rabbhaban

মর্গ্যানে ১৭ প্রার্থীর বাছাই সম্পন্ন, বৈধতা রোববার


সিটি করেসপনডেন্ট | প্রকাশিত: ০৮:৫৫ পিএম, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮, বৃহস্পতিবার
মর্গ্যানে ১৭ প্রার্থীর বাছাই সম্পন্ন, বৈধতা রোববার

নারায়ণগঞ্জ শহরের দেওভোগে অবস্থিত মর্গ্যান গার্লস স্কুল অ্যান্ড কলেজের গভর্নিং বডি নির্বাচন ও শিক্ষক প্রতিনিধি নির্বাচনের জন্য মনোনয়নপত্র দাখিল করা ১৭ জন প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাছাই সম্পন্ন হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২০ সেপ্টেম্বর) দুপুরে স্কুলটির মিলনায়তনে বাছাই সম্পন্ন সম্পন্ন। এসময় প্রার্থীদের সঙ্গে তাদের প্রস্তাবক ও সমর্থক উপস্থিত ছিলেন। তবে নির্বাচনের প্রিসাইডিং অফিসার সদর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোমিন মিয়া জাতীয় নির্বাচন উপলক্ষ্যে ঢাকায় একটি জরুরী মিটিংয়ে থাকায় বৃহস্পতিবার বৈধ প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করেননি স্কুলটির অধ্যক্ষ অধ্যাপক অশোক তরু। তবে এসময় সদর উপজেলার নির্বাচন অফিসারের অফিস সহকারী মামুন উপস্থিত ছিলেন। আগামী রোববার ২৩ সেপ্টেম্বর মনোনয়ন প্রত্যাহারের সময় শেষ হওয়ার পর বিকেল ৫টায় বৈধ প্রার্থীদের তালিকা ও বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় নির্বাচিতদের তালিকাও ঘোষণা করা হবে।

জানা গেছে, আগামী ৫ অক্টোবর গভর্নিং বডি নির্বাচনে ৩৩০০ অভিভাবক তাদের ভোটের মাধ্যমে যোগ্য প্রার্থীকে জয়ী করাবে। একই দিন শিক্ষক প্রতিনিধি পদেও নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচনে দাতা সদস্য পদে ১ জন, ১৭ সেপ্টেম্বর ৩টি প্রাথমিক মাধ্যমিক অভিভাবক সদস্য পদে ৬টি, কলেজ শাখার দুইটি অভিভাবক পদে ২টি এবং সংরক্ষিত মহিলা অভিভাবকের একটি আসনের জন্য দুই নারী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। এছাড়া মাধ্যমিক শিক্ষক প্রতিনিধি পদে ৩ জন, প্রাইমারী শিক্ষক প্রতিনিধি পদে ১ জন, কলেজ শিক্ষক প্রতিনিধি পদে ১ জন, সংরক্ষিত মহিলা শিক্ষক প্রতিনিধি পদে একজন মনোনয়ন পত্র দাখিল করেছেন। 

স্কুলটির অধ্যক্ষ অধ্যাপক অশোক তরু জানান, ৬ মাস পূর্বে যথাযথ নিয়ম অনুযায়ী দাতা সদস্য নেয়ার বিষয়ে নোটিশ বোর্ডে নোটিশ সাটানো, ৫০টি শ্রেণীকক্ষে শিক্ষকদের মাধ্যমে ঘোষণা দেয়া হয়েছিল। দাতা সদস্য পদে মাত্র ১ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। তিনি হলেন এস এম আহসান হাবিব। অত্র নির্বাচনের প্রধান প্রিসাইডিং অফিসার সদর উপজেলা নির্বাচন অফিসার মমিন মিয়া জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষ্যে ঢাকায় জরুরী মিটিংয়ে থাকায় তার নির্দেশক্রমে আমি প্রত্যেক প্রার্থীর প্রস্তাবক ও সমর্থককে নিয়ে হাজির হওয়ার জন্য বলেছিলাম। প্রার্থীদের প্রস্তাবক ও সমর্থক ঠিক আছে কিনা সেটা আমরা যাচাই করার চেষ্টা করেছি। আগামী রোববার ২৩ সেপ্টেম্বর বিকেল ৪টা পর্যন্ত প্রত্যাহারের সময়। ওইদিন বিকেল ৫টায় আমরা বৈধ প্রার্থীদের তালিকা ঘোষণা করবো। এছাড়া যেসকল পদে একক প্রার্থী রয়েছে তারা বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় নির্বাচিত হবে। যেসকল পদে একাধিক প্রার্থী রয়েছে তাদের মধ্যে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

