গুরুর সম্মান রাখতে সেলিম ওসমান সাড়ে ৪ কোটি টাকা দিয়েছেন


স্পেশাল করেসপনডেন্ট | প্রকাশিত: ০৭:১৩ পিএম, ১৭ মার্চ ২০২০, মঙ্গলবার
গুরুর সম্মান রাখতে সেলিম ওসমান সাড়ে ৪ কোটি টাকা দিয়েছেন

নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামীলীগের আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও মর্গ্যান বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়েল পরিচালনা পরিষদের সদস্য আহসান হাবিব বলেছেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তিনি তার কথা রেখেছিলেন আনোয়ার হোসেনকে রাজনীতির পাশাপাশি জনসেবা করতে জনপ্রতিনিধি নির্বাচিত করে। এজন্য প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।’

তিনি বলেন, ‘নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের এমপি সেলিম ওসমানও তার কথা রেখেছেন, গুরুর সম্মান রাখতে স্কুল ভবনের জন্য সাড়ে ৪ কোটি টাকা দিয়েছিলেন। সেজন্য সাংসদ সেলিম ওসমানের প্রতিও কতৃজ্ঞতা জানাই।’

আহসান হাবিব বলেন, ‘আমরা চাই জননেত্রী শেখ হাসিনা যে আশা উচ্ছাস নিয়ে আনোয়ার হোসেনকে জেলা পরিষদের চেয়ারম্যানের মনোনীত করেছিলেন আমরা বিশ্বাস করি জননেত্রী শেখ হাসিনার সেই মান সম্মান রাখবেন। তিনিও জনগনের কল্যানে সব সুখ মিটিয়ে নিজেকে বির্সজন দিবেন। এবং বিশ্বাস করি আনোয়ার ভাই সেই পথেই হাটছেন। তিনিও জনগনের সেবা নিয়েই আছেন।

৭ মার্চ মঙ্গলবার দুপুরে শহরের দেওভোগ এলাকায় মর্গ্যান গার্লস স্কুল অ্যান্ড কলেজে নবনির্মিত আনোয়ার হোসেন মিলনায়তন এর উদ্বোধন উপলক্ষে আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

১৭ মার্চ জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন ও জাতীয় শিশু দিবস ২০২০ উপলক্ষে মর্গ্যান গার্লস স্কুল অ্যান্ড কলেজ এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন।

মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জিএম আরাফাত রহমান বলেছেন, বঙ্গবন্ধুর জন্ম না নিলে আমাদের এ বাংলা জন্ম নিতো না। ১৯৭১ বলেন আর ১৯৬৯ বলেন, ভাষা আন্দোলন বলেন আর বাষট্টির শিক্ষা আন্দোলন বলেন প্রতিটি আন্দোলন সংগ্রামে বঙ্গবন্ধু নেতৃত্ব দিয়েছেন। ১৯৭১ সালের ৭ মার্চ ভাষণে বলেছিলেন, এবারের সংগ্রাম মুক্তির সংগ্রাম, এবারের সংগ্রাম স্বাধীনতার সংগ্রাম।’ আর সেই দিন থেকেই আমাদের স্বাধীনতা শুরু হয়ে গিয়েছিল।

তিনি উপস্থিত শিক্ষার্থী, রাজনৈতিক নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে তিনি আরো বলেন, আপনারা একটি বই পড়বেন, সেটা হলো বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনী। যে বইটিতে বঙ্গবন্ধুর স্কুল জীবন থেকে শুরু করে অন্দোলন সংগ্রাম সব কিছু লেখা আছে। যা পড়ে আপনারা বঙ্গবন্ধুকে জানতে ও শিখতে পারবেন। বঙ্গবন্ধু সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালী। সেই বঙ্গবন্ধুকে আজ স্মরণ করছি।’

আনোয়ার হোসেন মিলনায়তন নাম করণ হওয়ায় সন্তোষ প্রকাশ করে জিএম আরাফাত বলেন, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী যেভাবে রাজনীতিতে নেতৃত্ব দিয়ে আসছেন তার উৎকৃষ্ট উদাহরণ হচ্ছে আমাদের আনোয়ার ভাই। তিনি একজন স্বচ্ছ রাজনীতিবিদ। জীবনে আন্দোলন সংগ্রাম করলেও কখনো কিছু দাবি করেননি। বরং যখন তিনি অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয় তখন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ফোন দিয়ে জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচনের জন্য দলীয় মনোনয়ন দেন। আমরা সেই মানুষের সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে আছি। আপনার আনোয়ার ভাইয়ের জন্য দোয়া করবেন। তিনি যেন উন্নয়ন ও রাজনীতিকে আরো এগিয়ে নিয়ে যেতে পারে।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
newsnarayanganj-video
শিক্ষাঙ্গন এর সর্বশেষ খবর
আজকের সবখবর