rabbhaban

জালকুড়ি স্কুলে বিদায় অনুষ্ঠান


স্পেশাল করেসপনডেন্ট | প্রকাশিত: ০৭:৫০ পিএম, ১৫ নভেম্বর ২০১৮, বৃহস্পতিবার
জালকুড়ি স্কুলে বিদায় অনুষ্ঠান

২০১৮ এর সমাপনী পরিক্ষার্থীদের বিদায় অনুষ্ঠান ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। ১৫ নভেম্বর বৃহষ্পতিবার সকাল সাড়ে ১১ টায় ৯০ নং জালকুড়ি পূর্ব সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সমাপনী পরিক্ষার্থীদের বিদায় অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে।

এ সময় সমাপনী পরিক্ষার্থীদের সাথে শিক্ষকদের আলোচনা সভা আয়োজিত হয়। স্কুল সুত্রে জানা যায়, উক্ত বিদ্যালয় থেকে ২০১৮ সালে মোট ৯৭ জন পরিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করতে চলেছে। তাদের মধ্যে ৪৫ জন ছেলে পরিক্ষার্থী এবং ৫২ জন মেয়ে পরিক্ষার্থী রয়েছে।

এ বিষয়ে বিদ্যালয়ের সহকারি প্রধান শিক্ষক রওশন আরা বেগম বলেন, ‘ছেলে পরিক্ষার্থী থেকে মেয়ে পরিক্ষার্থীর সংখ্যা বেশি। এতে বুঝা যায় নারী সচেতনতা বৃদ্ধি পাওয়ায় নারী শিক্ষার হার বৃদ্ধি পাচ্ছে। কারন ছেলেদের মধ্যে পুরুষতান্ত্রিক মনোভাব ছোট বেলা থেকেই জন্মায়। ফলে তাদের কোনো কথা বলে শোনানো যায় না। কিন্তু মেয়েদের যা বলা হয়, যেভাবে বলা হয় সেভাবেই পড়াশোনা করে।’

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বিদ্যালয়ের সাবেক সভাপতি সিরাজুল ইসলাম, ‘আগে বাংলাদেশ সরকারের শিক্ষার হার বাড়ানোর দরকার ছিল। কিন্তু এখন সরকারের দরকার কোয়ালিটি। মানসম্মত ফলাফল করার চেষ্টা করবে। শুধুমাত্র পাশ করায় কোনো মহত্ব নেই।’

আরো জানা যায়, ৩য় বছরের মত জালকুড়িতে অবস্থিত ৩ টি প্রাথমিক বিদ্যালয় এবং অন্যান্য সকল বেসরকারি বিদ্যালয় গুলোর পরিক্ষার কেন্দ্র ৯০ নং জালকুড়ি পূর্ব সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পরেছে। এমনকি এই বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের পরিক্ষার আয়োজনও এই একই কেন্দ্রে করা হয়েছে।

এ বছর কেন্দ্র পরিদর্শক হিসেবে প্রথমবারের মতো থাকবেন আমলাপাড়া আইইটি বালক সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সাহানা নারগিস।

এ বিষয়ে তিনি নিউজ নারায়ণগঞ্জকে বলেন, `প্রথমবারের মতো এই কেন্দ্রের দায়িত্বে থাকলেও অন্যান্য অনেক স্কুলের দায়িত্বে ছিলাম এর আগে। তো কোনো অসুবিধা হবে না আশা করি। তাছাড়া স্কুলের শিক্ষকরাও সকলে ভালোভাবেই পরিক্ষার প্রস্তুতি গ্রহণ করছেন। এটা একটা টিম ওয়ার্ক। সকলের সঠিকভাবে অংশগ্রহণ কাম্য।`
বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা মিতালি রায় নিউজ নারায়ণগঞ্জকে বলেন, `জালকুড়ির সকল শিক্ষার্থীদের দায়িত্ব নেয়া বড় কথা নয়। তবে যেহেতু এর আগেও ২ বছর পরিক্ষার হল এই স্কুলে পরেছে, সেহেতু আমরা মানসিকভাবে প্রস্তুত।`

আপনার মন্তব্য লিখুন:
newsnarayanganj-video
আজকের সবখবর