জানা গেছে, গভর্নিং বডির মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন তারা হলেন প্রাথমিক (১ম-৫ম শ্রেণীর) অভিভাবক সদস্য একজন অভিভাবক সদস্য পদে মোশাররফ হোসেন জনি, মাসুদুর রহমান মাসুদ ও জানে আলম। মাধ্যমিকে (৬ষ্ঠ-১০ম শ্রেণীর) দুইজন অভিভাবক সদস্য পদে সুনয়ন মাহমুদ সুপন, বরাত হোসেন সুমন ও জাকির হোসেন রতন। কলেজ শাখার দুই অভিভাবক পদে মোঃ সেলিম ও হানিফ মাতবর। অপরদিকে ১ম শ্রেণী-কলেজ শাখার একজন সংরক্ষিত মহিলা অভিভাবক সদস্য পদে মহিলা কাউন্সিলর শারমিন হাবিব বিন্নী ও তাহেরা বেগম তানিয়া। ১০ জনের মধ্যে দুই জন রয়েছেন বর্তমান কমিটির সদস্য হিসেবে। তারা হলেন প্রাথমিক (১ম-৫ম শ্রেণীর) অভিভাবক সদস্য মোশাররফ হোসেন জনি ও ১ম শ্রেণী-কলেজ শাখার সংরক্ষিত মহিলা অভিভাবক সদস্য মহিলা কাউন্সিলর শারমিন হাবিব বিন্নী। মনোনয়নপত্র জমা হিসেবে কলেজ শাখার দুই অভিভাবক সদস্য পদে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ে পথে রয়েছেন নবাগত মোঃ সেলিম ও হানিফ মাদব্বর।

মাধ্যমিক শিক্ষক প্রতিনিধি পদে রাশেদুল ইসলাম, শহীদুল্লাহ শাহীন ও আব্দুল বাতেন এই ৩ জন, প্রাইমারী শিক্ষক প্রতিনিধি পদে কাউসার পারভীন একক প্রার্থী, কলেজ শিক্ষক প্রতিনিধি পদে ইয়া রসুল মিয়া একক প্রার্থী, সংরক্ষিত মহিলা শিক্ষক প্রতিনিধি পদে রওশন আরা পারভীন একক প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন পত্র দাখিল করেছেন।

এর আগে মনোনয়নপত্র জমা দিয়ে প্রাথমিক সদস্য পদের প্রার্থী মোশাররফ হোসেন জনি নিউজ নারায়ণগঞ্জকে বলেন, অভিভাবকদের কাছে আমি ঋণী। তারা আমাকের প্রাথমিক অবস্থায় দুইবার ভোট দিয়ে নির্বাচিত করেছে। যে সুযোগ সুবিধা পাবার জন্য অভিভাবকরা যেভাবে ভোট দিয়ে ছিল তার বাস্তবায়নে পূরণ করতে পেরেছি। শিক্ষা মান আরো উন্নত করার জন্য সব সময় সচেষ্ট ভূমিকা পালন করেছি। আগামীতে অভিভাবকেরা আমাকে জয়ী করলে সবর্দা তাদের পাশে থাকার প্রত্যয় করছি।

মনোনয়নপত্র জমা দিয়ে মাধ্যমিক সদস্য পদের প্রার্থী সুনয়ন মাহমুদ সুপন নিউজ নারায়ণগঞ্জকে বলেন, মর্গ্যান স্কুলটি ঐহিত্যবাহী বিদ্যালয়। এই স্কুলে আমার সন্তান সহ পবিবার বংশের অনেকে শিক্ষা গ্রহণ করেছে করছে। তাই স্কুল আগামী উন্নয়নের সিড়িতে আমি থাকতে চাই। আমার সকল প্রচেষ্টা থাকবে স্কুলের উন্নয়নে, অভিভাবকদের কাছে সুনয়ন হয়ে থাকতে চাই। বিদ্যালয় চেয়ারম্যান মহোদয় যোগ্য ব্যক্তিত্ব তার সাথে কাজ করে মর্গ্যানকে একটি মডেল হিসেবে গড়ে তুলতে চাই। অভিভাবকদের কোন মতে সমস্যা পড়তে দেয়া হবে, তাদের সকল দাবি সাথে আমার একত্মা থাকবো সকল সময়।

মনোনয়নপত্র জমা দিয়ে প্রথম শ্রেণী-কলেজ শাখার সংরক্ষিত মহিলা অভিভাবক সদস্য পদের প্রার্থী তাহেরা বেগম তানিয়া নিউজ নারায়ণগঞ্জকে বলেন, এই স্কুলের প্রাক্তন ছাত্রী ছিলাম। এখন মেয়ে পড়ছে জীবনে ইচ্ছে ছিল লেখাপড়া করে ভাল চাকরি করা। কিন্তু সাংসরিক জীবনে জড়িয়ে যাওয়ায় সেই ইচ্ছে পূরণ হয়নি। এখন মেয়ের অভিভাবক হওয়ায় মানুষের সেবা করা ইচ্ছে জেগেছে। সেই কারণে ঐতিহ্যবাহী মর্গ্যান স্কুল অ্যান্ড কলেজটি উন্নয়ন করা লক্ষ্যে আমার প্রার্থী হওয়ায়। অভিভাবকরা যদি আমাকে ভোট দিয়ে জয়ী করে সবর্দাই আমার মেধা দিয়ে তাদের কল্যাণ কাজ করে যাবো।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
newsnarayanganj-video
আজকের সবখবর