ফেসবুক নিয়ে বন্দরে স্কুল ছাত্রকে ছুরিকাঘাত


বন্দর করেসপন্ডেন্ট | প্রকাশিত: ০৮:২৪ পিএম, ০১ ডিসেম্বর ২০১৯, রবিবার
ফেসবুক নিয়ে বন্দরে স্কুল ছাত্রকে ছুরিকাঘাত

ফেসবুক সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে নবম শ্রেণী ছাত্রকে ছুরিকাঘাত করে জখমের ঘটনায় স্থানীয় জনতা ২ বখাটে যুবককে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে। ৩০ নভেম্বর শনিবার বিকেলে বন্দর বাজারস্থ কাউন্সিলর সুলতানের অফিসের সামনে থেকে এদেরকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে জনতা।

স্থানীয় এলাকাসী জখম অবস্থায় স্কুল ছাত্রকে উদ্ধার করে বন্দর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রেরণ করেছে। এ ব্যাপারে আহত স্কুল ছাত্রের চাচা শহীদুল্লাহ মীর বাদী হয়ে আটককৃত ২ যুবক সহ অজ্ঞাত ৩ থেকে ৪ জনকে আসামী করে ঘটনার ওই দিন রাতে বন্দর থানায় মামলা দায়ের করেছে।

আহত স্কুল ছাত্র মেহেদী হাসান মীর (১৬) বন্দর থানার একরামপুর সিএসডি এলাকার মাছুম মীরের ছেলে। সে বন্দর বিএম ইউনিয়ন স্কুল অ্যান্ড কলেজের নবম শ্রেণীর ছাত্র।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, বন্দর বিএম ইউনিয়ন স্কুল অ্যান্ড কলেজের নবম শ্রেণীর ছাত্র মেহেদী হাসান মীরের সাথে একই থানার সালেহনগর এলাকার মঞ্জিল মিয়ার ছেলে আল আমিন ও একই এলাকার আব্দুর রহিম মিয়ার ছেলে রাফিয়ানের সাথে ফেসবুক সংক্রান্ত বিরোধ ছিল। শনিবার বিকেলে স্কুল ছাত্র মেহেদী হাসান মীর ও তার ২ বন্ধু পরিক্ষা শেষে করে বাড়ি ফিরছিল। পূর্ব শত্রুতার জের ধরে উল্লেখিত ২ বাখাটে সহ আজ্ঞাত নামা ৩/৪ জন সন্ত্রাসী ধারালো অস্ত্র নিয়ে স্কুল ছাত্রদের উপর হামলা চালায়। ওই সময় হামলাকারীরা স্কুল ছাত্র মেহেদী হাসানকে পথ রোধ করে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। ওই সময় তাদের চিৎকারের শব্দ শুনে স্থানীয় জনতা ২ বখাটেকে আটক করলে বাকিরা কৌশলে পালিয়ে যায়। পুলিশ আটককৃতদের রোববার সকালে উক্ত মামলায় আদালতে প্রেরণ করেছে।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
newsnarayanganj-video
আজকের সবখবর