rabbhaban

পুলিশ প্রশাসনের কড়া অ্যাকশনে জনমনে স্বস্তি


সিটি করেসপন্ডেন্ট | প্রকাশিত: ০৮:১১ পিএম, ১০ মে ২০১৯, শুক্রবার
পুলিশ প্রশাসনের কড়া অ্যাকশনে জনমনে স্বস্তি ফাইল ফটো

নারায়ণগঞ্জে পুলিশ প্রশাসন হার্ডলাইনে অবস্থান করে একের পর এক কড়া এ্যাকশন দেখিয়ে যাচ্ছে। এতে করে অপরাধীদের ঘুম হারাম হলেও সাধারণ জনগণ স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলছে। ক্ষমতাসীন দলের নেতারাও এই এ্যাকশন থেকে নিস্তার পাচ্ছেনা; যেকারণে পুলিশ প্রশাসন অবশেষে জনগণের প্রশংসা কুড়াচ্ছে।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, ‘অপরাধীরা প্রভাবশালীদের ছত্রছায়ায় ক্রমশ আরো বেপরোয়া যাচ্ছে। যেকারণে সাধারণ জনগণ তাদের বিরুদ্ধে প্রতিবাদটুকুও করতে পারেনা। সেখানে পুলিশ প্রশাসন এবার বেশ কড়া এ্যাকশনের মধ্য দিয়ে অপরাধীদের ঘুম হারাম করে দিচ্ছে। এর ফলে সাধারণ জনগণ স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলতে শুরু করেছে। তবে এই কার্যক্রম কতটা স্থায়ী হবে তা নির্ভর করতে জনগণের স্থায়ী স্বস্তির উপর।

জানাগেছে, ২৪ এপ্রিল দিবাগত রাত ১ টার সময় চাঁদাবাজির অভিযোগে জাতীয় পার্টির বিতর্কিত নেতা আল জয়নালকে শহরের এস এম মালেহ রোডস্থ নিজ বাড়ির সামনে থেকে গ্রেফতার করে পুলিশ। এরপর পুলিশ তার ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করে। রোববার আদালত শুনানীর দিন ধার্য্য করেছেন।

২৩ এপ্রিল নারায়ণগঞ্জে কোটি টাকার চাঁদা দাবী করার মামলায় সিদ্ধিরগঞ্জ ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি নজরুল ইসলাম ওরফে ছোট নজরুলকে গ্রেফতার করা হয়েছে। মডার্ণ গ্রুপ অব কোম্পানী নামে একটি কোম্পানীর ল্যান্ড এক্সিকিউটিভ আজমত আলী ২২ এপ্রিল রাত পৌনে ৯টায় সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় এ মামলাটি দায়ের করেন।

একই দিনে সোনারগাঁ উপজেলা যুবলীগের সভাপতি রফিকুল ইসলাম নান্নুর বিরুদ্ধে একটি ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের ম্যানেজার ও অফিস সহকারীকে অপহরন করে ১০ লাখ টাকা চাঁদা দাবির অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় ওই ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের মালিক জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি সোহাগ রনি বাদি হয়ে সোনারগাঁ থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।

জানাগেছে, ২০ এপ্রিল শহরের দক্ষিণাঞ্চলে মাদক বিরোধী সাড়াশি অভিযান চালিয়েছে সদর মডেল থানা পুলিশ। অভিযানে পুলিশের তালিকাভুক্ত কয়েকজন চিহ্নিত মাদক বিক্রেতার বাড়ি বাড়ি ঢুকে তল্লাশী করা হয়। ওই সময়ে দুইজন মাদক বিক্রেতাকে না পেয়ে তাদের কয়েকটি আসবাবপত্র বাইরে এনে আগুন গিয়ে পুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে।

অভিযানে শহরের নলুয়াপাড়া এলাকার চিহ্নিত মাদক বিক্রেতা বিটুর বাড়িতে অভিযান চালানো হয়। তাকে বাসায় পাওয়া যায়নি। পরে মধ্য নলুয়াপাড়া এলাকার মাদক বিক্রেতা মিলন চৌধুরী ও রনি চৌধুরীর বাড়িতে অভিযান চালিয়ে তাদের না পেয়ে ঘরে থাকা আসববাপত্র বাইরে এনে পুড়িয়ে দেওয়া হয়। ওসি কামরুল ইসলাম জানান, মাদকের বিরুদ্ধে আমাদের জিরো টলারেন্সে অভিযান চলছে। কোন ধরনের ছাড় দেওয়া হবে না। মাদকের টাকায় ভোগ বিলাস করা আসবাবপত্র পুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে।

