rabbhaban

প্রসঙ্গ তোলারাম কলেজে কথিত টর্চার সেল


সিটি করেসপন্ডেন্ট | প্রকাশিত: ০৯:২৭ পিএম, ১৮ অক্টোবর ২০১৯, শুক্রবার
প্রসঙ্গ তোলারাম কলেজে কথিত টর্চার সেল

প্রফেসর ড. শিরিন বেগম (প্রাক্তন অধ্যক্ষ সরকারি তোলারাম কলেজ) : নারায়ণগঞ্জ এর বিভিন্ন প্রগতিশীল আন্দোলন সংগ্রাম এর সূতিকাগার ঐতিহ্যবাহী তোলারাম কলেজ। একটি পবিত্র বিদ্যাপীঠ। যেখানে লক্ষ লক্ষ শিক্ষার্থী অত্র শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে শিক্ষা গ্রহণ করে দেশে-বিদেশে তথা আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে বিভিন্নভাবে সুনাম ও খ্যাতি অর্জন করে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকার স্বাক্ষর রেখে যাচ্ছে।

এ বিদ্যাপিঠের আমিও একজন ছাত্রী। একজন ছাত্রী হিসেবে ১৯৭০ সাল থেকে এ কলেজটির প্রতিটি ইট কাঠের সাথে আমার আত্মার সম্পৃক্ততা রয়েছে। পর্যায়ক্রমে চাকরির বদৌলতে আল্লাহ্র অশেষ কৃপায় আমারই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সরকারি তোলারাম কলেজে, শিক্ষক পরিষদের সম্পাদক, সহকারী অধ্যাপক, সহযোগী অধ্যাপক, অধ্যাপক, উপাধ্যক্ষ ও অধ্যক্ষ, পরবর্তীতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা কর্তৃক প্রাপ্ত চুক্তিভিত্তিক অধ্যক্ষ হিসেবে দীর্ঘদিন কাজ করার সুযোগ পেয়েছি। বর্তমানে প্রাক্তন অধ্যক্ষ হিসেবে ও নিয়মিত বিভিন্ন কাজে, বিভিন্ন অনুষ্ঠানে অত্র প্রতিষ্ঠানে আমার যাতায়ত ও সম্পৃক্ততা রয়েছে।

সরকারি তোলারাম কলেজ নিয়ে বিভিন্ন কুচক্রী মহল কথিত টর্চার সেল এর অস্তিত্ব নিয়ে বিভিন্নভাবে মন্তব্য করে কলেজের ভাবমূর্তি ও সুনাম নষ্ট করে শিক্ষার্থীদের আতঙ্কে রেখে নিজেদের স্বার্থ চরিতার্থের চেষ্টা চালিয়ে রাজনৈতিক ফায়দা আদায়ে লিপ্ত রয়েছে। আমি এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জ্ঞাপন করছি। আমার এবং আমাদের পবিত্র শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে মিথ্যা অপবাদ দিয়ে কলুষিত করার অধিকার ও স্পর্ধা কাউকে দেয়া হয় নাই। সাবেক অধ্যক্ষ হিসেবে দীর্ঘদিন এ কলেজের সমস্ত কক্ষ আমার পরিচিত এবং নখদর্পে ছিল ও আছে। বর্তমান অধ্যক্ষগণের, শিক্ষক মন্ডলীর এবং শিক্ষার্থীদেরও কলেজের সমস্ত কক্ষ পরিচিত ও নখদর্পে রয়েছে। এখানে কোন গোপন কক্ষ কখনই ছিলনা বর্তমানেও নাই।

শামীম ওসমান অত্র কলেজের ছাত্র, ছাত্রনেতা বর্তমান এমপি, যিনি নারায়ণগঞ্জবাসীর অভিভাবক হিসেবে শিক্ষাকে সর্বোচ্চ মর্যাদা দিয়ে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন। সেখানে এ ধরনের বক্তব্য দিয়ে একটি ঐতিহ্যবাহী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের কার্যক্রমকে ব্যহত করে শিক্ষার মান নষ্ট করে, প্রতিষ্ঠানের সম্মান ক্ষুন্ন করা থেকে সকল মহলকে এ ধরনের মিথ্যা বক্তব্য ও মন্তব্য প্রদান থেকে বিরত থাকার জন্য বিনীত অনুরোধ জানাচ্ছি। পাশাপাশি এ ধরনের বক্তব্যের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

উল্লেখ্য, বিগত জেলা আইন শৃংখলা সভায় কুচক্রী মহলের কথিত উক্তি সরকারি তোলারাম কলেজের টর্চার সেল নিয়ে অহেতুক, অপ্রাসঙ্গিক আলোচনা করেছেন মাহাবুব রহমান মাসুম, প্রেস ক্লাব এর সভাপতি। তার মত দায়িত্বশীল ব্যক্তি যিনি তোলারাম কলেজের একজন প্রাক্তন ছাত্র, তার পক্ষে এ ধরনের ভিত্তিহীন প্রসঙ্গ নিয়ে বক্তব্য প্রদান করা সমীচীন হয়নি। ভবিষ্যতে প্রমাণ ছাড়া সকল মহলকে শিক্ষাঙ্গন নিয়ে এ ধরনের আলোচনা থেকে বিরত থাকার জন্য আহ্বান জানাচ্ছি।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
newsnarayanganj-video
আজকের সবখবর