়ে গেছে হাসপাতালের রোগীরা জানিয়েছেন। ভাঙা বিছানাগুলো ওই ওয়ার্ডের পাশে জমিয়ে রাখা হয়েছে।

সম্প্রতি অনলাইন নিউজ পোর্টাল নিউজ নারায়ণগঞ্জ সহ স্থানীয় দৈনিক সহ জাতীয় পত্রিকায় নারায়ণগঞ্জ ৩০০ শয্যা হাসপাতালের ত্রাহি দশা শিরোনামে সংবাদ প্রকাশ হয়েছে। এরপর কর্তৃপক্ষ ওইসব বিছানা সরিয়ে ফেলার উদ্যোগ নেই।

সংবাদে উল্লেখ করা হয়, জাপানের সহযোগিতায় ১৯৮৬ সালে ২০০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতাল হিসেবে নির্মাণ করা হয়। পরে ৩০০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতাল হলেও এখানে শয্যা আছে ২৭১টি। যার মধ্যে ১৮নং গাইনী ওয়ার্ডে ৬৭টি। ১৯ নং সার্জারী ওয়ার্ডে ৬০টি। ২১ নং পুরুষ মেডিসিন ওয়ার্ডে ৫০টি। ২২ নং মেডিসিন মহিলা ওয়ার্ডে ৫৮টি। ২৩ নং শিশু ওয়ার্ডে ২৬টি। এছাড়াও ১০টি অন্যান্য রুমে। আর প্রত্যেকটি ওয়ার্ডে সর্বনি¤œ ২টি করে শয্যা ভাঙা। তবে এ তুলনায় ২২ নং মেডিসিন মহিলা ওয়ার্ডটিতে ১২টি বিছানার একটি করে পা ভেঙে গেছে। সেগুলো হলো  ৬, ১০, ১৮, ১৯, ২৭, ২৯, ৩০, ৩৩, ৩৬, ৪২, ৪৩ ও ৪৭ নাম্বার বিছানা। আর এসব বিছানার পায়ের নিচে ইট দিয়ে রাখা হয়েছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক নার্স বলেন, ক’দিন আগে কর্তৃপক্ষ বিছানাগুলো সরিয়েছে। অন্য একটি ভবন থেকে ৬টি বেড এনে এখানে দেওয়া হয়েছে। তবে বেড সংকট থাকায় সবগুলো পরিবর্তন করা সম্ভব হয়নি। যার ফলে এখনও ২টি বেডের নিচে ইট রয়েছে। তবে আগের চেয়ে এখন আরো বেশি পরিস্কার পরিচ্ছন্ন।

নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
Shirt Piece

স্বাস্থ্য -এর সর্বশেষ