২০ এপ্রিল শহরের পাইকাপাড়া এলাকার ১৭নং ওর্য়াড কাউন্সিলর আবদুল করিম বাবু ওরফে ডিস বাবুর অন্যতম সহযোগি ও ডাকাতি মামলার আসামি সজীবকে মাদকসহ গ্রেফতার করেছে সদর মডেল থানার পুলিশ। নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানার ওসি কামরুল ইসলম জানান, সজীব নামে মাদক বিক্রেতাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। সজীব ১৭নং ওয়ার্ড কাউন্সিল বাবুর ছত্রছায়ায় থেকে মাদক বিক্রি সহ অন্যের জমি দখল করতো। এছাড়া তার বিরুদ্ধে ডাকাতিসহ একাধিক মামলা রয়েছে।

১৮ এপ্রিল নারায়ণগঞ্জের বন্দর উপজেলার ফরাজীকান্দায় কাউসার নামের একজন ব্যবসায়ীর কাছে ১০ লাখ টাকা চাঁদাবাজীর ঘটনায় স্যাটেলাইট কেবল ব্যবসায়ী ও সিটি করপোরেশনের ১৭নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আব্দুল করিম বাবুকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। সন্ধ্যায় তাকে আদালতে পাঠানো হলে আদালত কারাগারে পাঠায়।

১৯ এপ্রিল নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার ফতুল্লার ভূইগড়ে রূপায়ন টাউনের ফ্ল্যাট বাসিন্দাদের উপর হামলার অভিযোগ উঠেছে সদর উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান নাজিমউদ্দিন ও তার বাহিনীর বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন শিক্ষা মন্ত্রনালয়ের অতিরিক্ত সচিব আবুল কালাম আজাদ সহ ৪ জন। তারা স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন। ওই ঘটনায় আবু সাঈদ পাটোয়ারী ও আশরাফ সিদ্দিকী নামের দুইজন পৃথকভাবে বাদী হয়ে ১৯ এপ্রিল শুক্রবার দুপুরে বাদী হয়ে ফতুল্লা মডেল থানায় মামলা করেছেন।

১৭ এপ্রিল নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার উপজেলায় আটক একজনকে ছাড়াতে গিয়ে পুলিশের উপর হামলাকারী ছাত্রলীগ নেতা ও আটককৃতকেও ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। আর ওই ঘটনায় মাত্র এক ঘণ্টার ব্যবধানে নিজ বক্তব্য থেকেও সরে আসেন আড়াইহাজার থানার ওসি আকতার হোসেন। তিনি জানিয়েছেন, সেখানকার স্থানীয় এমপি নজরুল ইসলাম বাবুর সঙ্গে আলোচনা করেই ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। উপজেলার গোপালদী পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা হামলা চালিয়েছে দুপুরে ওসি জানালেও বিকেলে জানান সেখানে হামলা হয়নি। হামলা হয়েছে নজরুল ইসলাম বাবু কলেজের সামনে। তবে পরবর্তীতে অনেক নাটকীয়তার মধ্য দিয়ে এই ঘটনায় মামলা হয়েছে।

এর আগে গত ২৬ মার্চ পাগলা সিসিলি কমিউনিটি আওয়ার নারায়ণগঞ্জ নামে একটি অনলাইন পোর্টালের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে শাহ নিজাম পুলিশের কিছু কর্মকান্ডের সমালোচনা করেন। ওই অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকা ফতুল্লা মডেল থানার ওসি মঞ্জুর কাদের বাদী হয়ে তার বিরুদ্ধে জিডি করেন।

অপরদিকে ওসমান পরিবারের আরেক সদস্য সাংসদ সেলিম ওসমানের ঘনিষ্ঠ হিসেবে পরিচিত সাবেক কাউন্সিলর মহানগর শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক কামরুল হাসান মুন্নাকে আটক করা হয়েছিল। ১৮ নং ওয়ার্ডের একটি মসজিদকে কেন্দ্র করে দুই গ্রুপের হামলার ঘটনায় তাকেসহ বর্তমান কাউন্সিলরকে আটক করা হয়।

এরই মধ্যে পাগলায় প্যারাগন মাল্টিপারপাস প্রতিষ্ঠানের চেয়ারম্যান ও কর্মকর্তাদের মারধরের অভিযোগে গ্রেপ্তার হন পাগলা বাজার ব্যবসায়ী বহুমুখি সমিতির সভাপতি শাহ আলম টেনু। ৭ ফেব্রুয়ারী রাতে ডিবি তাকে গ্রেপ্তার করে।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
newsnarayanganj-video
আজকের সবখবর