হোমিওপ্যাথি গুণগত মান নিয়েই তার মান অর্জন করবে

সিটি করেসপন্ডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৮:৪৫ পিএম, ২৮ এপ্রিল ২০১৯ রবিবার

হোমিওপ্যাথি গুণগত মান নিয়েই তার মান অর্জন করবে

হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসা বিজ্ঞানের জনক ডা. স্যামুয়েল হ্যানিমেনের ২৬৪ জন্ম বার্ষিকী উদযাপন ও হোমিওপ্যাথিক ডক্টরস সোসাইটির অভিষেক অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ উপলক্ষ্যে ২৮ এপ্রিল রোববার জেলা সরকারী গণ গ্রন্থাগার মিলনায়তনে আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বাংলাদেশ হোমিওপ্যাথি বোর্ডের চেয়ারম্যান ডা: দিলীপ কুমার রায়, প্রধান বক্তা হিসেবে হোমিওপ্যাথি বোর্ডের রেজিস্টার কাম সেক্রেটারী ডা: মো: জাহাঙ্গীর আলম উপস্থিত ছিলেন।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ডিএইচএমএস ডক্টরস এসোসিয়েশনের সভাপতি ডা: শেখ মো: ইফতেখার উদ্দিন, নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএমএর সাধারণ সম্পাদক ডা: টি আই এম নূরুন্নবী, সরকারী হোমিওপ্যাথিক মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সিনিয়র মেডিকেল অফিসার ডা: শাহীন আক্তার জাহান, হোমিওপ্যাথিক বোর্ডের সহকারী পরিক্ষা নিয়ন্ত্রক তারিকুজ্জামান সোহেল, ওয়াল্ড ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক মো: শহীদুল ইসলাম ও কল্যাণী সেবা সংস্থার নির্বাহী পরিচালক ডা: জিএম জাব্বার চিশতি।

হোমিওপ্যাথি বোর্ডের চেয়ারম্যান ডা: দিলীপ কুমার রায় বলেন, প্রান্তিক জনগোষ্ঠির মধ্যে স্বাস্থ্যসেবা পৌছিয়ে দেয়ার লক্ষ্যে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান প্রথম ১৪ লাখ টাকা বিশেষ অনুদান দিয়ে হোমিওপ্যাথি হাসপাতাল নির্মাণ করেছিলেন। হোমিওপ্যাথির যা উন্নয়ন হয়েছে বঙ্গবন্ধু এবং শেখ হাসিনার সময়ে। বর্তমানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা হোমিওপ্যাথিকে জাতীয় স্বাস্থনীতি ও জাতীয় ওষুধনীতিতে অন্তর্ভুক্ত করেছেন। সরকারি মেডিকেল কলেজে নিয়োগ দেয়া হচ্ছে হোমিওপ্যাথি ডাক্তারদের। নানা রকম মেডিসিনে যাতাকলে হোমিওপ্যাথি যতটুকু এগিয়েছে এটা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্যই হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, আপনারা প্রধামন্ত্রীর জন্য দোয়া করবেন। তিনি থাকলে হোমিওপ্যাথি আরও এগিয়ে যাবে। আপনারা কোন ভুল বুঝবেন না। আমাদের আমাদের মর্যাদা অবশ্যই পাবো। এমবিএস পাস করে যদি ডাক্তার লিখতে পারলেও হোমিওপ্যাথি পড়েও ডাক্তার লিখতে পারবে। এজন্য প্রতিযোগিতায় নিজেদের টিকে থাকতে হলে পড়ালেখায় মনযোগী হতে হবে। সকলেই ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করলে আমরা আমাদের কাংখিত জায়গায় পৌছাতে পারবো।

হোমিওপ্যাথি বোর্ডের রেজিস্টার কাম সেক্রেটারী ডা: মো: জাহাঙ্গীর আলম বলেন, নিয়মতান্ত্রিকভাবেই আমাদের মর্যাদা অর্জন করতে হবে। কারণ আমরা আইন তৈরি করি না। কোন ভুল বুঝাবুঝির সুযোগ নেই। সার্টিফিকেটের মান আপেক্ষিক বিষয়। যদি সম্মান না পেয়ে তাহলে সার্টিফিকেটের মান দিয়ে কিছু হবে না। সুতরাং বিভ্রান্তিমূলক কোন তথ্য দিবেন না। আশা করি হোমিওপ্যাথি তার গুণগত মান নিয়েই তার মান অর্জন করবে। মানুষের সেবায় নিজেদের আত্মনিয়োগ করবে।

হোমিওপ্যাথিক ডক্টর সোসাইটির সভাপতি অধ্যাপক ডা: মো: কামারুজ্জামান ভূঞার সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ডা: মো: আশরাফুর রহমানের সঞ্চালনায় এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন সহ সভাপতি ডা: মো: আজিজুর রহমান, ডা: মনীন্দ্র চন্দ্র দাস, সাংগঠনিক সম্পাদক ডা: মো: দেলোয়ার হোসেন, কোষাধ্যক্ষ ডা: মো: আখলাকুজ্জামান, আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক ডা: মো: তারিকুল ইসলাম, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক ডা: রোকেয়া বেগম ও সহ মহিলা বিষয়ক সম্পাদক জ্যোস্মা আক্তার সহ বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃৃন্দ।


বিভাগ : স্বাস্থ্য


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও