মঞ্চের অভাব অসহায়ত্ব তুলে ধরলেন নাট্যকর্মীরা,আশ্বাসে আনোয়ার হোসেন

সিটি করেসপন্ডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৯:৫২ পিএম, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ রবিবার

মঞ্চের অভাব অসহায়ত্ব তুলে ধরলেন নাট্যকর্মীরা,আশ্বাসে আনোয়ার হোসেন

‘একুশ মানে মাথা নত না করা’ এই প্রতিপাদ্য বিষয়কে সামনে রেখে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস-২০১৯ উদ্যাপন উপলক্ষে আলোচনা সভা ও পথনাট্যানুষ্ঠানের আয়োজন করে সম্মিলিত নাট্যকর্মী জোট নারায়ণগঞ্জ।

রোববার ২৪ ফেব্রুয়ারি সন্ধায় সম্মিলিত নাট্যকর্মী জোট নারায়ণগঞ্জ জেলার যুগ্ম আহ্বায়ক মীর আনোয়ার হোসেনের সভাপতিত্বে নারায়ণগঞ্জ শহরের চাষাঢ়ায় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে উক্ত আলোচনা সভা ও পথনাট্যানুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে।

এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্তিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি আনোয়ার হোসেন।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ হোসিয়ারি অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি নাজমুুল আলম সজল, সহ-সভাপতি মোঃ কবির হোসেন, জেলা পরিষদের নির্বাচিত সদস্য জাহাঙ্গীর আলম প্রমুখ।

এসময় উপস্থিত সভাপতি সহ সকল নাট্যকর্মীদের বক্তব্যে উঠে আসে নিজেদের অসহায়ত্বের কথা। সকল নাট্যকর্মী নিজেদের বক্তব্যে বলেন, নারায়ণগঞ্জে ধীরে ধীরে নাট্যকাররা হারিয়ে যাচ্ছে। এর কারণ আমাদের কোনো মঞ্চ নেই। নাটক করার জন্য আমরা কোনো স্পন্সর খুঁজে পাই না। এটা সময় গিয়ে নাট্যকর্মী কিংবা সাংস্কৃতিক কর্মী যারা আছেন অনেককেই সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়। নাটকের জন্য চুনকা পাঠাগার নির্মাণ করা হলো কিন্তু সেটা নাটক করার জন্য একেবারে উপযুুক্ত না। কারণ এর ধারণ ক্ষমতা একেবারে সীমিত। এছাড়া অনেক অদৃশ্য কারণ আছে যে কারণে সেখানে নাটক করা সম্ভব হয় না। জিয়া হল সেই কবে থেকেই পরিত্যক্ত। এক কথায় আমরা এখানে পুরোপুরি অসহায়, ঘরছাড়া।

এসময় সম্মিলিত নাট্যকর্মী জোট নারায়ণগঞ্জ জেলার যুগ্ম আহ্বায়ক মীর আনোয়ার হোসেন বলেন, আমাদের মঞ্চ না থাকায় আমরা যারা নাট্যকর্মী আছি তাঁর একত্রিত হতে পারছি না। সকলকে একত্রিত হওয়ার জন্য এটি একটি ছোট্যপ্রয়াস মাত্র। আমাদের জন্য নির্মাণ করা হয়েছে আলী আহমেদ চুনকা পাঠাগার। কিন্তু সেটা আমাদের জন্য একেবারেই উপযুক্ত না। বিভাগীয় শিল্পকলা ভবন নির্মাণ করা হচ্ছে। সেটার কাজও এখন বন্ধ আছে। এভাবে চললে একসময় নাট্যকর্মীরা হারিয়ে যাবে। অনেক নাট্যকর্মী শেষ বয়সে এসে আর্থিক সমস্যয় ভুগে।

এসময় জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন বলেন, নাট্যকর্মীরা আসলেই অনেক অভাবের মাঝে আছেন। মুক্তিযুদ্ধের পর যেমন মুক্তিযোদ্ধারা নির্যাতিত হয়েছিল। আমি জেলা পরিষদের পক্ষ থেকে অনেককেই সাহায্য সহযোগিতা করে থাকি। আমি যতটুকু পারি আমি সাহায্য সহযোগিতা করবো।



নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও