rabbhaban

টানা ৫ বারের সভাপতি সেলিম ওসমান


স্পেশাল করেসপনডেন্ট | প্রকাশিত: ০৫:২৫ পিএম, ০৩ অক্টোবর ২০১৯, বৃহস্পতিবার
টানা ৫ বারের সভাপতি সেলিম ওসমান

আবারো বিকেএমইএ এর সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের সংসদ সদস্য সেলিম ওসমান।

এ নিয়ে টানা পঞ্চমবারের মত তিনি সংগঠনটিতে সভাপতি পদে নির্বাচিত হয়েছেন। বৃহস্পতিবর ৩ অক্টোবর অনুষ্ঠিত গার্মেন্টস ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন বাংলাদেশ নীটওয়্যার ম্যানুফ্যাকচারার্স এন্ড এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশন বিকেএমইএ’র পরিচালনা পর্ষদ (২০১৯-২০২১) এর অফিস বেয়ারা নির্বাচনে কোন প্রতিদ্বন্দ্বি না থাকায় তিনি সভাপতি হন।

এর আগে ২২ সেপ্টেম্বর বিকেএমইএর বাংলাদেশ নীটওয়্যার ম্যানুফ্যাকচারার্স এন্ড এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশন বিকেএমইএ’র পরিচালনা পর্ষদ (২০১৯-২০২১) নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। উক্ত নির্বাচন উপলক্ষ্যে ২৭টি পদের বিপরীতে ২৭ জন প্রার্থীর মনোনয়নপত্র জমা পড়ে। এদিকে ২৭ পদের বিপরীতে এ.কে.এম সেলিম ওসমান এমপির নেতৃত্বাধীন সম্মিলিত নীট ফোরামের বাইরে অন্য কোন প্রার্থীর মনোনয়ন জমা না দেওয়ায় উক্ত প্যানেলটি বিনাপ্রতিদ্ব›দ্ধীতায় নির্বাচিত হয়েছে।

পরিচালনা পর্ষদের বাকি সদস্যরা হলেন নারায়ণগঞ্জ অঞ্চল থেকে মঞ্জুরুল হক, মোহাম্মদ হাতেম, আবু আহমেদ সিদ্দিক, জি এম ফারুক, আশিকুর রহমান, খন্দকার সাইফুল ইসলাম, মো. সাহাদাত হোসেন ভূঁইয়া, নাসিমুল তারেক মঈন, রতন কুমার সাহা, নন্দ দুলাল সাহা, মো. কবীর হোসেন, তারেক আফজল, মজিবুর রহমান, ঢাকা অঞ্চল থেকে মনসুর আহম্মেদ, ফজলে শামীম এহসান, মোস্তফা জামাল পাশা, এম আই সিদ্দিক (সেলিম মাহবুব), মো. মোস্তফা মনোয়ার ভূঁইয়া, ইমরান কাদের তুর্য, এবং চট্রগ্রাম অঞ্চল রাজিব দাস সুজয়, মো. হাসান, আহমেদ নূর ফয়সাল, মির্জা আকবর আলী চৌধুরী।

প্রসঙ্গত গত ১৮ সেপ্টেম্বর থেকে মনোনয়পত্র বিতরণ শুরু হয়। কিন্তু ২০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত কোনো শিল্প মালিক মনোনয়নপত্র ক্রয় করেননি। শনিবার ২১ সেপ্টেম্বর এ.কে.এম সেলিম ওসমান ওসমানের নেতৃত্বে শিল্প মালিকদের মধ্যে নারায়ণগঞ্জ থেকে ১৫জন, ঢাকা থেকে ৭জন এবং চট্রগ্রাম থেকে ৫জন এবং ৩জন ব্যক্তিগত সহ মোট ৩০জন শিল্পমালিক তাদের নির্বাচনের মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করে ছিলেন।

উল্লেখ্য এর আগে একেএম সেলিম ওসমান, এমপি ২০১৯-২১ মেয়াদে বিকেএমইএ পরিচালনা পর্ষদের নির্বাচনে অংশ গ্রহণ করবেন না বলে ঘোষণা দেন। পরিপ্রেক্ষিতে একেএম সেলিম ওসমান, এমপি মনোনয়নপত্র ক্রয় না করলে তারাও মনোনয়নপত্র ক্রয় করবেন না বলে নীট শিল্পের মালিকগণ ঘোষণা দিয়ে ছিলেন। যার ফলে ১৮ সেপ্টেম্বর থেকে মনোনয়নপত্র বিক্রি শুরু হলেও গত ২০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত কোন শিল্প মালিক তাদের পক্ষে মনোনয়নপত্র করেননি।

এখানে আরো উল্লেখ্য যে, গত ১ সেপ্টেম্বর নারায়ণগঞ্জ রাইফেল ক্লাবে মোহাম্মদ হাতেমের নেতৃত্বে নীট শিল্প মালিকদের এক সভায় দেড় শতাধিক নীট শিল্প মালিক একেএম সেলিম ওসমান, এমপিকে নির্বাচনে অংশগ্রহণের অনুরোধ জানান। এছাড়াও গত ১২ সেপ্টেম্বর নারায়ণগঞ্জের গ্র্যান্ড হল রেষ্টুরেন্টে নীট শিল্প মালিকদের আরেকটি সভায় নারায়ণগঞ্জ, ঢাকা এবং চট্রগ্রাম থেকে প্রায় আড়াই শতাধিক শিল্প মালিক এমপি সেলিম ওসমানকে আবারো বিকেএমইএ এর নির্বাচনে অংশ নিয়ে সংগঠনটির দায়িত্ব নিতে জোরালে দাবী রাখেন। তাদের সবার অনুরোধের পরিপ্রেক্ষিতেই ২১ সেপ্টেম্বর সেলিম ওসমান এমপি ৫ম বারের মতো বিকেএমইএ নির্বাচনে অংশগ্রহণের জন্য মনোনয়নপত্র ক্রয় করেন। এর পরই তিনটি ব্যক্তিগত সহ মোট ৩০ টি মনোনয়নপত্র বিক্রি হয়।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
newsnarayanganj-video
আজকের সবখবর